মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কোহলির শতকে জবাব ভারতের

প্রকাশিত : ১২ ডিসেম্বর ২০১৪
  • এ্যাডেলেইড টেস্ট, জনসনের বাউন্সারের আঘাতও আটকাতে পারেনি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নেই, তবু যেন আছেনই ফিলিপ হিউজেস। পেসার মিচেল জনসনের ভয়ঙ্কর এক বাউন্সার হেলমেটে আঘাত হানে বিরাট কোহলির। আর এতে করে ক্ষণিক সময়ের জন্য যেন পুরো এ্যাডেলেইড ওভালে হিউজেসের প্রেতাত্মা ঘুরে বেড়াল। ক্রিকেট বলের আঘাতেই তো কিছুদিন আগে পরপারে চলে গেছেন তিনি। তবে মহেন্দ্র সিং ধোনির অনুপস্থিতিতে নেতৃত্বভার নেয়া কোহলি এতে বিন্দুমাত্র বিচলিত হননি। কোন ক্ষতিও হয়নি তাঁর। দারুণ দায়িত্বশীল একটি ইনিংস খেলে উপহার দিয়েছেন সেঞ্চুরি। তাঁর দৃঢ়চেতা ব্যাটিংয়ের সুবাদে তৃতীয় দিনশেষে প্রথম ইনিংসে ভারতের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ৩৬৯ রান। সমানতালে জবাবটা দিলেও এখন পর্যন্ত ১৪৮ রানে পিছিয়ে আছে ভারতীয় দল। এ্যাডেলেইড টেস্টের দ্বিতীয় দিন ছিল বৃষ্টির হানা। সে কারণে মাত্র ৩০ ওভার চার বল খেলা হয়েছিল। তবে এ সময়ের মধ্যেই টস জিতে আগে ব্যাট করতে নামা স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া নিজেদের ইনিংসটাকে অনেক বড় করে ফেলে ৭ উইকেটে ৫১৭ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে। তবে জবাব দিতে নেমে শুরু থেকেই অসি বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে খেলেছে সফরকারী ভারতীয় দল। সে কারণে এখন পর্যন্ত মোক্ষম জবাবটাই দিয়েছে ভারত। আজ চতুর্থ দিনেই পরিষ্কার হবে কোন দল এ টেস্টে শেষ পর্যন্ত জেতার পাল্লা ভারি করবে।

অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংসে পাহাড়সম সংগ্রহের জবাবে শুরু থেকেই দারুণ ব্যাট চালিয়েছেন ভারতের ওপেনাররা। এ্যাডেলেইড ওভালের গতিময় ও বাউন্সি উইকেটে অবশ্য দলীয় ৩০ রানের মধ্যেই ওপেনার শিখর ধাওয়ানকে (২৫) হারাতে হয়েছে। কিন্তু দ্বিতীয় উইকেটে দারুণ প্রতিরোধ গড়ে তোলেন মুরালি বিজয় ও চেতেশ্বর পুজারা। ৮১ রানের জুটি গড়েন তাঁরা। ফলে ভাল একটি অবস্থানের দিকে এগিয়ে যেতে থাকে ভারতীয় দল। তবে বিজয় ৮৮ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৫৩ করে ফিরে যাওয়ার পর ছন্দপতন ঘটে। সেটিকে প্রলম্বিত হতে দেননি কোহলি-পুজারা। তৃতীয় উইকেটে আরও ৮১ রান যোগ করেন এ দুজন। পুজারা দারুণ খেলে ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ টেস্ট অর্ধশতক হাঁকান। তিনি ১৩৫ বলে ৯ চারে ৭৩ রান করে ফিরে যাওয়ার পরও ভারতীয় ব্যাটিং লাইনআপে বড় রকমের চিড় ধরেনি। কারণ এরপর শক্তহাতে হাল ধরেন কোহলি-আজিঙ্কা রাহানে জুটি। এ দুজন চতুর্থ উইকেটে ১০১ রান যোগ করে দলকে দারুণ একটা অবস্থানে নিয়ে যান দলকে। বিশেষ করে কোহলি দারুণ এক ইনিংস উপহার দিয়েছেন। যদিও তাঁর শুরুটাই হয়েছিল দারুণ ভীতিকরভাবে। ব্যাট হাতে নামার পর তাঁকে শুরুতেই ভড়কে যেতে হয়েছে। আর পুরো স্টেডিয়ামকেও কিছুটা শঙ্কিত হতে হয়েছে। কারণ প্রথম যে বলটি তিনি মোকাবেলা করলেন সেটাই আঘাত করল সরাসরি তাঁর হেলমেটে। জনসন এদিন শুরু থেকেই পরিবেশে উত্তাপ ছড়াচ্ছিলেন তাঁর গতি দিয়ে। ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের জন্য দারুণ সমস্যাও তৈরি করেছেন তিনি। তবে সেটাই শেষ। এরপর কোহলি দারুণ সাবলীল ভঙ্গিতেই ব্যাট চালিয়েছেন। ক্যারিয়ারের সপ্তম সেঞ্চুরিও পেয়ে গেছেন। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় আর এ্যাডেলেইডে দ্বিতীয় শতক হাঁকালেন তিনি। তিন বছর আগে এ মাঠেই ১১৬ রানের একটি ইনিংস খেলেছিলেন। এবার খেললেন ১১৫ রানের ইনিংস। ১৮৪ বলে ১৫ চারে এ রান করেন তিনি।

কোহলির আগেই ফিরে যান রাহানে। তবে এর আগে করে ফেলেন ক্যারিয়ারের পঞ্চম অর্ধশতক। ৭৬ বলে ১০ চারে ৬২ রান করেন তিনি। রাহানের বিদায়ের পর কোহলি জুটি বাঁধেন রোহিত শর্মার সঙ্গে। তারা পঞ্চম উইকেটে আরও ৭৪ রান যোগ করেন। দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম উইকেটে বড় রানের জুটিই দিনশেষে স্বস্তিতে রেখেছে ভারতীয় শিবিরকে। তবে এখনও ১৪৮ রানে পিছিয়ে তারা। ৫ উইকেটে ৩৬৯ রান প্রথম ইনিংসে। রোহিত ৩৩ ও উইকেটরক্ষক ঋদ্ধিমান সাহা ১ রানে ব্যাট করছেন।

স্কোর ॥ অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংস- ৫১৭/৭ ডিক্লে.; ১২০ ওভার (স্মিথ ১৬২*, ওয়ার্নার ১৪৫, ক্লার্ক ১২৮; শামি ২/১২০, এ্যারন ২/১৩৬, করন ২/১৪৩)।

ভারত প্রথম ইনিংস-তৃতীয় দিন শেষে ৩৬৯/৫; ৯৭ ওভার (কোহলি ১১৫, পুজারা ৭৩, রাহানে ৬২, বিজয় ৫৩, রোহিত ৩৩*, ধাওয়ান ২৫, ঋদ্ধিমান ১*; জনসন ২/৯০, লিয়ন ২/১০৩)।

*তৃতীয় দিনশেষে ভারত পিছিয়ে ১৪৮ রানে।

প্রকাশিত : ১২ ডিসেম্বর ২০১৪

১২/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: