কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নাইজিরিয়ার জঙ্গী আস্তানা থেকে ২৯৩ মেয়ে ও নারী উদ্ধার

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০১৫
  • জিম্মিদের শনাক্ত করা হচ্ছে

নাইজিরিয়ার সামরিক বাহিনী মঙ্গলবার বোকো হারামের বিরুদ্ধে অভিযানে তাদের এক কুখ্যাত ঘাঁটি থেকে ২শ’ মেয়ে ও ৯৩ নারীকে উদ্ধার করেছে বলে দাবি করেছে। কিন্তু এক সেনা কর্মকর্তা বলেছেন, চিবোকের একটি স্কুল থেকে গত বছর এপ্রিলে যাদের অপরহণ করা হয় তারা উদ্ধারকৃত বালিকা ও নারীদের মধ্যে নেই। খবর গার্ডিয়ান ও বিবিসি অনলাইনের।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ক্রিস ও লুকোলাদো এক বার্তায় বলেছেন সৈন্যরা মঙ্গলবার বিকেলে সামবিসা জঙ্গলে অভিযান চালিয়ে সন্ত্রাসীদের ৩টি ক্যাম্প ধ্বংস এবং ২শ’ বালিকা ও ৯৩ নারীকে উদ্ধার করেছে। মুখপাত্র বলেন, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্য বোর্নোয় সামবিসা এলাকায় ইসলামপন্থী বোকো হারামের ঘাঁটি রয়েছে। সামরিক বাহিনী বলেছে, সামবিসা জঙ্গলে বড় ধরনের অভিযানকালে তাদের উদ্ধার করা হয় এবং সন্ত্রাসীদের ৬টি ক্যাম্প দখলের মধ্য দিয়ে তাদের এ অভিযান শেষ হয়। মুখপাত্র বলেন, দখলকৃত ক্যাম্পগুলো থেকে অনেক অস্ত্রশস্ত্রও আটক করেছে সেনাবাহিনী।

তিনি বলেন, উদ্ধারকৃত বালিকা ও নারীদের এখন শনাক্ত করতে জিজ্ঞসাবাদ করা হচ্ছে। বিবিসি বলেছে, বোকো হারাম-এর আগে যে সকল এলাকা দখল করে নিয়েছিল সেগুলো অধিকাংশের ওপরই সাম্প্রতিক মাসগুলোতে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছে নাইজিরীয় নিরাপত্তা বাহিনী। গত বছর বোর্নো অঙ্গরাজ্যেরই চিবোকের একটি স্কুল থেকে ২৭৬ বালিকাকে অপহরণের দায়িত্ব স্বীকার করে বোকো হারাম। অপহৃতদের মধ্যে ৫৭টি মেয়ে হামলার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পালাতে সক্ষম হয়। কিন্তু ২১৯টি মেয়ে আটকাবস্থায় রয়েছে।

গণঅপহরণের পর সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে নাইজিরীয় নিরাপত্তা সূত্র ও স্থানীয় বাসিন্দারা বলেছেন, অপহৃতদের সামবিসা জঙ্গলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, এ রকম আভাস পাওয়া যায়। কিন্তু প্রতিরক্ষা বিভাগের কর্মকর্তা ও বিশেজ্ঞরা একমত প্রকাশ করেছেন যে, গত ১৩ মাস ধরে সম্ভবত তাদের পৃথক করে রাখা হয়েছে। বোকো হারামের নেতা আবুবক্কর শেকাউ অপহৃত মেয়েদের বিয়ে দেবার বা দাসী হিসেবে বিক্রি করে দেয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। নাইজিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চল থেকে আরও শতশত লোকের অপহৃত হওয়ার ঘটনার জন্য দায়ী করা হয়েছে বোকো হারামকে। এদের অপহরণের বিশেষ লক্ষ্য বালিকা ও নারীরা এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মতে, এ ইসলামপন্থী জঙ্গীরা গত বছরের শুরু থেকে কমপক্ষে ২ হাজার নারী ও বালিকাকে অপহরণ করেছে। নাইজিরীয় সরকার গত অক্টোবরে বলেছে, সরকার বোকো হারামের সঙ্গে একটি অস্ত্রবিরতি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে এবং চিবোক থেকে অপহৃত মেয়েদের উদ্ধার করবে। কিন্তু বোকো হারাম এ চুক্তির কথা অস্বীকার করে। চিবোক থেকে মেয়েদের অপহরণের ঘটনা বিশ্বব্যাপী ক্ষোভের সঞ্চার করে। অনেকেই তাদের উদ্ধারের জন্য হ্যাসট্যাগ ‘আমাদের মেয়েদের ফিরিয়ে আনো’ ব্যবহার করে অনলাইন অভিযানে যুক্ত হন।

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০১৫

৩০/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: