কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঘরে বাইরে নারী

প্রকাশিত : ১ জুন ২০১৫
  • রেজাউল করিম খোকন

আমাদের চারপাশে যৌন হয়রানির ঘটনা আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে। ঘরে বাইরে সবখানে যৌন হয়রানির ঘটনাগুলো সবাইকে ভাবিয়ে তুলেছে। অফিসে, স্কুল-কলেজে, বিশ্ববিদ্যালয়ে, রাস্তায়, যানবাহনে ক্রমাগত যৌন হয়রানি, ধর্ষণের ঘটনাগুলো নারীদের অনিরাপদ করে তুলছে। দারুণ অনিশ্চয়তা তাদের গ্রাস করছে। স্কুলে যৌন নিপীড়নের ঘটনা ঘটছে, অফিসে সহকর্মী কিংবা বসের যৌন নিপীড়নের শিকার হতে হচ্ছে কর্মজীবী নারীকে। যানবাহনে সহযাত্রী, চালক, সহকারীর বিকৃত লালসার শিকার হতে হচ্ছে কর্মজীবী নারী যাত্রীকে, রাস্তা কিংবা বাড়ি থেকে জোরপূর্বক অপহরণ করে তুলে নিয়ে দলবদ্ধভাবে উপর্যুপরি ধর্ষণ করা হচ্ছে বিভিন্ন বয়সী নারীকে। প্রাত্যহিক জীবনযাপনে যৌন নিপীড়নের শিকার হলেও অনেক নারী লোকলজ্জার কারণে তা প্রকাশ না করে লুকিয়ে রাখেন। কেউ জানতে পারে না এই জঘন্য অপরাধের কথা। এভাবেই যৌন নিপীড়নকারী বিকৃত রুচির মানুষগুলো প্রশ্রয় পেয়ে আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে, পরবর্তীতে এভাবেই তাদের লালসার শিকার হয় আরও অনেক নারী। যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়ার আগে এ ব্যাপারে সতর্ক হতে হবে নারীকে। ঘরে বাইরে সবখানে ভদ্র মানুষের মুখোশের আড়ালে আপনার আশপাশেই রয়েছে বিকৃত রুচির মানুষগুলো। তেমন অপ্রত্যাশিত, অস্বস্তিকর, অসম্মানজনক পরিস্থিতি এড়াতে কিছু প্রয়োজনীয় টিপস এখানে তুলে ধরা হলো।

্যকর্মক্ষেত্রে পুরুষ সহকর্র্মীদের কাছ থেকে একটা নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখুন। খুব বেশি ঘনিষ্ঠ হতে দেয়া উচিত নয়। অবশ্যই তাদের সঙ্গে আপনার সহজ সম্পর্ক থাকবে সহকর্মী হিসেবে কিন্তু এটার একটা সীমারেখা থাকতে হবে। অতি ঘনিষ্ঠতার সুযোগ নিয়ে যাতে কেউ তেমন অঘটন ঘটাতে না পারে সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। একইভাবে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে সহপাঠী ছেলেদের সঙ্গে বন্ধুত্ব ও সহজ সম্পর্ক গড়ে তোলার সময়েও সচেতন থাকা উচিত মেয়েদের।

্যবাড়ির বাইরে কর্মক্ষেত্রে কিংবা কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার সময় শালীন সুন্দর ভদ্র সাজসজ্জা নিয়ে যাওয়া উচিত। আপনার সাজপোশাক যাতে কাউকে প্রলুব্ধ উৎসাহী দুঃসাহসী হতে উদ্দীপ্ত না করে সে ব্যাপারে খেয়াল রাখতে হবে।

্যঅফিসে উর্ধতন বস কিংবা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক যদি তার আচরণ এবং কথাবার্তায় অশ্লীল ইঙ্গিত দেয় কিংবা বাজে প্রস্তাব দেয় সঙ্গে সঙ্গে তার প্রতিবাদ করুন। এ ক্ষেত্রে ব্যাপারটি চেপে রাখলে তাদের সাহস আরও বেড়ে যেতে পারে। আপনার দুর্বলতা, অসহায়ত্ব কিংবা নানা সীমাবদ্ধতার সুযোগ নিয়ে তেমন কেউ যদি বদমতলব হাসিল করতে চায় সেটা অন্যদের কাছে প্রকাশ করুন। তাদের আসল চেহারা প্রকাশ করে দিন যাতে পরবর্তীতে এমন পাশবিক ইচ্ছা পূরণে দুঃসাহসী হতে না পারে।

্য যানবাহনে চলাচলের সময় সাবধান থাকুন। বাসে চলাচলের সময় অচেনা কারও সঙ্গে তেমন ঘনিষ্ঠ হবেন না। সহযাত্রী নারী হলেও যদি সে অপরিচিত হয় তার সঙ্গে বেশি কথা না বলা ভাল। অপরিচিত সহযাত্রীর কাছ থেকে কিছু খাবেন না।

্য অপরিচিত কারও গাড়িতে লিফট নেবেন না। একাকী কোথাও যাওয়ার সময় বুঝেশুনে পথ চলুন। নীরব রাস্তা, অপরিচিত এলাকা পরিহার করুন।

্যনিজের অসহায়ত্ব, দুর্বলতার কথা খুব কাছের মানুষ ছাড়া সবার কাছে প্রকাশ করা উচিত নয়। যদি আপনার অসহায়ত্ব এবং দুর্বলতার কথা সবাই জেনে যায় তাহলে সেই অসহায়ত্ব এবং দুর্বলতার সুযোগ নিতে কেউ কেউ তৎপর হতে পারে। তারা নানাভাবে আপনাকে ফাঁদে ফেলে অশালীন আপত্তিকর প্রস্তাব দিতে সাহসী হতে পারে।

* সহকর্মী, সহপাঠীর সঙ্গে কথা বলার সময়, আচরণে ব্যক্তিত্ব বজায় রাখুন। আপনার উজ্জ্বল মার্জিত রুচিশীল ইমেজ আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্ব আপনার জন্য সুরক্ষা দিতে পারে। নিজেকে সেভাবে উপস্থাপন করুন।

্য নিজের ওপর আস্থা রাখুন শতভাগ। সাহসের সঙ্গে যে কোন ধরনের পরিস্থিতির মোকাবিলা করুন। আত্মবিশ্বাস আপনার জন্য বড় অস্ত্র হয়ে উঠতে পারে। আত্মবিশ্বাস আপনার সাহস এবং প্রত্যয়ী মনোভাবকে আরও জোরদার করতে পারে।

্যযদি দুর্ভাগ্যক্রমে আপনি তেমন অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতির শিকার হন তাহলে নার্ভাস না হয়ে তাৎক্ষণিকভাবে উপস্থিত বুদ্ধি খাটিয়ে প্রতিপক্ষকে ঘায়ের করার চেষ্টা করুন। নিজেকে অবলা-অসহায় মনে না করে প্রতিপক্ষকে মোকাবিলা করতে ঠা-া মাথায় দ্রুত কিছু একটা করুন।

্য রাত গভীর হলে পথেঘাটে রাস্তায় দুর্বৃত্তরা বেপরোয়া হয়ে ওঠে। যদি কোন প্রয়োজনে রাতে বাড়ির বাইরে যেতে হয় তাহলে নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে তারপর বেরোন। এক্ষেত্রে পুরুষ সঙ্গী আপনার পাশে বড় সহায় হয়ে উঠতে পারে। স্বামী, ভাই কিংবা সন্তান কাছের কাউকে সঙ্গে নিয়ে বাইরে বেরোন রাতে। এ ক্ষেত্রে নিরাপদ যানবাহন ব্যবহার করুন।

্য ছোটখাটো অভদ্রতা, অসৌজন্যতা করতে করতে একসময়ে বড় ধরনের অভদ্রতা, অশ্লীল আচরণে দুঃসাহসী হয় অনেকেই, অতএব শুরু থেকেই তেমন কারও অন্যায় আচরণ প্রতিরোধ করুন, ভদ্রভাষায় প্রতিবাদ করুন, যাতে ভবিষ্যতে তেমন আচরণ করতে প্রশ্রয় না পায়, সাহসী না হয়ে উঠতে পারে।

ছবি: নাসির শুভ

মডেল : আইরিন

প্রকাশিত : ১ জুন ২০১৫

০১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: