আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

গাজীপুরে হরতাল হয়নি, ১৪৪ ধারা প্রত্যাহার

প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৪
  • ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ২৭ ডিসেম্বর ॥ গাজীপুরের জেলা প্রশাসন শনিবার সন্ধ্যায় জারি করা ১৪৪ ধারা প্রত্যাহার করেছে। অপরদিকে পুলিশ প্রশাসনও একই সময় হতে জেলায় মিছিল সমাবেশের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞাও প্রত্যাহার করে নিয়েছে। এদিকে হরতালে গাড়ি ভাংচুর, মারধর ও ছিনতাইয়ের অভিযোগে সন্ধ্যায় জয়দেবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও গাজীপুর সিটি মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নান ও গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ফজলুল হক মিলনসহ ৩০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ১৫-২০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এদিকে গাজীপুরে খালেদা জিয়ার জনসভাস্থলে ১৪৪ ধারা জারির প্রতিবাদে ২০ দলীয় জোটের ডাকা শনিবারের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালিত হয়নি। হরতাল সমর্থকরা সকালে পৃথক ঝটিকা অভিযান চালিয়ে পুলিশের একটি হিউম্যান হলারসহ ৩-৪টি গাড়ি ভাংচুর করে। পুলিশ নাশকতা সৃষ্টি ও ভাংচুরের অভিযোগে হরতাল সমর্থক তিনজনসহ নয়জনকে গ্রেফতার করেছে। হরতালে জেলার সড়কগুলোতে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে। মিল কারখানা, অফিস-আদালত, দোকানপাট বিপণিবিতান খোলা ছিল। ট্রেন স্বাভাবিক চলাচল করেছে। তবে হরতালের সমর্থনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের নেতাদের তৎপরতা মাঠে দেখা যায়নি। অপরদিকে শনিবার সকাল থেকেই খালেদা জিয়ার সমাবেশস্থল গাজীপুর মহানগরের ভাওয়াল বদরে আলম সরকারী কলেজ মাঠ ও এর আশপাশের এলাকায় বিপুলসংখ্যক পুলিশের উপস্থিতি দেখা গেছে। দিনব্যাপী সভাস্থলের আশপাশসহ জেলার সড়কগুলোতে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের টহল দিতে দেখা গেছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্ব^াভাবিক রাখতে এদিন গাজীপুরে ৫ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন রাখা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে শ্রীপুর উপজেলার বেরাইদের চালা এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে হরতালের সমর্থনে মিছিল বের করে বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা। শ্রীপুর থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি আব্দুল মোতালেব এতে নেতৃত্ব দেন। এ সময় পুলিশ মিছিলে বাধা দিলে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়ে পড়ে। পরে পিকেটাররা ওই সড়কে দুটি হিউম্যান হলারের গ্লাস ভাংচুর করে।

জয়দেবপুর থানার ওসি খন্দকার রেজাউল করিম রেজা জানান, গাজীপুর মহানগরের বড়বাড়ী এলাকায় হরতাল সমর্থকরা ইটপাটকেল ছুড়ে সকালে পুলিশ বহনকারী একটি হিউম্যান হলার ও সাংবাদিকদের বহনকারী একটি মাইক্রোবাসের গ্লাস ভাংচুর করে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

কালিয়াকৈর থানার ওসি ওমর ফারুক জানান, শনিবার ভোরে কালিয়াকৈরের বিভিন্ন এলাকা থেকে নাশকতা সৃষ্টির পরিকল্পনার অভিযোগে ছয়জনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে, হরতালের বিপক্ষে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা খ- খ- মিছিল নিয়ে মহানগরের চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় দুপুরের দিকে সমবেত হয়ে বিভিন্ন সড়কে মিছিল করে। প্রায় একই সময় বড়বাড়ী থেকে হরতালে প্রতিবাদে স্থানীয় যুবলীগ একটি মিছিল বের করে। মিছিলটি ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে বোর্ডবাজার এলাকায় গিয়ে শেষ হয়।

১৪৪ ধারা প্রত্যাহার ॥ গাজীপুর জেলা প্রশাসক নুরুল ইসলাম এক ঘোষণায় জানান, খালেদা জিয়ার সমাবেশস্থল গাজীপুর মহানগরের ভাওয়াল বদরে আলম সরকারী কলেজ মাঠে জারি করা ১৪৪ ধারা শনিবার সন্ধ্যা ছয়টা হতে প্রত্যাহার করা হয়েছে। অপরদিকে গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ সন্ধ্যায় তার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের জানান, পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে গাজীপুর জেলায় মিছিল সমাবেশের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা শনিবার সন্ধ্যা ছয়টা হতে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

মেয়রের বিরুদ্ধে মামলা ॥ শনিবার গাজীপুরে হরতালকালে গাড়ি ভাংচুর, মারধর ও ছিনতাইয়ের অভিযোগে সন্ধ্যায় জয়দেবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও গাজীপুর সিটি মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নান ও গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ফজলুল হক মিলনসহ ৩০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ১৫-২০ জনকে আসামি করা হয়েছে। গাজীপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এমএ ফরিদ বাদী হয়ে সন্ধ্যায় জয়দেবপুর থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকালে গাজীপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি রোমান শাহ আলম ও সাধারণ সম্পাদক এমএ ফরিদসহ কয়েকজন সাংবাদিক মাইক্রোবাসযোগে ঢাকা যাচ্ছিলেন। পথে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বড়বাড়ী এলাকায় পৌঁছলে হরতাল সমর্থকরা পথরোধ করে মাইক্রোবাস ভাংচুর ও আরোহীদের মারধর করে। এ সময় হরতাল সমর্থকরা মাইক্রোবাস আরোহী সাংবাদিকদের কাছ থেকে নগদ টাকা, ক্যামেরা ও মোবাইলসহ বিভিন্ন মালামাল ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মোঃ তুলা মিয়া (২৪), মোঃ জুয়েল (২০) ও মোঃ জয়নালকে (২০) আটক করে। আটককৃতদেরও এ মামলায় আসামি করে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত. গাজীপুর মহানগরের ভাওয়াল বদরে আলম সরকারী কলেজ মাঠে একই দিনে (শনিবার) বিএনপি ও ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ ও কর্মসূচী আহ্বানকে কেন্দ্র করে শুক্রবার দুপুর হতে সমাবেশস্থলে অনির্দিষ্টকালের জন্য ১৪৪ ধারা জারি করে প্রশাসন। এ ছাড়াও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে শুক্রবার দুপুর দুইটা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সমগ্র জেলায় সকল প্রকার সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করেছে জেলা পুলিশ প্রশাসন। বিএনপির জনসভাস্থলে ১৪৪ ধারা জারির প্রতিবাদে শুক্রবার রাতে বিএনপি শনিবার গাজীপুরে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেয়।

স্টাফ রিপোর্টার নীলফামারী থেকে জানান, পুলিশী বাধার কারণে শনিবার নীলফামারীতে বিক্ষোভ মিছিল করতে পারেনি বিএনপি। কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সকালে পৌর মার্কেটের দলীয় কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিএনপি নেতাকর্মীরা। বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে সড়কে উঠামাত্র পুলিশ এতে বাধা দিলে বিএনপি নেতাকর্মীরা পালিয়ে যায়।

স্টাফ রিপোর্টার সিলেট ও যশোর থেকে জানান, পুলিশের আসা দেখেই সিলেট বিএনপির সমাবেশ প- হয়ে যায়। নগরীর কোর্টপয়েন্টে সমাবেশের আয়োজন করেছিল বিএনপি। যশোরে সহিংসতায় জড়িত থাকার অভিযোগে বিএনপির তিন নেতাকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার গভীর রাতে পুলিশ নগর বিএনপির সহসভাপতি আলী আজগর, যুগ্ম সম্পাদক সাদেক হোসেন ও নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন কমিটির নেতা আবু সাঈদকে গ্রেফতার করে।

প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৪

২৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: