কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

১১ দফা দাবিতে পাটকল শ্রমিক কর্মচারীদের বিজেএমসি ভবন ঘেরাও

প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৫

পাটকল শ্রমিক কর্মচারীরা ১১ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য রবিবার মতিঝিলের বিজেএমসি আদমজী কোর্ট ভবন ঘেরাও কর্মসূচী পালন করেছে। দাবি পূরণ করা না হলে আরও ঘেরাও, বিক্ষোভ ও অবস্থান ধর্মঘট পালন করা হবে বলে শ্রমিক কর্মচারী নেতৃবৃন্দ হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন।

পাটকল শ্রমিক কর্মচারী সিবিএ নন সিবিএ সমম্বয় পরিষদ গত ৩১ মে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তাদের ১১ দফা দাবি তুলে ধরেছিল। তারা জানান, বিভিন্ন মিলে ইতোমধ্যেই তাদের কর্মসূচী সফলভাবে পালিত হয়েছে। এ বিষয়ে বিজেএমসির দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য রবিবার মতিঝিলের বিজেএমসি আদমজী কোর্টস্থ ভবন ঘেরাও কর্মসূচী পালন করে। জাতীয় শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এসএম কামরুজ্জামান চুন্নুসহ বিভিন্ন জেলা থেকে আসা শ্রমিক কর্মচারী নেতৃবৃন্দ এতে অংশ নেন। কর্মসূচীতে সভাপতিত্ব করেন সমম্বয় পরিষদের আহ্বায়ক শ্রমিক নেতা মোহাম্মদ আলী। বক্তব্য রাখেনÑ জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, পাটকল শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম কামরুজ্জামান চুন্নুসহ ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, নরসিংদী ও ঘোড়াশালের রাষ্ট্রায়াত্ত পাটকলগুলোর সিবিএ নন সিবিএ নেতৃবৃন্দ। তারা হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেছেন, দাবি মানা না হলে আগামী ২৩ জুন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে শ্রমিক কর্মচারীরা যার যার মিলের সম্মুখে ঘেরাও, বিক্ষোভ ও অবস্থান ধর্মঘট পালন করবে। ২৪ জুন মিলের শিল্পাঞ্চলের রাজপথে বিক্ষোভ মিছিল এবং ২৯ জুন সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে বৃহত্তর শ্রমিক সমাবেশের মাধ্যমে দাবি আদায়ের লক্ষে বৃহত্তর ও কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে। -বিজ্ঞপ্তি

হবিগঞ্জে রাজাকার লিয়াকতের মামলার বাদীর বাড়িতে আগুন ॥ দগ্ধ মা-মেয়ে

নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ, ১৭ জুন ॥ হবিগঞ্জের পল্লী লাখাইয়ের কৃষ্ণপুরের আলোচিত রাজাকার পলাতক আওয়ামী লীগ নেতা লিয়াকত আলীর মামলার বাদী ও তার নিকটজনদের আগুনে পুড়িয়ে মারার এক হীন অপচেষ্টা চালিয়েছে পোষ্য প্রভাবশালী সন্ত্রাসীরা। তবে মামলার বাদী হরিদাস রায় বাড়িতে না থাকলেও এ ঘটনায় মারাত্মক অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন তার নিকটজন কেয়ারটেকারের বৃদ্ধা মা সুনতী রানী রায় (৭০) ও তার মেয়ে আদুরী (১৭)। গুরুতর আহত অবস্থায় দু’জনকেই সংশ্লিষ্ট উপজেলা বামৈ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ডাক্তাররা জানিয়েছেন, তাদের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। প্রয়োজনে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল বা ঢাকা বার্ন ইউনিটে পাঠানো হতে পারে। এদিকে এ ঘটনায় রাজাকার লিয়াকতের একান্তজন হিসেবে পরিচিত প্রভাবশালী প্রভাত রায়ের স্ত্রী উমা রানী রায়কে (৪৭) আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ এবং ওই মামলার অন্যতম সাক্ষী নৃপেন রায় ও কৃষ্ণপুর গ্রামবাসীর অনেকেই জনকণ্ঠকে জানান, রাজাকার লিয়াকতের পক্ষাবলম্বনকারী প্রভাবশালী সন্ত্রাসী চক্রের ৮-১০ জন লোক মঙ্গলবার রাত প্রায় দেড়টা থেকে দুইটার মধ্যে সংশ্লিষ্ট মামলার বাদী হরিদাসের একটি কাঁচা বসতগৃহে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।

এ সময় হরিদাসের নিকটাত্মীয় আদুরী ও তার মা ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধা সুনতী রানী রায় ঘুমে ছিলেন। আগুনের আঁচ বুঝতে পেরে তারা জেগে উঠেন। ততক্ষণে মশারি পুড়ে তাদের শরীরের বিভিন্ন অংশে দগ্ধ হয়। তারা চিৎকার শুরু করলে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে পানি দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়।

প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৫

১৮/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: