আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দুটি মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে আইন হচ্ছে

প্রকাশিত : ৩০ ডিসেম্বর ২০১৪
  • চট্টগ্রাম ও রাজশাহী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ চট্টগ্রাম ও রাজশাহী মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে পৃথক দুটি আইন প্রণয়ন করা হচ্ছে। আইন দুটি দ্রুত মন্ত্রিসভা বৈঠকে উত্থাপনের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। এ লক্ষ্যে স্বাস্থ্য সচিবকে প্রধান করে একটি কমিটি গঠনের মাধ্যমে দ্রুত কাজ শেষ করার জন্য নির্দেশ দেন তিনি ।

রবিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে চট্টগ্রাম ও রাজশাহী মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাকল্পে পৃথম দুটি আইন প্রণয়নসংক্রান্ত এক সভায় সভাপতিত্বকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এ তথ্য জানান। এ সময় স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাঃ দীন মোহাম্মদ নুরুল হক, বিএমএ সভাপতি অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হাসান, বিএমডিসি রেজিস্ট্রার ডাঃ মোঃ জাহেদুল হক বসুনিয়া, বিএমএ মহাসচিব অধ্যাপক ডাঃ এম ইকবাল আর্সলানসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদফতরের উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জানানো হয়, আগামী ১০ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে নতুন ১১টি মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। এর মধ্যে রয়েছেÑ সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল, মানিকগঞ্জ, জামালপুর, পটুয়াখালী ও রাঙ্গামাটিতে ছয়টি সরকারী মেডিক্যাল কলেজ ও পাঁচটি সামরিক মেডিক্যাল কলেজ। এছাড়াও বৈঠকে রোগী সুরক্ষা আইন-২০১৪, স্বাস্থ্য সেবাদানকারী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান সুরক্ষা আইন-২০১৪ খসড়া নিয়ে আলোচনা হয়। মানবদেহে অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংযোজন আইন-২০১৪ এর খসড়া নিয়েও সভায় আলোচনা করা হয়। মন্ত্রী এই তিনটি আইন প্রণয়ন কাজ দ্রুত সমাপ্ত করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রাম ও রাজশাহী মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা বাস্তবায়নে মন্ত্রণালয়কে আরও গতিশীল হতে হবে। স্বাস্থ্য সেক্টরের অবকাঠামো অনেক মজবুত ও সম্প্রসারণ কার্যক্রম এগিয়ে চলেছে। দেশে গড়ে ওঠেছে ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবার মজবুত অবকাঠামো। স্বাস্থ্য খাতে সাফল্য অর্জনের মাধ্যমে দেশের জনগণের প্রতি নিজেদের অঙ্গীকার পূরণ করছে বর্তমান সরকার। আর সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা করতে নিজেদের দেয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নেও সরকার সব সময় আন্তরিক। তিনি আরও জানান, দেশের সাধারণ মানুষ আজ ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবার সুবিধা পাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন আর শুধু সেøাগান নয়, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে এর সুবিধা পৌঁছে গেছে। দেশের সকল পর্যায়ের হাসপাতালে বেডের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। স্থাপন করা হয়েছে আধুনিক যন্ত্রপাতি। নির্মাণ করা হয়েছে নতুন নতুন জেনারেল হাসপাতাল ও বিশেষায়িত হাসপাতাল।

প্রকাশিত : ৩০ ডিসেম্বর ২০১৪

৩০/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: