কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বেয়ার্নের হয়ে রিবেরির ‘১০০’ গোল

প্রকাশিত : ৮ ডিসেম্বর ২০১৪
  • বুন্দেসলিগায় ঘাম ঝরানো জয় বাভারিয়ানদের, ফরাসী তারকা ফরোয়ার্ডের প্রশংসায় গার্ডিওলা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জার্মান পরাশক্তি বেয়ার্ন মিউনিখে নাম লেখানোর পর থেকেই নিজেকে অপরিহার্য করেছেন ফ্রাঙ্ক রিবেরি। ফরাসী এই ফুটবলার এখন অপ্রতিরোধ্য বেয়ার্নের অন্যতম সেরা বিদেশী ফুটবলার। দলটির কোচ পেপ গার্ডিওলার দাবি এমন। গার্ডিওলা যে অযৌক্তিক কিছু বলেননি সে প্রমাণ আরেকবার রেখেছেন ফ্রান্স জাতীয় দল থেকে অবসর নেয়া রিবেরি। শনিবার বেয়ার্নের হয়ে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ‘১০০’ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন তিনি। আর জার্মান বুন্দেসলিগায় রিবেরির করা গোলেই বেয়ার্ন মিউনিখ ১-০ গোলে পরাজিত করে বেয়ার লেভারকুসেনকে।

নিজেদের মাঠ এ্যালিয়াঞ্জ এ্যারানায় ম্যাচের ৫১ মিনিটে দারুণ ভলিতে গোলটি করেন ফরাসী উইঙ্গার। এই জয়ে ১৪ ম্যাচ শেষে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বেয়ার্নের পয়েন্ট সর্বোচ্চ ৩৬। লীগের অন্য ম্যাচে উলফসবার্গ ৩-১ গোলে হ্যানোভারকে, অগসবার্গ ২-১ গোলে এফসি কোলনকে ও শালকে জিরো ফোর ৪-০ গোলে পরাজিত করে স্টুটগার্টকে। ২০০৭ সালে স্বদেশী ক্লাব অলিম্পিক মার্শেই থেকে বেয়ার্নে যোগ দেন রিবেরি। এরপর নিজেকে দলটির গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে পরিণত করেন। ফ্রান্সের এই তারকা ফুটবলার বুন্দেসলিগায় এ পর্যন্ত ১৮৬ ম্যাচ খেলে ৬৫ গোল করেছেন। আর পরশু এক গোল করে সব আসর মিলিয়ে ‘গোলের সেঞ্চুরি’ পূরণ করেছেন। সবমিলিয়ে ২৮৮ ম্যাচে ১০০ গোল করার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন ৩১ বছর বয়সী এই তারকা ফুটবলার। স্বাভাবিকভাবেই কার্যকরী এই ফুটবলারের প্রশংসায় মেতেছেন বেয়ার্ন কোচ পেপ গার্ডিওলা। সাবেক বার্সিলোনা কোচ বলেন, রিবেরি বর্তমানে দুর্দান্ত খেলছে। প্রতিটি ম্যাচেই সে ধারাবাহিক ফুটবল খেলছে এবং দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। গার্ডিওলা আরও বলেন, এ পর্যন্ত বেয়ার্নে আসা বিদেশী ফুটবলারদের মধ্যে রিবেরি অন্যতম সেরা। রিবেরি আক্রমণভাগের পাশাপাশি রক্ষণে নেমেও খেলতে পারে। পুরো মাঠেই তার অবস্থান পরিলক্ষিত হয়। যেটি একজন বড় মাপের ফুটবলারের প্রধান বৈশিষ্ট্যের মধ্যে পড়ে।

উল্লেখ্য, মনের কোণে অভিমান রেখে ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বলেছেন রিবেরি। গত ১৩ আগস্ট ফ্রান্স জাতীয় দল থেকে তিনি অবসর নেন। রিবেরি অবসরের সিদ্ধান্ত নেয়ার পর ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি তাঁকে সিদ্ধান্ত পাল্টানোর অনুরোধ জানান। কিন্তু রিবেরির কথাতে মনে হয়েছে অভিমান করেই তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। অবসরের ক্ষণে তিনি বলেন, ‘আমি বুঝতে পারি না কেন আমার দেশের মানুষ আমাকে পছন্দ করেন না! তারা আমার চেয়ে বেশি ভালবাসেন লিওনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে।’ আচমকা অবসরের পর সিদ্ধান্ত পাল্টানোর জন্য রিবেরির উপর চাপ অব্যাহত থাকে। অবসর ভেঙ্গে ফিরে আসার জন্য তাঁকে অনুরোধ করেন ফরাসী কোচ দিদিয়ের দেশম।

শুধু তাই নয়, ফ্রান্সের সাবেক তারকা ফুটবলার ও উয়েফা সভাপতি মিশেল প্লাতিনিও বেয়ার্ন মিউনিখ তারকাকে অবসরের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে জাতীয় দলের হয়ে খেলার আহ্বান জানান। আর রিবেরি না ফিরলে তাকে শাস্তির হুমকিও দেন। কিন্তু রিবেরি সে সম্ভাবনা নাকচ করে দেন। বলেন, আমি আগেই বলেছি, জাতীয় দল থেকে অবসর নিচ্ছি। আমি আমার সিদ্ধান্ত থেকে ফিরে আসব না। এ বিষয়ে কোচ দেশমের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। অবসরের বিষয়ে আমরা ঐকমত্যে পৌঁছেছি। আমি বেয়ার্ন মিউনিখের হয়ে খেলার প্রতি মনোযোগ দিতে চাই। আমি জাতীয় দলে ফিরছি না। এর চেয়ে বেশি কিছু বলার নেই।

ঘাতক ইনজুরির কারণে একেবারে শেষ মুহূর্তে ব্রাজিল বিশ্বকাপের দল থেকে বাদ পড়েছিলেন রিবেরি। যে কারণে ক্যারিয়ারের শেষ বিশ্বকাপ খেলা হয়নি বাভারিয়ান তারকার।

প্রকাশিত : ৮ ডিসেম্বর ২০১৪

০৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: