কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাংলাদেশ কি পারবে সরাসরি বিশ্বকাপে খেলতে?

প্রকাশিত : ২৭ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ভারতের বিপক্ষে ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের আনন্দে বাড়তি অনুষঙ্গ হয়ে এসেছে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলার যোগ্যতা অর্জন। বিশ্বকাপের পর ওয়ানডের সবচেয়ে বড় আসর আট দলের এই আয়োজন, ২০১৭ সালে যেটি অনুষ্ঠিত হবে ইংল্যান্ডে। একসঙ্গে দুই প্রাপ্তির উচ্ছ্বাসে ভাসছে টাইগার ভক্তরা। যদিও এ যাত্রা রুখতে জিম্বাবুইয়েকে সঙ্গী করে একটি ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে জোর চেষ্টা চালাচ্ছে পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। নতুন প্রশ্ন, ক্রিকেটের ‘সময়ের বিস্ময়’ বাংলাদেশ কি পারবে সরাসরি ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলতে? নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির সিদ্ধান্তের জন্যই সেটি আরও বড় হয়ে সামনে উঠে আসছে। বৃহস্পতিবার সংস্থাটির গ্লোবাল ডেভেলপমেন্ট প্রধান টিম এন্ডারসন জানিয়েছেন, আগামী বিশ্বকাপ যে দশ দল নিয়েই হবে, তাতে সন্দেহ নেই! যার অর্থ, ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে র‌্যাঙ্কিংয়ের সেরা আটের বাইরে থাকা শীর্ষ দলগুলোকেও বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জনের জন্য সহযোগী সদস্যদের সঙ্গে আলাদা টুর্নামেন্ট খেলতে হবে!

আইসিসি একদিকে ক্রিকেটের বিশ্বায়নের কথা বলছে, অন্যদিকে আবার বিশ্বকাপের মতো শ্রেষ্ঠ আসরে অংশগ্রহণের পরিধি কমিয়ে আনছেÑ এমন দ্বৈতনীতির জন্য গত বিশ্বকাপ থেকেই এ নিয়ে চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা। রঙিন পোশাকে একের পর এক শক্তিধর প্রতিপক্ষকে হোয়াইটওয়াশ করে বাংলাদেশকে অন্য উচ্চতায় তুলে এনেছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা-শাকিব আল হাসানরা। সর্বশেষ মোড়ল ভারতের বিপক্ষে ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ে র‌্যাঙ্কিংয়ে ৭ নম্বরে উঠে আসার পাশাপাশি ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলা অনেকটা নিশ্চিত করে ফেলে টাইগার বাহিনী। নয় থেকে বারো পর্যন্তÑ র‌্যাঙ্কিংয়ে পরের পাঁচটি দেশ যথাক্রমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, পাকিস্তান, আয়ারল্যান্ড, জিম্বাবুইয়ে ও আফগানিস্তান। আইসিসির সহযোগী দেশগুলোর মধ্যে এই মুহূর্তে আরব আমিরাত, স্কটল্যান্ড, পাপুয়ানিউগিনি, হংকং, নামিবিয়া, হল্যান্ড উল্লেখযোগ্য। ২০১৭ সালের অক্টোবর পর্যন্ত সেরা আটে নিজেদের অবস্থান ধরে রাখতে না পারলে বাংলাদেশকে এ সব দলের সঙ্গেই বিশ্বকাপের বাছাই খেলতে হবে! তবে মাঠের ক্রিকেটে মাশরাফিদের যা নৈপুণ্য সেটি ভক্তমনে বাড়তি আশা যোগায়। ওয়ানডে ফরমেটে গত কয়েক বছর নিশ্চিতভাবেই দুই সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন উইন্ডিজ ও পাকিস্তানের চেয়ে ভাল ক্রিকেট খেলছে টাইগাররা। যে ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী দুই বছরে আরও সামনে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব। সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে টেস্ট খেলুড়ে শীর্ষ দশের সঙ্গে চার সহযোগী মিলিয়ে মোট ১৪ দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। ‘বিশ্বকাপে আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা বাড়াতে হবে। নিশ্চিত করতে হবে যেন অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দলই বিশ্বকাপ জয়ের উপযোগী হয়। তাই দল কমিয়ে ১০-এ নামিয়ে আনার পরিকল্পনা। এই মুহূর্তে সহযোগী দেশগুলোর মধ্যে আফগানিস্তান ও আয়ার‌্যান্ড খুবই ভাল করছে’Ñ বলেন টিম এ্যান্ডারসন। নয় দেশ নিয়ে আয়োজিত ১৯৯২ বিশ্বকাপ এক্ষেত্রে আইসিসিকে অনুপ্রাণিত করছে বলেও মনে করেন তিনি!

প্রকাশিত : ২৭ জুন ২০১৫

২৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: