মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

‘চীন একজন পাপা শি’র জন্ম দিয়েছে’

প্রকাশিত : ১০ মার্চ ২০১৫

জাঁকালো মহাপ্রাচীর, নিষিদ্ধ নগরী, তিয়েনআনমেন স্কোয়ার এবং মাও সেতুংয়ের স্মৃতিসৌধের মতো চীনে অনেক দর্শনীয় স্থান আছে। তবে ইদানিং বেজিংয়ের দর্শনীয় স্থানের তালিকায় আরেকটি আকর্ষণ হলো ঃ একটি রেস্তরাঁ যেটি প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের ভক্তদের জন্য একটি তীর্থ ক্ষেত্রের রূপ নিয়েছে। গত বছর তিনি হঠাৎ করেই কিংফেং স্টিম্ড বান শপে ঢুকে নিজের মতো করে মূল্য পরিশোধ করে নিজেই তাঁর খাবারের ট্রেটি রেস্তরাঁর সস্তা ফোল্ডিং টেবিলে বয়ে নিয়ে যান।

২৯ বছর বয়সী গাড়িচালক বাই হেংলিন সাড়ে তিন ডলারের প্রেসিডেন্সিয়াল কম্বো মিল খেতে খেতে বলছিলেন আমরা আমাদের মহান নেতার পদাঙ্ক অনুসরণ করছি। যেসব দর্শনার্থী বাইরে থেকে বেজিং আসেন অথচ এখানে একবারও পরিদর্শন করেন না তারা পস্তাবেন। সকাল থেকে রাত অবধি রেস্তরাঁটিতে ভিড় করা মানুষরা ২০১২তে ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে শি’র প্রতি স্তুতির বহির্প্রকাশের মাত্র একটি মাপকাঠি। সুশাসনের ওপর শি’র চিন্তাধারাভিত্তিক একটি বই ৮টি ভাষায় অনুদিত হয়েছে। বইটির ১ কোটি ৭০ লাখ কপি বিক্রি বা বিলি করা হয়েছে। তাঁর কাকা-মামাসুলভ আকর্ষণী ক্ষমতা অনেক গান ও কবিতা লেখার অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে- যেগুলোতে ‘পাপা শি’কে একজন সদগুণসম্পন্ন স্বামী, মেহনতি কৃষকের বন্ধু ও দুর্নীতিবাজদের শত্রুরূপে তাঁর গুণকীর্তন করা হয়েছে। এক সফট-রক বন্দনায় বলা হয়েছে; ‘চীনের পুত্র-কন্যারা হাতে হাত ধরে আপনাকে আগামীর পানে অনুসরণ করে যাবে।’ কয়েক হাজার বার এটি ডাউনলোড করা হয়েছে।

মাও যে দক্ষতায় সাধারণ মানুষের আশা-আকাক্সক্ষা ও উদ্দীপনাকে তাঁর রাজনীতির অংশে পরিণত করেছিলেন তারপর থেকে আর কোন চীনা নেতা এমন সমীহ জাগাতে পারেননি। দেং শিয়াওপিং ছিলেন একজন প্রবল প্রতাপশালী নেতা, তবে তিনি মাও যুগের উন্মাদনা মেনে নেননি। তারপর থেকে রাজনৈতিক নেতাদের প্রতি প্রশস্তির গণপ্রদর্শনী নিষিদ্ধ বস্তুতে পরিণত করা হয়। শি’র অব্যবহিত পূর্বসূরি হু জিনতাও নিজেকে একজন নীরস আত্মবিস্মৃতি পরায়ণ ব্যক্তিত্বে পরিণত করেন।

চীনের অনেক মানুষ একজন শক্তিশালী, সোজাসাপটা কথাবার্তার মানুষ হিসেবে তাঁর প্রশংসা করলেও সমালোচকদের বক্তব্য শি’কে প্রচার-প্রচারণায় তুলে ধরার অতি উৎসাহী প্রতিযোগিতার মধ্যে ব্যক্তিপূজার কিছু বৈশিষ্ট্য ধরা পড়ে। মাওকে যে ধরনের অহমিকা আচ্ছন্ন করেছিল এর মধ্যে তার কিছু প্রতিফলনও অনেককে শংকিত করে তুলেছে।

দৃষ্টান্তস্বরূপ কিছু গানের কথা উল্লেখ করা যায়। শি’র প্রতি নিবেদিত সবচেয়ে জনপ্রিয় শ্রদ্ধাঞ্জলি একটি ছোট গানের পংক্তিতে উঠে এসেছে; চীন একজন পাপা শি’র জন্ম দিয়েছে। এটি সাংস্কৃতিক বিপ্লবের সময় মাও’র প্রতি প্রশস্তির অভ্রান্ত অনুসরণ; ‘চীন একজন মাও জেদং-এর জন্ম দিয়েছে’।

কমিউনিস্ট পার্টিও যে ব্যাপকভাবে শি উন্মাদনা সৃষ্টি করেছে তার উদাহরণও প্রচুর। এর মধ্যে আছে একটি মিউজিক ভিডিও যেখানে শি’কে একজন নিবেদিত, আদর্শ স্বামীরূপে দেখানো হয়েছে। সংবাদপত্রের প্রথম পৃষ্ঠায় আকর্ষণীয়ভাবে তাঁর আলোকচিত্র প্রকাশ করে তাঁকে দেশের একজন অনুগত পুত্র, বিপ্লবী প্রজন্মের একজন অভিজাত সন্তান হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। যিনি লাখ লাখ সমকক্ষ সম্ভ্রান্ত বংশের সন্তানের মতো পল্লী অঞ্চলে যৌবনের একটি অংশ অতিবাহিত করেছেন। চীনা জনগণ শি’র উৎকোচ বিরোধী অভিযানকে ব্যাপকভাবে স্বাগত জানিয়েছেন। ওই অভিযানে শীর্ষ ক্ষমতাশালী কর্মকর্তাদের পতন হয় যাদের এক সময় ধরাছোঁয়ার বাইরে বলে বিবেচনা করা হতো। চীন বলিষ্ঠ কূটনীতি ও একটি শক্তিশালী সামরিক বাহিনীর দ্বারা তার আঞ্চলিক দাবি দৃঢ়তার সঙ্গে প্রতিষ্ঠিত করবে শি’র এই সতর্কবাণীও বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। -ইন্টারন্যাশনাল নিউইয়র্ক টাইমস

প্রকাশিত : ১০ মার্চ ২০১৫

১০/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: