আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কাল রাজপথে নামার চেষ্টা করবেন না ॥ ১৪ দল

প্রকাশিত : ৪ জানুয়ারী ২০১৫
  • বিএনপিকে হুঁশিয়ারি

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আগামীকাল ৫ জানুয়ারি রাজধানীর ১৬ স্থানে সমাবেশের ঘোষণা দিয়ে বিএনপিকে রাজপথে নামার ন্যূনতম চেষ্টা না করার জন্য হুঁশিয়ার করে দিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল। ক্ষমতাসীন এ জোটের নেতারা বলেছেন, নির্বাচনের বছর পূর্তির দিন ৫ জানুয়ারি রাজধানীসহ সারাদেশে গণতন্ত্রের বিজয় উৎসব পালন করবে ১৪ দল। এদিন রাজপথ থাকবে আওয়ামী লীগসহ মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ শক্তির দখলে। স্বাধীনতাবিরোধী ও তাদের দোসরদের এদিন রাজপথে ঠাঁই হবে না।

শনিবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউর আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর ১৪ দলের বর্ধিত সভায় নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন। ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্রের বিজয় দিবসের কর্মসূচী সফল করতে এ সভার আয়োজন করা হয়। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী এবং ঢাকা মহানগর ১৪ দলের সমন্বয়ক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রমের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর জাসদের আহ্বায়ক মীর হোসেন আক্তার, সাম্যবাদী দলের নেতা হারুন চৌধুরীসহ মহানগর ১৪ দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ।

ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তির জন্য তারেক জিয়ার পক্ষে মা হিসেবে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, খালেদা জিয়ার পুত্র অনেক অন্যায় করেছে। ছেলের পক্ষ থেকে মা ক্ষমা চাইলে বাংলার জনগণ ক্ষমা করে দিতে পারে। তাহলে তারা সভা-সমাবেশও করতে পারে। অন্যথায় বাংলার মানুষ তাদের বিরুদ্ধে কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবে। খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে মায়া বলেন, আপনি হলেন জঙ্গী আর জামায়াতের আমির। এ ছাড়া আপনার কোন অস্তিত্ব নেই।

খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, ৫ জানুয়ারি স্বাধীনতাবিরোধী ও তাদের দোসরদের মাঠে নামতে দেয়া হবে না। মাঠ থাকবে আওয়ামী অর্থাৎ স্বাধীনতার পক্ষের শক্তির দখলে। বিএনপির উদ্দেশে তিনি বলেন, দয়া করে ৫ জানুয়ারি মাঠে নামার চেষ্টা করবেন না। সংঘাতের পরিস্থিতি তৈরি করবেন না। ওই দিন কোন ধরনের সংঘাত সৃষ্টি হলে এর দায় বিএনপিকে নিতে হবে। তবে কোন নাশকতা করার চেষ্টা করলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কঠোর ব্যবস্থা নেবে। সম্প্রতি সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার দেয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে কামরুল ইসলাম বলেন, ওইদিন খালেদা জিয়া যে ভাষায় কথা বলেছেন প্রকৃতপক্ষে তিনি এরকম নরম সুরে কথা বলেন না। তাঁর এ বক্তব্য একটা ‘আইওয়াশ’ ছাড়া আর কিছুই নয়।

বিশৃঙ্খলা করলে গণপ্রতিরোধ- ড. হাছান ॥ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির শক্তি শেষ হলেও ষড়যন্ত্র এখনও অব্যাহত রেখেছে। খালেদা জিয়া জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে এখন ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসতে চান। তবে ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্রের বিজয় দিবসের দিন বিশৃঙ্খলা করলে তাদের প্রতিহত করা হবে। এজন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান তিনি।

শনিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচার বীরউত্তম খাজা নিজামুদ্দিন মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি আরও বলেন, বিএনপি দেশে একটি বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায়। কিন্তু দেশের জনগণ তাদের সেই সুযোগ দেবে না। তিনি বলেন, সংবাদ সম্মেলনের আগে খালেদা জিয়ার হাঁকডাক দেখে বিএনপির নেতাকর্মীরা মনে করেছিল আজ তিনি একটি বোমা ফাটাবেন। কিন্তু তাঁর (খালেদা) বক্তব্যে হতাশা প্রকাশ পেয়েছে। খালেদা জিয়ার ভুল নেতৃত্বে বিএনপির নেতাকর্মীরা তাঁর প্রতি আস্থা হারাচ্ছেন। তিনি বলেন, আন্দোলনের শক্তি ও সামর্থ্য বিএনপির নেই। ৫ জানুয়ারি বিএনপির কোন নেতাকে রাজপথে টর্চলাইট দিয়ে খুঁজলেও পাওয়া যাবে না।

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানার সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক এ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, হাসিবুর রহমান মানিক, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাই কানু, রোকনউদ্দিন পাঠান প্রমুখ।

প্রকাশিত : ৪ জানুয়ারী ২০১৫

০৪/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: