কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সুন্দরবনের কাতলার খালে বন্দুকযুদ্ধে ৩ জলদস্যু নিহত

প্রকাশিত : ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • পশ্চিম সুন্দরবনের কাটেশ্বরে বনদস্যু বাহিনী প্রধান জিয়া, তার টুআইসি মাসুমসহ চার জন র‌্যাবের হাতে ধৃত

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট থেকে ॥ পূর্ব সুন্দরবনে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ‘সাগর-সৈকত বাহিনীর’ তিন দস্যু নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরে শরণখোলা রেঞ্জের চাঁদেশ্বর ফরেস্ট ক্যাম্পসংলগ্ন কাতলার খাল এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধে নিহতরা হলো, সাদ্দাম (২৯), সোহেল (২৫) ও অজ্ঞাতনামা (২৫)। র‌্যাব ঘটনাস্থল থেকে ১২ দেশী-বিদেশী আগ্নেয়াস্ত্র, ৫৫ রাউন্ড তাজা গুলি ও দস্যুদের ব্যবহৃত বিভিন্ন ধরনের সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়েছে বলে র‌্যাব-৮-এর অধিনায়ক কর্নেল ফরিদুল আলম জানিয়েছেন। অপরদিকে, পশ্চিম সুন্দরবনের কাটেশ্বরে র‌্যাবের অভিযানে আটক হয়েছে বনদস্যুবাহিনী প্রধান জিয়া, তার টুআইসি মাসুমসহ চারজনকে। এ ঘটনায় বনজীবীরা স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। তারা দস্যু দমন অভিযান আরও জোরদারের আবেদন জানান।

র‌্যাব সদর দফতর মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক মাকসুদুল আলম ও র‌্যাব ৮-এর উপ-অধিনায়ক মেজর আদনান কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সুন্দরবনের ওই এলাকায় দস্যুরা অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব সেখানে অভিযান চালায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের লক্ষ্য করে দস্যুরা গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টাগুলি চালায়। উভয়পক্ষে প্রায় আধা ঘণ্টার বন্দুকযুদ্ধ হয়। এক পর্যায়ে দস্যুরা পালিয়ে গেলে র‌্যাব সদস্যরা বনের ভেতরে অভিযান চালিয়ে তিনজনের মৃতদেহ, ১২ দেশী-বিদেশী অস্ত্র, ৫৫ রাউন্ড তাজা গুলি ও দস্যুদের ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জামাদিসহ সাগর-সৈকত বাহিনীর টোকেন (চাঁদা আদায়ের রসিদ) উদ্ধার করে। নিহত তিন বনদস্যুর মধ্যে বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার সাদ্দাম (২৯) ও সোহেল (২৫)। অপর দস্যুর নাম জানা যায়নি।

স্টাফ রিপোর্টার সাতক্ষীরা থেকে জানান, সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জে অভিযান চালিয়ে বনদস্যু বাহিনীপ্রধান জিয়া ও তার সেকেন্ড ইন কমান্ড মাসুমসহ চার বনদস্যুকে আটক করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব-৬) সদস্যরা। এ সময় তাদের আস্তানা থেকে ১৩টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। অভিযান শেষে বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে সাতক্ষীরার সুন্দরবন সংলগ্ন শ্যামনগর উপজেলার নীলডুমুর ৩৪ বিজিবি ব্যাটালিয়নে র‌্যাব-৬ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল ইনামুল আরিফ সুমন এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে পশ্চিম সুন্দরবনের কাটেশ্বর এলাকায় বনদস্যু জিয়া বাহিনীর আস্তানায় অভিযান চালায় র‌্যাব। আটক অন্য দু’জন হলেন জিয়া বাহিনীর সক্রিয় সদস্য আলাউদ্দিন ও শিমুল।

র‌্যাব-৬ সাতক্ষীরা ক্যাম্প কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন, কাটেশ্বর এলাকায় বনদস্যু জিয়া বাহিনীর আস্তানায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় উদ্ধারকৃত অস্ত্রগুলোর মধ্যে একটি শূটারগান, নয়টি পাইপগান, তিনটি এলজি ও ৭ রাউন্ড গুলি রয়েছে।

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতে জিয়াবাহিনীর প্রধান জিয়া, তার সেকেন্ড ইন কমান্ড মাসুম ও সদস্য আলাউদ্দিনকে কুষ্টিয়া থেকে এবং শিমুলকে কলারোয়া উপজেলা থেকে আটক করা হয়। পরে তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বৃহস্পতিবার বিকেলে সুন্দরবনে অভিযান চালায় র‌্যাব।

প্রকাশিত : ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৭/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: