কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

পুলিশ মানুষের জন্য নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করবে- প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫, ০৫:৩৮ পি. এম.

অনলাইন রিপোর্টার ॥ বিভিন্ন ঘটনায় পুলিশের ভূমিকার জন্য প্রশংসা করে ভবিষ্যতেও এ বাহিনী দেশের মানুষের জন্য ‘নিবেদিতপ্রাণ’ হয়ে কাজ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার গুলশানে পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্ট্রের বহুতল বাণিজ্যিক ভবন ‘পুলিশ প্লাজা কনকর্ড’-এর উদ্বোধন করে তিনি এ আশা প্রকাশ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, “আপনাদের জন্য যেটা করি, মনে করবেন, এই দেশের মানুষের কল্যাণের কথা চিন্তা করেই করি। কাজেই আপনাদের কাছে আশা করব, সবসময় মানুষের কল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করবেন।”

মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা দেওয়া, তাদের মধ্যে স্বস্তি ও আস্থার পরিবেশ বজায় রাখা যে পুলিশের দায়িত্ব, তা মনে করিয়ে দিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, “মানুষ যদি কোনোরকম কষ্ট পায়, তাদের ওপর কোনোরকম দুর্যোগ নেমে আসে, সাথে সাথে আপনাদের সেবা পাবে, এটাই মানুষ আশা করে। কাজেই মানুষের সেই আকাঙ্ক্ষা আপনারা পূরণ করবেন। সেটাই আমরা সবসময় চাই।”

গত জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সারা দেশে বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলনে নাশকতা দমনের জন্য তিনি পুলিশ সদস্যদের ধন্যবাদ জানান এবং একাত্তরে পুলিশ সদস্যদের অবদানের কথা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন।

জনসংখ্যার তুলনায় পুলিশের সংখ্যা কম হওয়ায় তাদের ‘খাটুনি’ বেশি হয় মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, “এই পুলিশ বাহিনী এমন একটি বাহিনী, যাদের কাজের কর্মঘণ্টা নেই, বিশ্রামও নেই। মানুষের প্রয়োজনে যখনই তাদের ডাক দেওয়া হয়, সবসময় তারা সেখানে হাজির হয়।”

আওয়ামী লীগ সরকারের সময় পুলিশের জন্য অর্থ বরাদ্দ বাড়ানোসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা সৃষ্টির চিত্রও অনুষ্ঠানে তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “আপনাদের ভালোমন্দ দেখা আমাদের দায়িত্ব। সেটা আমরা করব। এখানে একটা কথাই বলব, অনেক কিছু আপনাদের চাইতেও হয়নি, বা চাওয়ার চিন্তাও করতে হয়নি। বরং আমরা আমাদের চিন্তা থেকেই আপনাদের জন্য অনেক কিছু করে দিয়েছি।”

প্রধানমন্ত্রী দেশের বিভিন্ন স্থানে জরাজীর্ণ থানাগুলোর উন্নয়নের জন্য সেগুলোকে একটি প্রকল্পের আওতায় আনার পরামর্শ দেন এবং পুলিশের যানবাহন সমস্যার সমাধানের বিষয়ে সরকারের দৃষ্টি রয়েছে বলে জানান।

শুধু পুলিশের জন্য নয়, দেশের প্রতিটি ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য আওয়ামী লীগ সরকার ‘ব্যাপকভাবে’ কাজ করে যাচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী গত ছয় বছর ধরে ৬ শতাংশের বেশি অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, মূল্যস্ফীতি কমিয়ে আনা এবং তথ্য-প্রযুক্তি ও শিক্ষাসহ বিভিন্ন খাতের উন্নয়নের চিত্র অনুষ্ঠানে তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, “কারও কাছে হাত পেতে নয়। আমরা নিজেদের মর্যাদা নিয়ে বাঁচব।”

এ লক্ষ্যে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করারও আহ্বান জানান শেখ হাসিনা।

সকাল সাড়ে ১০টায় পুলিশ প্লাজা কনকর্ডের সামনে গুলশান পার্কে এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হওয়ার কথা থাকলেও প্রবল বৃষ্টিতে পানি জমে যাওয়ায় অনুষ্ঠানস্থল পরিবর্তন করা হয়।

নির্ধারিত সময়ের প্রায় দুই ঘণ্টা পর পুলিশ প্লাজা কনকর্ডের প্রথম তলায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয়।

শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক ও পুলিশ মহাপরিদর্শক শহীদুল হকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫, ০৫:৩৮ পি. এম.

১১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: