রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

খেলোয়াড়দের নিয়ে গর্বিত গার্ডিওলা

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ট্রেবল জয়ের স্বপ্নটা শেষ হয়ে গেছে এবার বেয়ার্ন মিউনিখের। জার্মান কাপের সেমিফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের কাছে পেনাল্টিতে হেরে বিদায় নিয়েছে বুন্দেসলিগার শিরোপা নিশ্চিত করে ফেলা বাভারিয়ান শিবির। এবার খুব বাজে অবস্থায় আছে ডর্টমুন্ড। তাদের কাছে অপ্রতিরোধ্য বেয়ার্নের হেরে যাওয়াটা তাই খুব বেশি সুখকর বলে মনে করছে না বেয়ার্নের ভক্ত-সমর্থকরা। তবে এরপরও দলের খেলোয়াড়দের প্রশংসা করলেন কোচ পেপ গার্ডিওলা। তিনি জানালেন দলের খেলোয়াড়রা যা করেছেন সেটা গর্বিত হওয়ার মতো। মৌসুমের শেষে বড় সমস্যা তৈরি হয়েছে বেয়ার্ন শিবিরে। আর সেই সমস্যাটা ইনজুরি সমস্যা। দীর্ঘদিন পর ইনজুরি কাটিয়ে ফিরেছিলেন আরিয়েন রোবেন। কিন্তু মাঠে তার স্থায়িত্ব হয়েছে ১৬ মিনিট। এবার হাঁটুর এক মাংসপেশি ছিঁড়ে যাওয়ার কারণে তাকে মাঠ ত্যাগ করতে হয়েছে ক্র্যাচে ভর দিয়ে। চলতি মৌসুমে আর মাঠে ফেরা হবে না এ ডাচ তারকার। ডেভিড আলাবা এবং ফ্রাঙ্ক রিবেরি এখনও ফিরতে পারেননি। এর সঙ্গে আবার যোগ হয়েছে তরুণ পোলিশ স্ট্রাইকার রবার্ট লেভানডোস্কির ইনজুরি। ডর্টমুন্ডের গোলরক্ষকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে চোয়ালে আঘাত পাওয়া এ স্ট্রাইকারের গালের হাড়ে চিড় ধরা পড়েছে। গুরুত্বপূর্ণ কয়েক খেলোয়াড়কে ছাড়াই এখন পর্যন্ত বেয়ার্ন যেমন খেলেছে সেটা নিয়ে বেশ সন্তুষ্ট গার্ডিওলা। এমনকি চিরশত্রু ডর্টমুন্ডের কাছে পেনাল্টিতে জার্মান কাপে হারলেও তিনি বলেন, ‘আমি আমার দলকে নিয়ে গর্বিত। আসলে আমি আগে কখনও আমার খেলোয়াড়দের নিয়ে এত গর্বিত হইনি। আমরা অনেক ভাল খেলেছি। আমি বেয়ার্নে আসার পর ডর্টমুন্ডের বিরুদ্ধে খেলা এটিই সবচেয়ে সেরা ম্যাচ ছিল আমাদের। তাই এখানে লজ্জার কোন কিছুই দেখছি না। আমরা একটা ফুটবল ম্যাচ হেরেছি। লজ্জিত হওয়ার জন্য এরচেয়ে খারাপ কিছু হওয়ার প্রয়োজন ছিল।’ এরপরই অনেক বড় পরীক্ষার সামনে দাঁড়াতে হবে বেয়ার্ন শিবিরকে। চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমিতে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সিলোনার বিরুদ্ধে ম্যাচ। ওই ম্যাচে রোবেন, রিবেরি, আলাবা তো থাকছেনই না। আবার লেভানডোস্কির খেলা নিয়েও আছে সংশয়। ডর্টমুন্ডের কাছে হারের পর আরও দুর্বল হয়ে পড়া বেয়ার্ন কিভাবে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে বার্সার সেটা নিয়েই শঙ্কিত এখন দলের সমর্থকরা। কিন্তু গার্ডিওলা বলেন, ‘এ ম্যাচের ফলাফল বার্সিলোনা ম্যাচের বিষয়ে কোনকিছুই প্রমাণ করে না। সেটা হবে সম্পূর্ণ নতুন ম্যাচ এবং অন্য প্রতিযোগিতা। আরিয়েন আবার ইনজুরিতে পড়েছেন, থিয়াগো আঘাত পেয়েছেন এবং লেভানডোস্কির হাসপাতালে যেতে হবে। আমি জানি না লেভানডোস্কি বার্সিলোনার সঙ্গে খেলতে পারবেন কিনা। তবে এসব নিয়ে আমি চিন্তা করছি না।’

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০১৫

৩০/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: