রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আচরণবিধি লঙ্ঘন খালেদার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে রিটার্নিং অফিসারকে ইসির চিঠি

প্রকাশিত : ২৫ এপ্রিল ২০১৫, ০১:০৫ এ. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গাড়িবহর নিয়ে সিটি নির্বাচনের প্রচারে নামা বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার ‘আচরণবিধি লঙ্ঘনের’ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। শুক্রবার ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের রিটার্নিং কর্মকর্তাকে এ সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ইসির উপসচিব শামসুল আলম। এছাড়া পুলিশ মহাপরিদর্শক, ঢাকার পুলিশ কমিশনার ও জেলা প্রশাসককেও শনিবার বাহকের মাধ্যমে ওই চিঠির অনুলিপি পাঠানো হবে বলে কমিশনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনকেও চিঠি দিতে ইসির পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্টদের বলা হয়েছে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া বর্তমানে সরকারের লাভজনক কোন পদে না থাকায় আইন অনুযায়ী তার নির্বাচনী প্রচারে থাকতে কোন বাধা নেই। কিন্তু তিনি যেভাবে ‘গাড়িবহর নিয়ে যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটিয়ে’ বিএনপিসমর্থিত প্রার্থীদের পক্ষে গত এক সপ্তাহ ধরে প্রচার চালাচ্ছেন ইসির আপত্তি তা নিয়েই।

২৮ এপ্রিল ভোটের আগে প্রচারের সুযোগ আছে আর মাত্র ৩ দিন। ইতোমধ্যে বিধি লঙ্ঘন না করার বিষয়ে সতর্ক করার পর প্রচার থেকে সরে গেছেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এইচ এম এরশাদ। গত শনিবার থেকে ঢাকায় গাড়িবহর নিয়ে নির্বাচনী প্রচারে থাকা বিএনপি নেত্রী খালেদা মাঝখানে একদিন বিরতি দিয়ে শুক্রবারও প্রচার চালিয়েছেন।

এ অবস্থায় বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ দেন সহস্র নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব গোলাম কুদ্দুস। বিধি লঙ্ঘনের ওই অভিযোগ আমলে নিয়েই বিএনপি চেয়ারপার্সনের বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের এ নির্দেশনা দিল ইসি।

বিধি লঙ্ঘন করলে তা ‘শাস্তিযোগ্য অপরাধ’ উল্লেখ করে ইসির পাঠানো চিঠিতে বলা হয়- বিধি অনুযায়ী অপরাধের জন্য জেল-জরিমানার বিধান রয়েছে। এতে বলা হয়- ‘ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গাড়িবহর নিয়ে দলসমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় নিয়োজিত থাকায় জন চলাচলের বিঘ্ন হচ্ছে। পাশাপাশি তার গাড়িবহরে কিছু ব্যক্তি অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে। প্রতিনিয়ত গণমাধ্যমে যেসব সংবাদ প্রচারিত হচ্ছে তা পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, বিষয়টি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আচরণবিধিমালা ২০১০ এর সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।’

আচরণবিধির ৬ ধারার প্রচার সংক্রান্ত বাধা-নিষেধ, সভা সমিতি অনুষ্ঠানে বিধি-নিষেধ, মিছিল বা ‘শোডাউনে’ বাধা নিষেধ, উস্কানিমূলক বক্তব্য ও অনভিপ্রেত গোলযোগ সৃষ্টিতে বাধা-নিষেধের কথাও উল্লেখ করা হয়েছে ওই চিঠিতে। বিধিগুলো খালেদা জিয়ার নজরে এনে এ ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দিতে বলেছে নির্বাচন কমিশন।

ইসির এ নির্দেশনা অনুযায়ী জরুরীভিত্তিতে পদক্ষেপ নিয়ে কমিশন সচিবালয়কে তা অবহিত করতে বলা হয়েছে দুই রিটার্নিং কর্মকর্তাকে। আচরণবিধির ৯ ধারায় বলা হয়েছে, কোন প্রার্থী বা তার পক্ষে কোন ব্যক্তি বিধি লঙ্ঘন করলে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, সর্বোচ্চ ৬ মাসের দণ্ড বা উভয় দণ্ড হতে পারে।

খালেদা যে ৬ দিন নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়েছেন, তার মধ্যে ৪ দিনই তার গাড়িবহরে বাধা দেয়া বা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে বিএনপির পক্ষ থেকে ইসিতে অভিযোগও জানানো হয়েছে।

প্রকাশিত : ২৫ এপ্রিল ২০১৫, ০১:০৫ এ. এম.

২৫/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: