কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আয়োজনে বিপাকে বাফুফে!

প্রকাশিত : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৪
  • পাকিস্তানের পর মালদ্বীপেরও ‘না’ প্রস্তুত নয় ঢাকা ও সিলেটের ভেন্যু

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু হচ্ছে মাত্র তিন সপ্তাহ পর। কিন্তু এখনও ছয় দলের মধ্যে ষষ্ঠ দল নির্ধারিত হয়নি। ষষ্ঠ দল হিসেবে প্রথমে পাকিস্তান রাজি হয়ে পরে তাদের ওই সময়ে প্রীতিম্যাচ আছে বলে মানা করে দেয়। বাফুফের আমন্ত্রণে রাজি হয় মালদ্বীপ। কিন্তু সোমবার জানা গেল শেষ পর্যন্ত আসছে না মালদ্বীপও। এখন ষষ্ঠ দল খোঁজা নিয়ে বিপাকে পড়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।

তবে পাঁচ দল নিয়েই বঙ্গবন্ধু কাপ শুরু করা হবেÑ এখনই এমনটা ভাবছে না বাফুফে। এখনও সময় আছে হাতে। এর মধ্যেই ষষ্ঠ দল খুঁজে নেয়াটা কঠিন কাজ হবে না। বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ জানান, আগামী দুই দিনের মধ্যেই অন্য কোন দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হবে বাফুফের পক্ষ থেকে।

সোহাগ জানান, ‘মালদ্বীপ তাদের অভ্যন্তরীণ সমস্যার কথা জানিয়ে বঙ্গবন্ধু কাপে খেলার জন্য আসতে অপারগতা জানিয়েছে। তাই আমরা দুই এক দিনের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ার বা এর বাইরেও কোন দল নিয়ে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানাব অন্য কোন দেশকে।’ তবে মালদ্বীপ না আসার কথা চূড়ান্ত করে জানানোর আগেই শনিবার মিয়ানমারকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল বাফুফে। তবে এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোন উত্তর আসেনি।

বঙ্গবন্ধু কাপের জন্য চারটি দল নিশ্চিত হয়েছে আগেই। দলগুলো হলোÑ সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, বাহরাইন, মালয়েশিয়া। আর বাংলাদেশ হচ্ছে স্বাগতিক দল। বঙ্গবন্ধু কাপের জন্য এখনও প্রস্তুত নয় ঢাকা ও সিলেটের ভেন্যু। সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে নেই ফ্লাডলাইটের ব্যবস্থা। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ফ্লাডলাইট থাকলেও পর্যাপ্ত আলোর অভাব। এ বিষয়ে সোহাগ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম তৈরি আছে। যতটা অপর্যাপ্ততা আছে, তা নিয়েও কাজ করা হবে।’ সর্বশেষ জাপান-বাংলাদেশ ম্যাচে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ছিল আলোর অপর্যাপ্ততা। তবে এ বিষয়ে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সঙ্গে সোমবার বৈঠক করেছে বাফুফে। এ প্রসঙ্গে সোহাগ বলেন, মাঠে যেন প্রয়োজনীয় ১২০০ ‘লাক্স’ আলো পাওয়া যায়, সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে এনএসসি।

এদিকে সিলেট ক্রীড়া সংস্থাকে যেসব সংস্কার কাজ করতে বলা হয়েছে, সেগুলো কী? সেখানে পর্যাপ্ত পরিমাণ বেড়া নেই। ফলে সহজেই দর্শক মাঠে ঢুকতে পারে। তাই নিরাপত্তার স্বার্থে এটি নিয়ে কাজ করতে হবে। এছাড়া ড্রেসিংরুম, ভিআইপি গ্যালারি ও সাধারণ গ্যালারি সংস্কারের কাজ করা হবে। রঙ করা ও অতিথি দলের জন্য ভাল ড্রেসিংরুমের পাশাপাশি অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা দেয়ার ব্যবস্থাও করা হবে। এনএসসি থেকে বাজেট অনুমোদন হলেই কাজ পুরোদমে শুরু হবে। মাঠের সংস্কার কাজের অগ্রগতি পর্যবেক্ষণে আজ বাফুফের একটি প্রতিনিধি দল সিলেট স্টেডিয়াম পরিদর্শনে যাবে।

প্রকাশিত : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৪

২৩/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: