আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজধানীতে দুই বাসের মাঝে চাপা পড়ে হেলপার নিহত

প্রকাশিত : ১ জুলাই ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর খিলগাঁওয়ে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। মহাখালীতে দুই বাসের প্রতিযোগিতায় মাঝখানে চাপা পড়ে এক বাস হেলপার নিহত হয়েছে। মিরপুরে মশার কয়েল থেকে অগ্নিকা-ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। পুরান ঢাকায় কাপ্তানবাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক ইলেকট্রিশিয়ানের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বহির্বিভাগ থেকে সন্দেহভাজন তিন নারী পকেটমারকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে খিলগাঁও থানাধীন ইমামবাগ এলাকায় জুলেখা (২৫) নামে এক গৃহবধূর আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ওই বাড়ির থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বিকেলে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায়। খিলগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, জুলেখার স্বামী শ্যামল একজন নির্মাণ শ্রমিক। নিহতের স্বামী শ্যামলের বরাত দিয়ে এসআই সাইফুল ইসলাম জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে জুলেখা গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

সড়ক দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু ॥ মঙ্গলবার দুপুরে মহাখালী সেতু ভবনের সামনে পাল্লাপাল্লি করে দুটি বাস যাওয়ার সময় একটি বাসের চাপায় অপর বাসের হেলপার হুমায়ুন আহম্মদের (২৮) মৃত্যু হয়েছে। নিহতের বাবার নাম সাঈদ মিয়া। গ্রামের বাড়ি শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী উপজেলার দেবরাই গ্রামে। তিনি খিলক্ষেত নিকুঞ্জ-২ এ থাকতেন। তিনি গাজীপুর থেকে আজিমপুরগামী ভিআইপি-২৭ বাসের হেলপার ছিলেন। মহাখালীতে ডিউটিরত ট্রাফিক পুলিশ নুরুল হক জানান, দুপুরে পাল্লাপাল্লি করে দুটি বাস যাওয়ার সময় আলম এশিয়া পরিবহনের একটি বাসের চাপায় অপর বাসের হেলপার হুমায়ুন গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে দুপুর ১টার দিকে ঢামেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অগ্নিদগ্ধ নারীর মৃত্যু ॥ সোমবার মধ্যরাতে মিরপুর রাইনখোলা এলাকার মশার কয়েল থেকে অগ্নিকা-ে সাহিদা বেগম নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। নিহতের স্বামী তাজুল ইসলাম ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় একটা বেসরকারী চাকরি করেন। তাদের গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর সোনাপুর গ্রামে। নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, সোমবার রাত ২টার দিকে মশার কয়েল থেকে বিছানাসহ আসবাবপত্রে আগুন লেগে যায়। আগুনে লেলিহান শিখা পুড়ে ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। পরে স্থানীয়রা আগুন নিভিয়ে সাহিদাকে মারাত্মক দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। বার্ন ইউনিটে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, সাহিদার শ্বাসনালীসহ শরীরের ৯০ শতাংশই পুড়ে গিয়েছিল।

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইলেকট্রিশিয়ানের মৃত্যু ॥ মঙ্গলবার বিকেলে পুরান ঢাকায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ফারুখ হোসেন (৪০) নামে ইলেকট্রিশিয়ানের মৃত্যু হয়েছে। নিহত ফারুখ যাত্রাবাড়িতে থাকতেন। তিনি পুরান ঢাকার কাপ্তানবাজার খন্দকার টাওয়ারের গ্রাউন্ড ফ্লোরে কাজ করছিলেন। খন্দকার টাওয়ারের ইলেকট্রিক্যাল সুপার ভাইজার ইকবাল হোসেন জানান, বিকেল ৪টার দিকে ফারুখ হোসেন মই দিয়ে দাঁড়িয়ে বিদ্যুতের কাজ করার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নিচে পড়ে যান। পরে ফারুখকে উদ্ধার করে বিকেল ৫টার দিকে ঢামেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিন নারী পকেটমার আটক ॥ মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বহির্বিভাগ থেকে সন্দেহভাজন তিন নারী পকেটমারকে আটক করছে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের দায়িত্বরত আনসার সদস্যরা। আটককৃতরা হচ্ছে দিলারা আক্তার, আউলিয়া বেগম ও তাসলিমা বেগম। আটক নারীদের দাবি তারা চোর নয়, তারা ঢাকা মেডিকেলে ডাক্তার দেখাতে এসেছিলেন। ঢাকা মেডিক্যালের বহির্বিভাগের ওয়ার্ডমাস্টার সামসুল আলম জানান, দীর্ঘদিন ধরে চক্রটি সকাল বেলায় একটি টিকেট কেটে রোগী দেখানোর নাম করে রোগীর স্বজনদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন, টাকা পয়সা চুরি করে নিয়ে যাচ্ছিল। কয়েকদিন ধরে তাদের ওপর নজর রাখে আনসার সদস্যরা। এরই সত্যতা প্রমাণ পেয়ে মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে আনসার সদস্যরা তাদের আটক করে শাহবাগ থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

প্রকাশিত : ১ জুলাই ২০১৫

০১/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: