কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বঙ্গবন্ধু গণতন্ত্রের প্রতিমূর্তি: মোদী

প্রকাশিত : ৬ জুন ২০১৫, ০৩:২৮ পি. এম.

অনলাইন ডেস্ক ॥ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান গণতন্ত্রের প্রতিমূর্তি বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

শনিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধুর বাড়ি পরিদর্শনের পর নরেন্দ্র মোদী এক টুইট বার্তায় এ কথা লিখেছেন। টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান, গণতন্ত্রের প্রতিমূর্তি, এক বিশাল ব্যক্তিত্ব এবং ভারতের এক মহান বন্ধুকে শ্রদ্ধা।”

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিবিজড়িত ‘বঙ্গবন্ধু ভবনে’ ২৭ মিনিট ছিলেন নরেন্দ্র মোদী; এ সময় তিনি বিভিন্ন কক্ষ ঘুরে দেখেন ঐতিহাসিক আলোকচিত্রগুলো।

বঙ্গবন্ধুর বাড়ি পরিদর্শনে গিয়ে বঙ্গবন্ধুর বাড়ির বেলকনিতেও কিছু সময় কাটান মোদী। তাকে তখন সঙ্গ দেন বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক।

সকালে ঢাকায় নামার পর বিমান বন্দরের আনুষ্ঠানিকতা সেরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী সরাসরি চলে যান সাভাবে জাতীয় স্মৃতিসৌধে। সেখানে শহীদ বেদীতে ফুল দেয়ার পর একটি গাছের চারাও রোপণ করেন তিনি। সাভার থেকে সড়ক পথে দুপুর ১২টা ৫ মিনিটে ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধু জাদুঘরে পৌঁছান নরেন্দ্র মোদী। তাকে স্বাগত জানান বঙ্গবন্ধু স্মৃতি ট্রাস্টের সদস্য সচিব ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাদওয়ান মুজিব।

মোদী প্রথমে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এরপর তিনি যান সম্প্রসারিত ভবনে। সেখানে তিনি বঙ্গবন্ধুর পারিবারিক ছবি, ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীসহ বিশ্ব নেতাদের শেখ মুজিবের ছবি দেখেন। এরপর মোদী মূল ভবনে বঙ্গবন্ধুর শয়নকক্ষে যান, যেখানে পঁচাত্তরের ১৫ অগাস্টের গুলির দাগ এখনও রয়েছে।

বিভিন্ন কক্ষ ঘুরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী যান ভবনের দোতলার বেলকনিতে। শেখ রেহানার ছেলে রাদওয়ান মুজিব ও তার স্ত্রী পেপ্পি সিদ্দিক ছিলেন এসময় মোদীর সঙ্গে। বেলকনিতে দাঁড়িয়ে কিছুক্ষণ রাদওয়ান মুজিবের সঙ্গে কথা বলেন মোদী।

দুপুর ১২টা ৩২ মিনিটে মোদী বঙ্গবন্ধু ভবন থেকে বেরিয়ে যান। তিনি সরাসরি যান সোনারগাঁও হোটেলে। দুদিনের এই সফরে এই হোটেলেই থাকবেন তিনি।

প্রকাশিত : ৬ জুন ২০১৫, ০৩:২৮ পি. এম.

০৬/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: