ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২২ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১

বান্দরবানের ৬ উপজেলার সব ব্যাংকের কার্যক্রম বন্ধ

প্রকাশিত: ১৭:৩৫, ৩ এপ্রিল ২০২৪

বান্দরবানের ৬ উপজেলার সব ব্যাংকের কার্যক্রম বন্ধ

ব্যাংকে ডাকাতি করে গাড়ি নিয়ে যাচ্ছে সন্ত্রাসীরা।

বান্দরবানের রুমা ও থানচিতে গত দুদিনে ৩টি ব্যাংকে ডাকাতির ঘটনায় সদর উপজেলা বাদে ছয়টি উপজেলার সব ব্যাংকের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

বুধবার (৩ এপ্রিল) বান্দরবান সোনালী ব্যাংকের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার ওসমান গণি গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গতকাল মঙ্গলবার রাতে রুমা সোনালী ব্যাংক এবং আজ দুপুর সাড়ে ১২টায় থানচির সোনালী ও কৃষি ব্যাংকে ডাকাতির ঘটনায় নিরাপত্তার স্বার্থে রুমা, থানচি, রোয়াংছড়ি, আলীকদম, লামা ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সব ব্যাংকিং কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এদিকে, বান্দরবানের রুমা উপজেলার সোনালী ব্যাংকে লুটের ঘটনার ২৪ ঘণ্টা না পেরোতে জেলার থানচির দুই ব্যাংকে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (৩ এপ্রিল) দুপুরে থানচি বাজার এলাকায় সোনালী ব্যাংক ও কৃষি ব্যাংকের শাখায় ডাকাতির ঘটনা ঘটে। দুপুর ১টার দিকে থানচি বাজারে ঢুকে পাহাড়ের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে সোনালী ও কৃষি ব্যাংকের শাখায় হামলা চালায়। এ সময় বাজার এলাকায় ফাঁকা গুলি ছোড়ে তারা। এতে আতঙ্কে সবাই পালাতে থাকে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্ত্রাসীরা দুটি ব্যাংকে লুটপাট চালিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। ঘটনার পর থেকে জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

থানচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মামুন বলেন, সকালে সশস্ত্র একদল সন্ত্রাসী উপজেলার সোনালী ব্যাংক ও কৃষি ব্যাংক-এ পৃথকভাবে হামলা চালায়। কর্মকর্তা, কর্মচারীদের জিম্মি করে সোনালী ব্যাংক থেকে ১৫ লাখ টাকা এবং কৃষি ব্যাংক থেকে ২ লাখ ৪৫ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায় তারা।

 

এম হাসান

সম্পর্কিত বিষয়:

×