কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অনেকদিন পর শারাপোভা

প্রকাশিত : ২০ মে ২০১৫
অনেকদিন পর শারাপোভা
  • টেনিসের রানী
  • মাহমুদা সুবর্ণা

গত মৌসুমে ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা জিতেছিলেন মারিয়া শারাপোভা। এর পরের সময়টা মোটেই ভাল কাটছিল না তার। চোট-আর ফর্মহীনতার সঙ্গে নিয়মিতই লড়াই করতে হয়েছে তাকে। তারপরও কখনই নুইয়ে পড়েননি রাশিয়ান এই টেনিস তারকা। দুই সপ্তাহ আগে রোম মাস্টার্সেও নিস্প্রভ ছিলেন ২৮ বছর এই টেনিস খেলোয়াড়। কিন্তু ইতালিয়ান ওপেনেই স্বরূপে ফিরেন শারাপোভা। রবিবার শিরোপার লড়াইয়ে স্পেনের দশম বাছাই কার্লা সুয়ারেজ নাভারোকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। ইতালিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতলেন মারিয়া শারাপোভা। রবিবার ফাইনালে কার্লা সুয়ারেজ নাভারোকে হারিয়ে শিরোপা পুনরুদ্ধার করেন তিনি। টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান এই তারকা এ দিন ৪-৬, ৭-৫ এবং ৬-১ গেমে কার্লা সুয়ারেজ নাভারোকে হারিয়ে তৃতীয়বারের মতো ইতালিয়ান ওপেনের শিরোপা জয়ের স্বাদ পান। টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে রোমানিয়ার সিমোনা হ্যালেপকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিলেন নাভারো। কিন্তু শেষ পর্যন্ত শারাপোভার কাছে হেরেই শিরোপার স্বপ্নভঙ্গ হয় স্প্যানিশ এই টেনিস তারকা সুয়ারেজের।

সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে পাঁচটি গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন মারিয়া শারাপোভা। ২০০৪ সালে উইম্বল্ডন জয়ের মাধ্যমে ক্যারিয়ারের প্রথম মেজর শিরোপার ছুয়া পান তিনি। সর্বশেষ গত মৌসুমে ফ্রেঞ্চ ওপেনে পঞ্চম গ্র্যান্ডসøাম জয়ের রেকর্ড গড়েন ২৮ বছর বয়সী এই রুশ সুন্দরী। আর ক্যারিয়ারে মোট ৩৫টি ডব্লিউটিএ শিরোপা নিজের শোকেসে তুলতে সক্ষম হন শারাপোভা। তবে এই সংখ্যাটাকে আরও বাড়াতে পারতেন মাশা। সেইপথে বেশিরভাগ সময়ই বাধা হয়ে দাঁড়ান আমেরিকান টেনিসের জীবন্ত কিংবদন্তি। এবার ইতালিয়ান ওপেনেও তার শিরোপা জয়ের পথে বড় বাধা ছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। কিন্তু ইনজুরির কারণে ইতালিয়ান ওপেন থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নেন টেনিসের র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ তারকা সেরেনা উইলিয়ামস। টুর্নামেন্টে ৩৩ বছর বয়সী সেরেনার স্বদেশী ক্রিস্টিয়ান ম্যাকহেলের বিপক্ষে তৃতীয় রাউন্ডে কোর্টে নামার কথা ছিল। কিন্তু, কনুইয়ের ইনজুরিটা জেঁকে বসায় শেষ পর্যন্ত আসর থেকে সরেই দাঁড়াতে হয়। সেই সুযোগটা বেশ ভালভাবেই কাজে লাগান রুশ সুন্দরী সেরেনা উইলিয়ামস। দীর্ঘদিন ধরেই নিজেকে হারিয়ে খুঁজছিলেন শারাপোভা। আর ইতালিয়ান ওপেন জিতে আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছেন তিনি। এ বিষয়ে মাশা বলেন, ‘ইতালিয়ান ওপেনে শিরোপা জেতার অনুভূতিটা অন্যরকম। এটা আমাকে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাস দেবে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে শারীরিকভাবে অনেক লড়াই করতে হয়েছে আমাকে। তাই এই টুর্নামেন্টের শিরোপা জিততে মানসিক এবং শারীরিকভাবে লড়াই করতে হয়েছে।’

আগামী রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে মৌসুমের দ্বিতীয় গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট ফ্রেঞ্চ ওপেন। মহিলা এককে ফ্রেঞ্চ ওপেনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মারিয়া শারাপোভা। গত তিন মৌসুমের দুটিতেই শিরোপা জয়ের উল্লাসে ভাসেন তিনি। দুঃসময় কাটিয়ে রবিবারই শেষ হওয়া ইতালিয়ান ওপেনের শিরোপা জেতায় এবারও ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা নিজের শোকেসে তুলতে চাইবেন রুশ সুন্দরী। সর্বশেষ প্রকাশিত এটিপি র‌্যাংকিং অনুযায়ী সিমোনা হ্যালেপকে টপকে আবারও দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসেন শারাপোভা। তবে ফ্রেঞ্চ ওপেনে তার বড় প্রতিপক্ষ হয়ে দাঁড়াতে প্রস্তুত আমেরিকান টেনিসের জীবন্ত কিংবদন্তি সেরেনা উইলিয়ামস। ইতালিয়ান ওপেন থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিলেও রোলা গ্যারোয় ফিরতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এই আমেরিকান। তবে রুশ সুন্দরী শারাপোভা আর কৃঞ্চকলি সেরেনা উইলিয়ামস ছাড়াও ফ্রেঞ্চ ওপেনে চোখ থাকবে চেক প্রজাতন্ত্রের পেত্রা কেভিতোভা, রোমানিয়ারি সিমোনা হ্যালেপ, ডেনমার্কের ক্যারোলিন ওজনিয়াকি, কানাডার ইউজেনি বাউচার্ড এবং র‌্যাঙ্কিংয়ের সপ্তম স্থানে থাকা সার্বিয়ার আনা ইভানোভিচের দিকে। কেননা গত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে টেনিস বিশ্বে দ্যূতি ছড়াচ্ছেন তারা। এছাড়া স্পেনের কার্লা সুয়ারেজ নাভারো, রাশিয়ার একাটেরিনা মাকারোভা, জার্মানির এ্যাঞ্জেলিক কারবার কিংবা পোল্যান্ডের এ্যাগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানস্কাও নিজেদের সেরাটা মেলে দিতে মরিয়া হয়েই ফ্রেঞ্চ ওপেনের কোর্টে নামবেন।

এদিকে ফ্রেঞ্চ ওপেনের আগে ইতালিয়ান ওপেনে নিজেকে মেলে ধরতে পেরেছেন ভারতের টেনিস তারকা সানিয়া মির্জাও। ফাইনাল জিততে ব্যর্থ হলেও বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের দ্বৈতে আবারও শীর্ষস্থান ফিরে পেয়েছেন সানিয়া মির্জা ও সুইজারল্যান্ডের মার্টিনা হিঙ্গিস জুটি। টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে ক্যারোলিনা গার্সিয়া ও ক্যাটারিনা সেরেবোটনিককে হারিয়ে টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেন তাঁরা। সেইসঙ্গে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানও দখল করেন টেনিসের ডাবলসের অন্যতম জনপ্রিয় এই জুটি। কিন্তু ফাইনালে পরাজয়ের স্বাদ পেতে হয় সানিয়া-হিঙ্গিস জুটিকে।

ইতালিয়ান ওপেনের পুরুষ এককে শিরোপা জিতেছেন নোভাক জোকোভিচ। সুইজারল্যান্ডের জীবন্ত কিংবদন্তি রজার ফেদেরারকে হারিয়ে চতুর্থবারের মতো ইতালিয়ান ওপেনের শিরোপা জয়ের স্বাদ পান টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের নাম্বার ওয়ান তারকা জোকোভিচ। ফাইনালে শীর্ষ বাছাই জোকোভিচ ৬-৪ এবং ৬-৩ গেমের সরাসরি সেটে ফেদেরারকে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা নিজের শোকেসে তুললনে। সেইসঙ্গে ফ্রেঞ্চ ওপেনের অনুশীলনটাও দারুণভাবে সেরে নিলেন সার্বিয়ান এই তারকা। ইতালিয়ান ওপেনে ফেবারিট ছিলেন রাফায়েল নাদাল। কিন্তু টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই ছিটকে পড়েন তিনি।

সাতবারের চ্যাম্পিয়ন রাফায়েল নাদালের অনুপস্থিতিতে নিজের শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে ফাইনালের সেন্টার কোর্টে জোকোভিচ একচেটিয়া পারফর্মেন্স প্রদর্শন করেন। রোমের ফাইনালে এই নিয়ে চতুর্থবারের মতো পরাজিত হলেন বর্তমান র‌্যাঙ্কিংয়ের দুই নাম্বারে থাকা ফেদেরার। সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে ৮টি গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন জোকোভিচ। কিন্তু এখন পর্যন্ত ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপাটা অধরাই রয়ে গেল তার। যে কারণে সেই অধরা শিরোপাটি স্পর্শ করার লক্ষ্যেই প্রতিপক্ষের সামনে অবতীর্ণ হবেন জোকোভিচ। সাম্প্রতিক সময়ে ক্লে কোর্টের রাজা রাফায়েল নাদালের পারফর্মেন্স একেবারেই নিস্প্রভ। যে কারণে জোকোভিচের স্বপ্নটা আরও বহুগুণে জেগে উঠেছে। তবে পারবেন কী জোকোভিচ? নাকী প্রতিপক্ষকে গুঁড়িয়ে দিয়ে ক্যারিয়ারের দশম ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা জিতে নেবেন নাদাল। ভক্ত-অনুরাগীদের অপেক্ষা এখন সেটাই দেখার।

প্রকাশিত : ২০ মে ২০১৫

২০/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: