কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রোহিঙ্গাদের নাগরিক বিবেচনা করা দরকার মিয়ানমারের ॥ ওয়াশিংটন

প্রকাশিত : ৪ জুন ২০১৫

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার অভিবাসী সঙ্কটের মূল সমস্যা সমাধানে মিয়ানমার সরকারের সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গাদের নিজেদের নাগরিক হিসেবে বিবেচনা করা দরকার বলে মন্তব্য করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান রিচার্ড। বুধবার ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের বার্মার (মিয়ানমার) নাগরিক হিসেবে বিবেচনা করা দরকার। এটি দেখানোর জন্য তাদের কাগজপত্রও দরকার।

তিনি জানান, বুধবারের মধ্যেই সাগরে ভাসমান ৭০০ অভিবাসীকে মিয়ানমার পাড়ে নামিয়ে আনবে বলে প্রত্যাশা করছেন তিনি। শুক্রবার অভিবাসী এই নৌকাটিকে খুঁজে পাওয়ার পর থেকে মিয়ানমারের নৌবাহিনী এটিকে তীরে না নিয়ে সাগরেই ভাসিয়ে রেখেছে।

সোমবার হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রিত এশীয় তরুণদের সঙ্গে কথা বলার সময় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও মিয়ানমারের রোহিঙ্গা বৈষম্য বন্ধ করা দরকার বলে মন্তব্য করেছেন। মানব পাচারের শিকার হয়ে সাগরে ভাসমান রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসন নিশ্চিত করতে যুক্তরাষ্ট্র কাজ করছে বলে জানিয়েছেন তিনি। সাগরে ভাসমান এসব উদ্বাস্তুদের মধ্যে কয়েক হাজারকে ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়ায় আশ্রয় দেয়ার সুপারিশ করেছেন এবং এদের কিছু অংশকে যুক্তরাষ্ট্রও আশ্রয় দেবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

ওবামা বলেছেন, আমি মনে করি, দেখতে কেমন ও কী বিশ্বাস করে, এসব কারণে মানুষের ওপর করা বৈষম্যের অবসান ঘটানো (মিয়ানমারের গণতান্ত্রিক রূপান্তরের জন্য) অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। রোহিঙ্গদের সঙ্গে এমন বৈষম্য করা হচ্ছে, যা তাদের পালিয়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ। সূত্র : ওয়েবসাইট

প্রকাশিত : ৪ জুন ২০১৫

০৪/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: