রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আগামী অর্থবছরেও জরিমানা দিয়ে কোলো টাকা বৈধ করা যাবে ॥ অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৫, ১২:৪১ এ. এম.
  • প্রাক-বাজেট আলোচনা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ আসন্ন ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটেও নির্দিষ্ট পরিমাণ জরিমানা দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

সোমবার রাত ১০টায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় সংসদীয় স্থায়ী কমিটির প্রধানদের সঙ্গে প্রাক-বাজেট নিয়ে আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, স্থায়ী কমিটির প্রধানদের পক্ষ থেকে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ চাওয়া হয়েছে। আগামীতেও জরিমানা দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থের বিনিয়োগের সুযোগ থাকবে। তবে এ সময় ঢাকা শহরে যাদের বাড়ি-গাড়ি আছে, তাদের সবার ওপর একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ কর ধার্য করা হবে বলেও জানান তিনি। বর্তমান নির্ধারিত করের অতিরিক্ত ১০ শতাংশ জরিমানা দিয়ে কালো টাকা বৈধ করার সুযোগ রয়েছে।

প্রতিবন্ধী ভাতা বাড়বে ॥ আগামী ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটে প্রতিবন্ধী ভাতা বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। দেশের প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্নয়নে বাজেটে সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ চেয়েছে জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরাম। এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি রয়েছে জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রতিবন্ধীদের চাহিদা অনুযায়ী দিতে না পারলেও আগামী অর্থবছরে ভাতার পরিমাণ আগের চেয়ে বেশি হবে।

সোমবার দুপুরে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরামের নেতাদের সঙ্গে প্রাক-বাজেট আলোচনায় এ কথা জানান অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীদের নিয়ে যেসব মন্ত্রণালয় কাজ করছে, নিজ উদ্যোগে তাদের সেই কাজ বাস্তবায়ন করতে হবে।

এদিকে প্রতিবন্ধী ফোরামের বাজেট প্রস্তাবনায় ১৪টি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ২২টি খাতে ৪ হাজার ৫৩৭ কোটি টাকা বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। এর মধ্যে অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ভাতা খাতে ১ হাজার ৯২০ কোটি টাকা, ষাটোর্ধ অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য জাতীয় পেনশন স্কিমের আওতায় ৮৫০ কোটি টাকা, ১২টি মন্ত্রণালয়ের অনুকূলে ২শ’ কোটি টাকা থোক বরাদ্দ, প্রতিবন্ধী উন্নয়ন অধিদফতরের আওতায় উন্নয়ন কার্যক্রমের জন্য ১৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ, প্রতিবন্ধী মানুষের জন্য স্থানীয় সরকারের আওতায় কর্মসূচী গ্রহণে ১শ’ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।

প্রাক-বাজেট আলোচনায় অন্যদের মধ্যে অংশ নেনÑ সংসদ সদস্য কবি কাজী রোজী, সংগঠনের সভাপতি সাইদুল হক, সিনিয়র সহসভাপতি সেলিনা আখতার, সহসভাপতি হারুন-অর রশীদ, এক্সেস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের পরিচালক মহুয়া পাল, হ্যান্ডিক্যাপ ইন্টারন্যাশনালের ডেপুটি কান্ট্রি ডিরেক্টর শারমিন খান প্রমুখ।

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৫, ১২:৪১ এ. এম.

১২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: