কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিজেপিকে আক্রমণই আত্মরক্ষার নয়া কৌশল মমতার

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৪
  • সারদা কেলেঙ্কারি

আত্মরক্ষার সেরা অস্ত্র হিসেবে আক্রমণকেই আপাতত আঁকড়ে ধরতে চাইছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জী। আর তা করতে গিয়ে এ বারে ফের দলকে দিল্লীর পথে নামাচ্ছেন আগ্রাসী মমতা।

সারদা কেলেঙ্কারি নিয়ে সিবিআই তৃণমূলের শীর্ষ নেতাদের দিকে হাত বাড়ানোর পর থেকেই মমতা একাধিকবার কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে নিশানা করেছে। তাঁর নির্দেশে বিভিন্ন বিষয়ে সংসদের ভেতরে-বাইরে বিক্ষোভও দেখিয়েছেন তৃণমূলের সাংসদরা। সিবিআই রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী মদন মিত্রকে গ্রেফতার করার পর প্রবল চাপের মুখে বিরোধিতার সেই সুর আরও বাড়িয়েছেন মমতা। মদনকে গ্রেফতারের পরদিন তিনি নিজেই কলকাতায় বিক্ষোভে শামিল হয়েছেন। কেন্দ্র-বিরোধিতার সুর তুঙ্গে নিয়ে যেতে এ বার ফের দিল্লীতে দলকে বিক্ষোভ দেখানোর নির্দেশ দিয়েছেন। Ñআনন্দবাজার পত্রিকা।

সোমবার থেকে ফের শুরু হচ্ছে সংসদের অধিবেশন। তার ঠিক আগে সারদা কেলেঙ্কারিতে জেরবার তৃণমূলের রণকৌশল হল, সংসদের ভেতরে-বাইরে বিক্ষোভ দেখানো। দলের মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েন বলেন, ‘বিজেপি ভোটের সময় অভিযোগ করেছিল সিবিআইকে রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে। তারাই এখন রক্ষক হয়ে ভক্ষকের ভূমিকায়!’ প্রধানমন্ত্রীর বাড়ির সামনে ধর্মঘটে বসারও কথা ভাবছে তৃণমূল। এখানেই শেষ নয়। বিজেপি এবং সিবিআই বিরোধিতার ডাক দিয়ে জেলায় জেলায় কর্মীদের ‘জেল ভরো’ আন্দোলনে নামার নির্দেশও দেয়া হতে পারে বলে তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে।

মমতা কেন এমন কৌশল নিচ্ছেন? তৃণমূল মনে করছে, সারদা-কাণ্ডে যেভাবে একের পর এক নেতা-সাংসদ ধরা পড়ছেন, তাতে মমতা অন্য সমস্যায় পড়েছেন। যেভাবে কুণাল ঘোষকে সাসপেন্ড করা গিয়েছে, সেভাবে ধরা পড়া সকলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া এই মুহূর্তে মমতার পক্ষে কঠিন। কারণ সে সিবিআই তদন্তের জল শেষ পর্যন্ত কোথায় গিয়ে পৌঁছবে, কারা ভবিষ্যতে দোষী সাব্যস্ত হবেন, সবই অজানা। ইতোমধ্যেই সারদা কেলেঙ্কারিতে মমতার দিকেও দুর্নীতির আঙুল উঠতে শুরু করেছে। যার মধ্যে বফর্স কেলেঙ্কারিতে রাজীব গান্ধীর ছায়া দেখছেন তৃণমূলের অনেকে। রাজীবের পরিণতি মাথায় রেখে মরিয়া মমতা তাই আক্রমণকেই আত্মরক্ষার অস্ত্র করছেন এবং নিশানা করতে চাইছেন কেন্দ্রকে। বিজেপিবিরোধী প্রচারকে রাজ্য ছাড়িয়ে দিল্লীমুখী করার কৌশলও এর মধ্যে রয়েছে। তৃণমূল সূত্রের খবর, দলের বিক্ষোভ-কর্মসূচী চলাকালীন একদিনের জন্য হলেও দিল্লী যেতে পারেন মমতা। সেনা হাসপাতালে ভর্তি অসুস্থ রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির দেখতেই তাঁর দিল্লী-যাত্রার সম্ভাবনা। কিন্তু তার পেছনে অন্য কারণও আছে।

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৪

১৬/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: