রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চাটমোহর থানা বাজার নানা সমস্যায় জর্জরিত

প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, ঈশ্বরদী ॥ চাটমোহর উপজেলা শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত থানা বাজারটি নানা সমস্যায় জর্জরিত। দীর্ঘদিন থেকে এ অবস্থা চলছে। তার ওপর দিনের পর দিন সঙ্কুচিত হয়ে পড়ছে এ বাজারে আসা সাধারণ ক্রেতাদের সুবিধার ক্ষেত্রগুলো। এর ফলে মানুষ দিন দিন এ বাজারের দিক থেকে ক্রমান্বয়ে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। বাজারের উত্তর পাশ দিয়ে মাছ বাজার হয়ে চূর্ণকার পাড়ার দিকে চলে গেছে একটি সরু রাস্তা। এ রাস্তা দিয়ে অবাধে চলাচল করছে নসিমন, করিমন। তার সঙ্গে সাইকেল, মোটরসাইকেল এবং রিক্সাও চলাচল করছে। রাস্তার দু’পাশে দোকান হওয়ায় ক্রেতা-বিক্রেতাদের ভোগান্তির শেষ নেই। মাঝে মাঝেই বাজারের মধ্যে সাইকেল, মোটরসাইকেল, নসিমন ও করিমনের জট বাঁধে । এ রাস্তার সামনে এগুলেই মুরগি বাজার। আবার নদীর পাড়ে মাছ ও মাংস বাজার। মুরগি ড্রেসিং করার পর উচ্ছিষ্টাংশ ফেলে দেয়া হচ্ছে মাছ বাজারের পাশে বড়াল নদীতে। নদীতে দিনের পর দিন এ সব বর্জ্য ও উচ্ছিষ্টাংশ ফেলানো হলেও তা অপসারণের ব্যবস্থা না থাকায় দুর্গন্ধে টেকা দায়। পাশেই অপরিষ্কার পাবলিক টয়লেট থাকায় বাজারে আগতদের নাভিশ্বাস ওঠে। পাবলিক টয়লেটিরই দরজা ভাঙ্গা থাকায় খুব সহজেই দুর্গন্ধ চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। মাংসের দোকানে জবাইয়ের পূর্বে গরু-ছাগলের স্বাস্থ্য পরীক্ষার কোন ব্যবস্থা নেই। বাজারের শেডের মধ্যে গরু জবাইয়ের পর চামড়া ছাড়ানোর কাজ শেষ করা হয়। আর বর্জ্য ফেলে দেয়া হয় নদীতে। গরুর গোবর ও রক্তের গন্ধে বাজারে আগতরা অতিষ্ঠ। কাঁচাবাজারে নেই কোন শেড। যে যার মতো ঘর তুলে ব্যবসা করছেন। একটু বৃষ্টি হলেই ক্রেতাদের মাড়াতে হয় জলকাদা। বাজারে আগত ক্রেতা সাধারণ জানান, দুর্ভোগ এড়াতে রাস্তাটিকে ওয়ান ওয়ে করার বিকল্প নেই।

প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০১৫

১১/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: