আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

একাত্তরের পরাজিত শক্তির দোসরদের সঙ্গে সংলাপ নয় ॥ মতিয়া চৌধুরী

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, একাত্তরের পরাজিত শক্তির দোসর ও মানুষ হত্যাকারী হায়নাদের সঙ্গে কোন সংলাপ হতে পারে না। যারা হায়েনাদের সঙ্গে সংলাপের কথা বলে, আসলে তারা পাগলের প্রলাপ বকে। আমরা পাগলের প্রলাপ নিয়ে রাজনীতি করি না। হায়েনার সঙ্গে কথা বলি না, বলবও না।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি উপদেষ্টা তথ্যপ্রযুক্তিবিদ সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণের চেষ্টার প্রতিবাদে এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজের সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লা, নগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া মৃত্যু ও লাশ নিয়ে ব্যবসা করেন দাবি করে মতিয়া চৌধুরী বলেন, সজীব ওয়াজেদ জয়ের অপহরণের সঙ্গে জড়িত এই হাইকমান্ড কে? হাইকমান্ড হচ্ছে ওই (তারেক) ফেরারি আসামি এবং তার মা (খালেদা)। এরা লাশ বেচা লোক। সে কারণেই জিয়াউর রহমানের মৃত্যুর পর বাড়ির ও টাকার বিনিময়ে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান জিয়ার লাশ দেখতে যাননি। আজরাইলের যেমন লাশ দেখে প্রতিক্রিয়া হয় না, তাদেরও কোন প্রতিক্রিয়া হয় না।

মাহবুবউল আলম হানিফ বেগম জিয়ার উদ্দেশে বলেন, এখনও শোধরানোর সময় আছে। হত্যার দায় স্বীকার করে সুস্থ রাজনীতির ধারায় ফিরে আসুন। অন্যথায় আপনাকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হবে। বাংলাদেশ যাতে এগিয়ে যেতে না পারে সেজন্য পাকিস্তানের এজেন্ট খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে। এরই অংশ হিসেবে বঙ্গবন্ধুর নাতি সজীব ওয়াজেদ জয়কে বিএনপির কর্মীরা আমেরিকায় অবস্থানকালে অপহরণের ষড়যন্ত্র করে বলেও মন্তব্য করেন হানিফ।

পেশাজীবীদের মহাসমাবেশ কাল ॥ আন্দোলনের নামে বিএনপি-জামায়াত জোটের পেট্রোলবোমা নিক্ষেপসহ চলমান সন্ত্রাসী কর্মকা-ের প্রতিবাদে আগামীকাল শনিবার বেলা ১১টায় খামারবাড়িস্থ কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে পেশাজীবীদের মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে কোন অবহেলা ও অজুহাত সহ্য করা হবে না ॥ নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার ॥ স্বাস্থ্যসেবা দেয়ার ক্ষেত্রে কোন ধরনের অবহেলা ও অজুহাত সহ্য করা হবে না বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। মাঠ পর্যায়ে হাসপাতালগুলোতে ডাক্তারদের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে তিনি জেলার সিভিল সার্জনসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে কঠোর মনিটরিংয়ের জন্য নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, সীমিত সম্পদ দিয়ে সাধারণ মানুষের সর্বোচ্চ স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ সরকার। হাসপাতালে চিকিৎসক, নার্সসহ চিকিৎসাসেবীদের অবৈধ উপায়ে অনুপস্থিতির অভিযোগ পেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার পাবনা এবং সিরাজগঞ্জ জেলার স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়ন নিয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আলোচনা সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ নির্দেশ দেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সভাপতিত্বে আলোচনায় স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম এবং পাবনা ও সিরাজগঞ্জ জেলার সিভিল সার্জনসহ মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সভায় ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট পাবনা জেনারেল হাসপাতাল, পাবনা মানসিক হাসপাতাল, সিরাজগঞ্জ জেলা হাসপাতালের সংস্কার কার্যক্রম দ্রুত শুরু করার নির্দেশ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, এই হাসপাতালগুলোতে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির অভাব পূরণে দ্রত উদ্যোগ নিতে হবে। পাবনায় নার্সিং ইনস্টিটিউট নির্মাণের কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে হবে।

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫

১৩/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: