মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

ফাইনাল নিয়ে দুই অধিনায়ক যা ভাবছেন

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ ২০১৫
ফাইনাল নিয়ে দুই অধিনায়ক যা ভাবছেন
  • ইতিহাস গড়তে চাই ॥ ম্যাককুলাম

মোঃ মামুন রশীদ ॥ এই প্রথম শিরোপার এতটা কাছাকাছি এসেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল। এর আগে ৬ বার বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলেছে দলটি কিন্তু ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয়েছে। অবশেষে সপ্তমবারে সেমি উতরে গেল দলটি। এবার চিরপ্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তাদের মাটিতেই মোকাবেলা করতে হবে ফাইনালে। প্রথমবার ফাইনাল খেলার উত্তেজনায় টগবগ করে ফুটছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটাররা। তবে মেলবোর্নে শিরোপা জিতেই ঘরে ফিরতে চান কিউই অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম। তিনি মনে করেন সে জন্য পুরো টুর্নামেন্টে দল যেমন খেলেছে সেটা ধরে রাখতে পারলেই সম্ভব হবে স্বপ্নটা পূরণ করা। কিন্তু ট্রান্স তাসমান প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলেই বিশ্বাস তার। কিউই অধিনায়ক ম্যাককুলাম শনিবার সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

গ্রুপ পর্বেই অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছে নিউজিল্যান্ড। সে ম্যাচটি ছিল অকল্যান্ডে। এবার মেলবোর্নে ৯০ হাজার স্থানীয় দর্শকদের উপস্থিতিতে খেলতে হবে। সঙ্গে পুরো অস্ট্রেলিয়াবাসীই থাকবে স্বাগতিক দলের সমর্থনে। তবু দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতার আশা করছেন ম্যাককুলাম। তিনি বলেন, ‘আমি চাই মাঠ পরিপূর্ণ থাকুক। আমরা অবশ্যই আগামীকাল (আজ) অনেক ভাল খেলব। কিন্তু সেটা আমাদের কোনকিছুই নিশ্চিত করে দেয় না। অস্ট্রেলিয়া আমাদের হারাতে পারবে না এটা কোনভাবেই বলা যাবে না। কিন্তু আমরা আমাদের সেরাটা দেব এবং নিজেদের দক্ষতা প্রদর্শন করে ভাল খেলব। পুরো টুর্নামেন্টে আমরা যেটা করেছি তা করতে পারলেই আমাদের জন্য সুখকর ফল আসবে।’ টানা আট ম্যাচ জিতেছে নিউজিল্যান্ড। এখন পর্যন্ত কোন পরাজয়ের স্বাদ দেখেনি চলতি বিশ্বকাপে। তবে ফাইনাল খেলার উত্তেজনাটাই কাল হয়ে দাঁড়াতে পারে। এ বিষয়ে ম্যাককুলাম বলেন, ‘আমরা কোনভাবেই ভীত নই, বরং আমরা দারুণ উত্তেজিত। এটা আমাদের জীবনের জন্য সেরা সময়। আমরা এটার জন্য প্রথম থেকেই স্বপ্ন দেখে আসছি। আর ফাইনালে পৌঁছতে পারা দারুণ এক অর্জন। ঘরের মাঠে আমরা দারুণ সমর্থন পেয়েছি এবং সবসময়ই পুরো বিশ্বজুড়েই অনেক সমর্থন পেয়েছি। যে ধরনের ক্রিকেট আমরা খেলেছি সেটা অনেক মানুষের হৃদয় স্পর্শ করেছে। সে কারণে আশা করছি আমরা যদি ভাল খেলতে পারি দিন শেষে হাসিমুখ নিয়েই মাঠ ছাড়তে পারব এবং পরে দারুণ এক অভিযান শেষ করার কারণে পেছনে ফিরে স্মৃতিচারণ করতে পারব প্রশান্তি নিয়ে।’ মেলবোর্নে সর্বশেষ ৫ ম্যাচের মধ্যে তিনটিতেই জয় তুলে নিয়েছে নিউজিল্যান্ড। সে কারণে ভীতির কোন কারণই নেই। চলতি আসরে ঘরের বাইরে এই প্রথম খেলতে যাচ্ছে কিউইরা। কিন্তু তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতার আশা করছেন ম্যাককুলাম। তিনি বলেন, ‘আমরা ব্যাটে-বলে আক্রমণাত্মক মেজাজের ক্রিকেট খেলেছি পুরো টুর্নামেন্টে। আমরা নিজেদের ভাবমূর্তি ও সম্মান বজায় রেখেই খেলব। দু’দেশের মধ্যে শুধু ক্রিকেট নয় যে কোন ধরনের খেলাতেই রয়েছে চরম প্রতিদ্বন্দ্বিতা। আশা করছি আগামীকালও (আজ) তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে।’ অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার ৩৬ বছর বয়সী ড্যানিয়েল ভেট্টরির শেষ বিশ্বকাপ এটি। বিশ্বকাপ শেষেই ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ইতি টানবেন। তার জন্যও শিরোপা জিততে চান ম্যাককুলাম। তিনি বলেন, ‘তিনি ক্রিকেটের চমৎকার একজন দূত। তিনি জীবনের অর্ধেকেরও বেশি ক্রিকেটের পেছনে দিয়েছেন। বিশ্বকাপ জিততে পারলে তার প্রতি যথার্থ সম্মান প্রদর্শন করা হবে।’

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ ২০১৫

২৯/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: