রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

লাতিফ নিয়ে নওয়াজউদ্দিন

প্রকাশিত : ২৩ এপ্রিল ২০১৫

বলিউডে ক্রাইম ড্রামাভিত্তিক ফিল্ম তৈরি হবে আর সেখানে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি থাকবেন না তা কি হয়? বিশেষ করে ‘গ্যাংস অফ ওয়াসিপুর’ ছবিতে নিজের যে ট্রেডমার্ক স্থাপন করেছেন তিনি তাতে বলিউডে এই ঘরানার ছবি বানানোর কথা কেউ চিন্তা করলেই মাথায় চলে আসে তার নাম। তারই ধারাবাহিকতায় এবার নওয়াজ অভিনীত মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবি ‘লাতিফ’। ছবির নামভূমিকায় অভিনয় করা লাতিফের স্বপ্ন ছিল বড় হয়ে ডাক্তার হবে, দেশের মানুষের সেবা করবে। কিন্তু জীবনের একপর্যায়ে লাতিফ ড্রাগ কেসে আসামি হয়ে জেল খাটতে বাধ্য হয়। অবশ্য ড্রাগ বিজনেসের সঙ্গে কোনভাবেই জড়িত ছিল না সে, বিনা দোষে সাজা খাটে সে। জেল থেকে বেড়িয়ে আসে ৭ বছর পর। এবার কী করবে সে? নতুন করে জীবন শুরু করবে? নাকি হতাশায় এবার প্রকৃতই ড্রাগের জগতে পা রাখবে? জানতে চোখ রাখতে হবে বড় পর্দায়। ওদিকে মেধাবী পুলিশ কর্মকর্তা সাওয়ান্ত যুদ্ধ ঘোষণা করেছে ড্রাগ মাফিয়াদের বিরুদ্ধে। কিন্তু তাকে বাধাগ্রস্ত হতে হচ্ছে দুর্নীতিবাজ মন্ত্রীর দ্বারা। ড্রাগ বর্তমান সময়ের একটা বড় সমস্যা। কিভাবে সম্ভব সমাধান? আর এসবের ঘটনা প্রবাহেই এগিয়েছে সিনেমার গতিপথ। এ ছবিতে নওয়াজ প্রথম অভিনয় করলেন কাদের খানের সঙ্গে সিনেমায় যার ভূমিকা একজন পুলিশ কমিশনারের। আগের ছবিগুলোতে ধূমপানের দৃশ্যে দুর্দান্ত অভিনয় বিশেষ করে গ্যাংস অফ ওয়াসিপুরে গাঁজা সেবনের তাক লাগানো অভিনয়ের কারণে এই ছবিতে কাস্ট করা হয়েছে নওয়াজকেÑ এমনটাই জানালেন টাইমস অফ ইন্ডিয়ার কাছে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে। বলিউডে আর কোন অভিনেতা এসব দৃশ্যে এমন সাবলীল অভিনয় করতে পারেনি। পাশাপাশি রয়েছে চরিত্রের গভীরে ঢুকে যাওয়ার স্বভাবজাত ক্ষমতা। বিশেষ করে রিমান্ডের দৃশ্যে তার অভিব্যক্তি এতটাই বাস্তব যার প্রমাণ তিনি দিয়ে যাচ্ছেন সেই ‘ব্যাক ফ্রাইডে’, এমনকি হালের ‘বদলাপুর’ এবং সর্বশেষ ‘লাতিফ’-এ।

১১৮ মিনিটের এ ছবিতে যেমন পাওয়া যাবে নিরপরাধ লাতিফের স্বপ্ন ও হতাশার গল্প তেমনি দেখা মিলবে মাফিয়ার প্রভাব ও পচে যাওয়া নষ্ট রাজনীতির মারপ্যাঁচ। অন্তত ছবির ট্রেলারে তেমনটাই ফুটিয়ে তুলতে পেরেছেন পরিচালক। ছবির বাজেট বেশি না হলেও এই ছবির মূল আকর্ষণ হলো গল্পের অসাধারণ গাঁথুনি যা দর্শকের মনে দাগ কাটবে বলে আশাবাদী পরিচালক ইসরার আহমেদ। এমজে প্রোডাকশন, পিএনসি এন ক্যামেরা ইন্টারন্যাশনালস ও স্ক্রিনশট মিডিয়া অ্যান্ড ইন্টারটেইনমেন্টের প্রযোজনায় এ ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন মুকেশ তিওয়ারি, মুরলি শর্মা প্রমুখ।

চিত্রনাট্য লিখেছেন বাদশাহ খান, ওয়াজিদ শেখ ও এস শচীন্দ্র। সঙ্গীতায়োজনের দায়িত্বে ছিলেন ইয়াসিন দারবার। দেখা যাক পর্দার লাতিফের গল্পের সঙ্গে বাস্তব জীবনে ক’জন খুঁজে পান নিজেকে।

আনন্দকণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত : ২৩ এপ্রিল ২০১৫

২৩/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: