মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

গাজীপুরে প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ বার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ১৯ মার্চ ॥ গাজীপুরে বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধের ৪৪তম বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন, আওয়ামী লীগ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে। কর্মসূচীর মধ্যে ছিল শহীদদের কবরে পু®পস্তবক অর্পণ, কোরানখানি, মিলাদ মাহফিল, মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা, আলোচনা সভা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। দিবসটি উপলক্ষে সকালে শহীদ হুরমত, নিয়ামত ও মনু খলিফাসহ শহীদদের কবর জিয়ারত ও পু®পস্তবক অর্পণ করেন প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ যুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী এ্যাডভোকেট আকম মোজাম্মেল হক এমপি। এসময় গাজীপুর মহানগরের জয়দেবপুর চৌরাস্তায় শহীদ হুরমতের কবর প্রাঙ্গণে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার মিয়ার সভাপতিত্বে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ নুরুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কাজী মোজাম্মেল হক।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের এই দিনে জয়দেবপুর (গাজীপুর) সেনানিবাসে দ্বিতীয় বেঙ্গল রেজিমেন্টকে নিরস্ত্র করতে ব্রিগেড কমান্ডার জাহানজেবের নেতৃত্বে পাঞ্জাব রেজিমেন্টের একদল সৈন্য আসছে এ খবরে গাজীপুরের সর্বস্তরের জনসাধারণ বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। তারা রাস্তার বিভিন্ন স্থানে বেরিকেড দিয়ে তীব্র প্রতিরোধ গড়ে তোলে। এ সময় পাক সেনাদের সঙ্গে প্রতিরোধ যুদ্ধে হুরমত, নিয়ামত ও মনু খলিফা শহীদ হন এবং অনেকে আহত হন।

ঝালকাঠিতে অচেতন করে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মালামাল লুট

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝালকাঠি, ১৯ মার্চ ॥ ঝালকাঠির রাজাপুরের নৈকাঠি গ্রামে পরিবারের সকলকে অচেতন করে এক মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে লুটপাট করা হয়েছে। বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। ১২ ভরি স্বর্ণালঙ্কারসহ দশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নেয় বলে পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। চেতনানাশক ওষুধে আক্রান্ত একই পরিবারের ৫ জনকে রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অসুস্থরা হলেন গৃহকর্তা মুক্তিযোদ্ধা মোশাররফ হোসেন, তার স্ত্রী রোকেয়া বেগম, ছেলে রফিকুল ইসলাম, দুই মেয়ে মনিরুন নাহার ও মেহেরুন নাহার। গৃহকর্তা মোশাররফ হোসেন জানান, বুধবার রাতের খাবার খেয়ে পরিবারের সকলেই অচেতন হয়ে যাই। গভীররাতে লুটেরারা ঘরের পাটাতন ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে টাকাসহ স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নেয়।

পৌর মেয়র সাময়িক বরখাস্ত

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝালকাঠি, ১৯ মার্চ ॥ চাঁদাবাজি মামলায় কারাগারে আটক থাকায় ঝালকাঠি পৌরসভার মেয়র আফজাল হোসেনকে সাময়িক বরখাস্তের আদেশ এবং প্যানেল মেয়র ১ প্রণব কুমার নাথকে ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব দিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক এবং পৌরসভা কার্যালয়ে ফ্যাক্সযোগে এ সংক্রান্ত আদেশ পৌঁছায়। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ পৌর ১ শাখার উপ-সচিব মো. খলিলুর রহমান স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, যেহেতু ঝালকাঠি পৌরসভার মেয়র আফজাল হোসেন গত ২ মার্চ থেকে জেল হাজতে রয়েছেন।

প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৫

২০/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: