আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিদেশী উচ্চারণে বাংলা ভাষায় বিজ্ঞাপন প্রচার- জবাব চেয়েছে হাইকোর্ট

প্রকাশিত : ১ মে ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশে কোন আইনের সুযোগে সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড ও ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমে ইংরেজি ভাষায় অথবা ‘বিদেশী উচ্চারণের বাংলা ভাষায়’ বিদেশে নির্মিত বিজ্ঞাপন প্রচার করা হচ্ছে তা আদালতে উপস্থাপন করতে বলেছে হাইকোর্ট। মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও তথ্য সচিবকে আগামী ২৭ মে এ বিষয়ে জবাব দিতে হবে। একটি রিট আবেদনে দেয়া রুলের শুনানি করতে গিয়ে বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি আবু তাহের মোঃ সাইফুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেয়। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি এ্যাটর্নী জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।

আদেশের পর তাপস কুমার বিশ্বাস বলেন, আদেশ বাস্তবায়নে কী কী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে সে সম্পর্কে এর আগে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও তথ্য সচিবের পক্ষ থেকে প্রতিবেদন দেয়া হয়। আদেশ বাস্তবায়নের সর্বশেষ অবস্থা জানিয়ে ২৭ মের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও তথ্য সচিবকে একটি প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

আদালত বলেছে, বিজ্ঞাপন বা প্রচারে যেসব ক্ষেত্রে ইংরেজি ব্যবহার প্রয়োজন সেখানে বাংলার পাশাপাশি সীমিত পরিসরে ইংরেজি ব্যবহার করা যেতে পারে। আদেশে বলা হয়, ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে বিদেশ হতে নির্মিত বিজ্ঞাপনচিত্র বিদেশী উচ্চারণে বাংলা ভাষায় প্রচার লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে কোন আইন থাকলে তা আদালতের কাছে উপস্থাপন করে জবাব দিতে বলা হলো। সব ক্ষেত্রে বাংলা ভাষা প্রচলনের নির্দেশনা চেয়ে গত বছর ফেব্রুয়ারিতে হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেন সুপ্রীম কোর্টের একজন আইনজীবী।

তাতে বলা হয়, সংবিধানের ৩ অনুচ্ছেদ এবং বাংলা ভাষা প্রচলন আইন, ১৯৮৭-এর ৩ ধারা অনুসারে সরকারী, আধা সরকারী ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে (বিদেশের সঙ্গে যোগাযোগ ছাড়া) চিঠিপত্র, আইন-আদালতের সওয়াল-জবাব এবং অন্যান্য কাজ বাংলা ভাষায় হওয়ার কথা থাকলেও আইনটি অনুসরণ করা হচ্ছে না। ওই রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি করে গত বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট রুল ও অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেয়।

প্রকাশিত : ১ মে ২০১৫

০১/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: