মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি

প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০১৫, ১১:৫১ এ. এম.
  • বাংলাদেশী জীবিত উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক ॥ ভূমধ্যসাগরের লিবীয় উপকূলে ইউরোপগামী নৌকাডুবির ঘটনায় এক বাংলাদেশীকে জীবিত উদ্ধার করেছে ইতালীয় কোস্টগার্ড। ইতালীয় প্রসিকিউটরদের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে আল-জাজিরা।

প্রসিকিউটররা জানিয়েছেন, ওই বাংলাদেশীকে চিকিৎসার জন্য সিসিলির ক্যানিজ্জারো হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

ইতালির পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশীর নাম ও পরিচয় জানানো হয়নি। আর ওই নৌযানে কতজন বাংলাদেশি ছিলেন সে বিষয়েও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বাংলাদেশী ওই নাগরিকের বরাত প্রসিকিউটররা জানান, নৌকাটিতে ৯৫০ আরোহী ছিলেন। যেখানে কয়েকশ’ লোককে মানুষকে তালাবন্ধ ঘরে আটকে রেখেছিল পাচারকারীরা।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ৭০ ফুট দীর্ঘ ওই নৌযানে অন্তত ৭০০ আরোহী ছিলেন বলে ইতালির তদন্তকারীদের ধারণা।

সিএনএন এর প্রতিবেদনে বলা হয়, সাহায্য চেয়ে বার্তা পাঠানোর পর ওই নৌযানে কী ঘটেছিল তার কিছু ধারণা পাওয়া যায় উদ্ধার পাওয়া সেই বাংলাদেশি অভিবাসীর বক্তব্য থেকে।

প্রসিকিউটর জিওভান্নি সালভি বার্তা সংস্থা এপিকে বলেন, উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশী জানিয়েছেন নৌকাটি ডুবে যাওয়ার আগে প্রায় ৩০০ লোককে আটকে রাখে পাচারকারীরা। নৌকার আরোহীদের মধ্যে ২০০ নারী ও বেশ কয়েক শিশু ছিল।

সালভি বলেন, ওই লোকগুলোর ভাগ্য সম্পর্কে আমরা এখনও নিশ্চিত কিছু জানি না। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

মূলত ওই বাংলাদেশীর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই উদ্ধার কার্যক্রম নতুন মোড় নিয়েছে। পাচারকারীদের অবস্থান চিহ্নিত ও নৌকার আরোহীরা যদি বেঁচে থাকেন তাহলে তাদের উদ্ধারে প্রয়োজনে মুক্তিপণ দেওয়ার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের ওপর চাপ বাড়ছে।

এর আগে নৌকাডুবির ঘটনায় উদ্ধার হওয়া এক জীবিতের বরাত দিয়ে ইতালীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, নৌকাটিতে প্রায় ৭০০ বিদেশগামী ছিলেন। বাংলাদেশীর দেওয়া ওই তথ্যে আরও বিদেশগামীর উপস্থিতির ব্যাপারে জানতে পারে ইতালীয় কর্তৃপক্ষ।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী মাত্তেও রেনজি বলেছেন, ডুবে যাওয়া নৌকাটির অবস্থান নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। উদ্ধার অভিযানে ১৮টি জাহাজ অংশ নিয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০১৫, ১১:৫১ এ. এম.

২০/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: