কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঐক্যবদ্ধ যুক্তরাজ্য গড়ব

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৫

যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে নির্বাচনে সদ্যবিজয়ী কনজারভেটি পার্টির নেতা ডেভিড ক্যামেরন শুক্রবার বলেছেন, তিনি যুক্তরাজ্যের প্রত্যেকের স্বার্থে দেশ শাসন করতে চান। স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির (এসএনপি) হাতে স্কটল্যান্ডে লেবার পার্টি কার্যত নির্মূল হয়ে যাওয়ার পর ইউনিয়নের ভবিষ্যৎ নিয়ে আশঙ্কা বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে ক্যামেরন এ কথা বলেন।

ক্যামেরন দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন। এসএনপির সাবেক নেতা আলেক্স স্যালমন্ড সতর্ক করে দিয়েছেন যে, স্কটল্যান্ডে ক্যামেরনের আদৌ কোন বৈধতা নেই। স্যালমন্ড স্কটল্যান্ড থেকে নির্বাচিত এসএনপি দলীয় ৫৬ জন পার্লামেন্ট সদস্যের (এমপি) অন্যতম। কেবল তিনটি আসন অন্য দলগুলো লাভ করে। খবর বিবিসি, টেলিগ্রাফ ও হেরাল্ড স্কটল্যান্ডের। ক্যামেরন যুক্তরাজ্যকে ঐক্যবদ্ধ করার সংকল্প ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, তিনি এক দেশ, এক যুক্তরাজ্য শাসন করতে চান। ক্যামেরন তার নির্বাচনী এলাকা উইটনিতে বলেন, এটি স্পষ্টতই কনজারভেটিভ পার্টির জন্য খুবই সাফল্যজনক এক রাত ছিল- আমার মনে হয় আমরা এক ইতিবাচক প্রচারের ইতিবাচক সাড়া পেয়েছি। এ প্রচারে আগামী পাঁচ বছরের জন্য অর্থনীতির বিষয়ে এক শক্তিশালী পরিকল্পনা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ক্যামেরন ভিক্টরি ইন ইউরোপের (ভিই) ৭০ তম বার্ষিকীর কথা উল্লেখ করে ‘আমাদের দেশ ও আমাদের গণতন্ত্র’ রক্ষার জন্য যারা লড়াই করেছিলেন, তাদের কথা স্মরণ করেন। তিনি গত বছর স্কটল্যান্ডে স্বাধীনতা প্রশ্নে গণভোট অনুষ্ঠানের পদক্ষেপও সমর্থন করেন। তিনি বলেন, ঐ গণভোটের আয়োজন করা সঠিক ছিল, ঠিক যেমন ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সদস্যপদ প্রশ্নে জনগণের মতামত নেয়া সঠিক হবে। তিনি বলেন, আমার প্রধান লক্ষ্য হলো আমাদের যুুক্তরাজ্য সবার স্বার্থে শাসন করা। তিনি বলেন, সর্বোপরি আমি আমাদের দেশকে আমাদের যুক্তরাজ্যকে ঐক্যবদ্ধ করতে চাই। তিনি আরও বলেন, এটি ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের দলগুলোর মধ্যে সম্মত চুক্তি অনুযায়ী আরও ক্ষমতা হস্তান্তরের মাধ্যমে অর্জিত হবে। এসএনপি নিকোলা স্টারজন বলেন, স্কটিশ রাজনীতির দিগন্তই বদলে গেছে। আমরা যা দেখছি তা এক ঐতিহাসিক পরিবর্তন। ওয়েস্ট মিনিস্টারে যে সরকারই ক্ষমতায় আসুক না কেন, তারা স্কটল্যান্ডে যা ঘটেছে, তা উপেক্ষা করতে পারবে না। অর্থমন্ত্রী জর্জ ওসবোর্ন বলেন, এসএনপির উত্থান কনজারভেটিভদের জন্য বিরাট চ্যালেঞ্জ বয়ে এনেছে। স্কটিশ জনগণ আমাদের যা বলছে, তা আমাদের শোনা উচিত। তিনি বলেন, আমাদের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের বড় বড় প্রস্তাব রয়েছে। স্কটল্যান্ডের মানুষ যে এক শক্তিশালী যুক্তরাজ্যের অংশ একথা তাদের বোঝাতে হবে। কাজেই স্মিথ কমিশন যে কাজটি করেছিল, তা ছুড়ে ফেলা দেয়া আমাদের জন্য লজ্জাকর হবে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফিলিপ হ্যামন্ড বলেন, কনজারভেটিভরা স্কটল্যান্ডের হাতে আরও ক্ষমতা দেয়ার এবং ইংল্যান্ডের আইনের ক্ষেত্রে কোন ইংল্যান্ড থেকে নির্বাচিত এমপিদের ভোট দেয়ার বিধান করার পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাবেন। লন্ডনের মেয়র বরিস জনসন বলেন, আমরা কোন কোন ফলাফল নিয়ে খুবই উত্তেজনা বোধ করছি। সামগ্রিকভাবে বলতে গেলে এটি কনজারভেটিভদের জন্য এক বিস্ময়কর রাতই ছিল। তিনি নিজেও ১০ হাজার ভোটের ব্যবধানে পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচিত হন। তবে তিনি বলেন, সব দলকেই স্কটল্যান্ডে এসএনপির উত্থানের বিষয়টি বিবেচনায় নিতে হবে। তিনি বলেন, এসএনপি এমপিদের সংখ্যা বিরাটভাবে বেড়ে যাওয়ার স্কটল্যান্ডকে কোন ধরনের ফেডারেল শাসন ব্যবস্থার প্রস্তাব করা যেতে পারে।

মিলিব্যান্ডের পদত্যাগ

যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচনে লেবার পার্টি পরাজিত হওয়ায় এড মিলিব্যান্ড পদত্যাগ করেছেন। এর আগে দলটি পরাজিত হয় এবং একটি মাত্র আসন পায় স্কটল্যান্ডে। দলের ভারপ্রাপ্ত নেতা হিসেবে হ্যারিয়েট হারম্যানকে মনোনয়নের জন্য দলীয় সূত্রগুলো এর মধ্যেই আলাপ-আলোচনা করেছে। খবর গার্ডিয়ান অনলাইনের।

মিলিব্যান্ডের শিবির মনে করে, তিনি তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন এবং প্রচারাভিযানে ছিলেন অত্যন্ত দৃঢ়, যদিও তার মধ্যে কিছু হঠকারিতা ছিল। লেবার পার্টি নির্বাচনে চরমভাবে মার খেয়েছে এসএনপির কাছে এবং টোরিরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বলে আগাম জানানো হচ্ছে। বিবিসি জানিয়েছে, মিলিব্যান্ড পার্টি স্টাফদের উদ্দেশে ভাষণ দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে। পার্টির যে সকল বড় নেতা পরাজিত হয়েছেন শ্যাডো চ্যান্সেলর এড বলস তাদের অন্যতম। মিলিব্যান্ডের অফিস থেকে বলা হয়েছে, গুঞ্জন ছিল যে, তিনি পদত্যাগ করতে যাচ্ছেন। এর আগে লেবার পার্টির নেতা বলেছেন, তার দলের জন্য এটা খুবই হতাশাজনক।

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৫

০৯/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: