ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১

গাজীপুরে গার্মেন্টসের দু’কর্মী খুন

প্রকাশিত: ২৩:০৬, ২৩ জুন ২০১৭

গাজীপুরে গার্মেন্টসের দু’কর্মী খুন

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ॥ গাজীপুরে পৃথক ঘটনায় গার্মেন্টসের কর্মী দুই যুবক খুন হয়েছে। নিহতরা হলো শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী থানার বাঁকাকূড়া গ্রামের মৃত জবেদ আলীর ছেলে জিয়াউর রহমান (৩৬)এবং কুড়িগ্রাম জেলা সদরের খোনারপাড় গ্রামের খয়বর আলীর ছেলে মোঃ আব্দুল কাদের কাকন (২২)। জয়দেবপুর থানার এসআই আল আমিন জানান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মালেকের বাড়ি এলাকার এক বাড়িতে স্বপরিবারে ভাড়া থাকে জিয়াউর রহমান (৩৬)। সে স্থানীয় নাওজোর এলাকার শ্যারন পোশাক কারখানার কর্মী। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে নাওজোর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির অদূরে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের সালনা এলাকার ফরেষ্ট চেক পোষ্টের পাশে একটি নালায় তার লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসি। নিহতের গলা কাটা ও ডান পাঁজরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শহীদ তাজ উদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়। এসময় লাশের সঙ্গে পাওয়া পরিচয়পত্রের সূত্র ধরে নিহতের পরিচয় পাওয়া যায়। এদিকে একই থানার এসআই নূরুল ইসলাম ও নিহতের ভাই মোঃ আব্দুল কাইয়ুম জানান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কুনিয়াপাছর এলাকার জনৈক জাহাঙ্গীর আলমের বাড়িতে ভাই কাইয়ুমসহ ভাড়া থাকে আব্দুল কাদের কাকন। কাকন স্থানীয় মুনলাইট পোশাক কারখানায় কাটিং হেলপার হিসেবে কাজ করত। বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বড়বাড়ি কুনিয়াপাছর এলাকার মির্জাবাড়ি সড়কের পাশে কাকনের রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শহীদ তাজ উদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়। নিহতের বাম বুকসহ শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। জয়দেবপুর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, উভয় ঘটনার আলামত দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পূর্ব শত্রুতার জেরে পরিকল্পিতভাবে দুর্বৃত্তরা পৃথক এ হত্যাকান্ড দু’টি ঘটিয়েছে। তবে এঘটনায় এখনো কাউকে আটক করা সম্ভব হয় নি।
×