মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বার্গম্যানের শাস্তিতে উদ্বেগ জানানো ২৩ জনের কেন শাস্তি নয়?

প্রকাশিত : ২ এপ্রিল ২০১৫
  • যুদ্ধাপরাধী বিচার
  • ট্রাইব্যুনালের রুল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আদালত অবমাননার দায়ে ব্রিটিশ সাংবাদিক ডেভিড বার্গম্যানকে ট্রাইব্যুনালের দেয়া জরিমানা ও এজলাস কক্ষে দাঁড়িয়ে থাকার সাজার রায়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে ৪৯ নাগরিকের দেয়া বিবৃতির মধ্যে ২৩ জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে কেন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে ট্রাইব্যুনাল। ২৩ এপ্রিলের মধ্যে তাদের এ রুলের জবাব দিতে হবে। অন্যদিকে আইনজীবীর মাধ্যমে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ায় রেজাউর রহমানকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে ক্ষমা করে দিয়েছে। আদেশে আরও বলা হয়েছে, যারা বিদেশে অবস্থান করছেন তাদেরকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে জানাতে হবে। এবং তাদেরকেও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে উত্তর দিতে হবে। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ বুধবার এ আদেশ প্রদান করেছে। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম।

উল্লেখ্য, এর আগে ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৪ জন, ৩ মার্চ ১০ জন, ১৮ মার্চ ১ জন এবং ১ এপ্রিল একজন নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ায় তাদের ক্ষমা করে দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল। বুধবার যে ২৩ জনের বিরুদ্ধে রুর জারি করা হয়েছে তারা হলেন, মাসুদ খান, আফসান চৌধুরী, জিয়াউর রহমান, হানা সামস আহম্মেদ, আনু মোহাম্মদ, আনুসে আনাদিল, মুক্তাশ্রী চাকমা সাথি, লুবনা মরিয়ম, ফরিদা আখতার, শিরিন হক, ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরী, আলী আহম্মেদ জিয়াউদ্দিন, রেহমানু আহম্মেদ, ডাঃ শহিদুল আলম, ডাঃ বিনা বিনা ডি কস্তা, মাহমুদ রহমান, ডাঃ সি আর আরবার, ডাঃ জেরিনা নাহার কবির, লিসা গাজী, শবনব নাদিয়া, নাসরিন সিরাজ এ্যানী, তিবরা আলী, ডাঃ দেলোয়ার হোসেন।

এর আগে চার দফায় মোট ২৬ জন নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ায় তাদের ট্রাইব্যুনাল ্ক্ষমা করে দিয়েছে। এর মধ্যে ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৪ জনকে ক্ষমা করে দেয়া হয়। তারা হলেন, ড. শাহদীন মালিক, রাশেদা কে চৌধুরী, এম হাফিজ উদ্দিন খান, বদিউল আলম মজুমদার, শাহনাজ হুদা, ইমতিয়াজ আহম্মেদ, আমেনা মহসীন, আসিফ নজরুল, নায়লা জামান খান, জাকির হোসেন, অরুপ রাহী, শাহীন আখতার, ইলোরা দেওয়ান, সৈয়দা রিজয়ানুল হাসান। ৩ মার্চ ১০ জন নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ায় তাদের মাফ করে দেয়া হয়। তারা হলেন আলী রিয়াজ, পারভিন হাসান, ফেরদৌস আজিম, সামিয়া হক, সেইতু সবুর, সারা সিহাব উদ্দিন, মহিউদ্দিন আহম্মেদ, ফস্টিনা পেরেরা, নুর খান লিটন, আহমিনা আনাম। ১৮ মার্চ দিনা এম সিদ্দিকী ও ১ এপ্রিল রেজাউর রহমানের পক্ষে ব্যারিস্টার আনিসুর রহমান নিঃশর্ত ক্ষমা চান। নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ায় তাদের মাফ করে দেয় ট্রাইব্যুনাল।

অন্যদিকে সাংবাদিক ডেভিড বার্গম্যানের সাজার রায়ের বিষয়ে মন্তব্য প্রতিবেদন প্রকাশ করায় গত ১১ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের সাময়িকী নিউইয়র্ক টাইমসকে শো’কজ করেছিল ট্রাইব্যুনাল। ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিউইয়র্ক টাইমস কর্তৃপক্ষকে এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হলেও পরে দিন পিছিয়ে দেয়া হয়।

প্রকাশিত : ২ এপ্রিল ২০১৫

০২/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: