কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

উড়ালের অপেক্ষায় বিহঙ্গ

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

রাশিয়ান ঔপন্যাসিক লিও তলস্তয় তার উপন্যাস ‘ওয়ার এ্যান্ড পীস’-এ দেখিয়েছেন, যতদিন ফ্রান্স রাশিয়ার উপর চেপে বসেছিল ততদিন ওয়ার তথা যুদ্ধ। যেদিন রাশিয়া থেকে ফ্রান্স বিদায় নিল, সেদিন থেকে পীস তথা শান্তি। যুদ্ধ নয় বরং শান্তি চাই- কথাটা বিশ্ববাসীর একান্ত চাওয়া হলেও বিশ্ব তো আজ যুদ্ধময়। বিশ্বযুদ্ধ আজ আর নেই কিন্তু যুদ্ধ ছড়িয়েছে সারাবিশ্বে। সমাজবদ্ধ মানুষ আজ সমাজ দ্বারা বিদ্ধ। রাজনীতি, অর্থনীতি, কূটনীতি, সমাজনীতি প্রভৃতির আধিপত্যের কারণে মানুষের প্রাণ যখন ওষ্ঠাগত, ধরিত্রী বসবাসের জন্য যখন অনুপযুক্ত তখন তো মনে হতেই পারে পাখীর মতো সুর-তাল-লয় নিয়ে উড়ে উড়ে ঘুরে ঘুরে মুক্তির স্বাদ খুঁজে পাওয়া যায় কিনা। পাওয়ার অন্বেষণে সম্প্রতি দেখা মিলল শিল্পকলা একাডেমির মহড়া কক্ষে নবীন নাট্যদল ঢাকা আর্ট থিয়েটার প্রযোজিত বিহঙ্গ নাটকের মহড়া চলাকালে।

মহড়ায় একঝাঁক তরুণ অভিনেতা-অভিনেত্রী, নিদের্শক মেহেদী তানজিরের বহুমুখী নির্দেশনায় কখনও পাখী হচ্ছে, কখনও স্তানিসল্যাভস্কির মেথড মেনে মাতালের অনুকরণে মাতলামো করছে, কখনও মার্শাল আর্টের ভিত্তি দৃঢ় মনোযোগ সংযোগে কার্যকারণ অনুধাবন করছে, কখনও মাইকেল চেখভের কাল্পনিক জগত ভাবনার আলোকে অদেখাকে দেখছে আবার নো নাটকে দক্ষ তাদাসি সুজুকির মেথড মেনে পায়ের মুদ্রার আঙ্গিকে ছন্দ আনছে, কখনও বা জুয়েল আইচের জাদুর নাটকীয় ভঙ্গিমায় শান্তি চুক্তিতে অদৃশ্য থেকে ফুলের সমাহার কিংবা তলোয়ারের ঝনঝনাতি যুদ্ধের দামামার অবতারণ করছে, যা চেয়ে চেয়ে দেখার মতন। অভিনেতা-অভিনেত্রী-কলাকুশলীদের আন্তরিকতার ছোঁয়া প্রবল, ভিন্ন কিছু করে দেখাতে মরিয়া, তথাপি মুখে বোল বলা আর হাতে করে দেখানোর মধ্যে যতটুকু পার্থক্য ততটুকু পার্থক্য দৃশ্যত দৃশ্যমান। দৃশ্যত গ্রীসের নাট্যকার আরিস্তফানিসের লেখা নাটক ‘বিহঙ্গ’-এর ভবঘুরে চরিত্রদ্বয় ইউরিপাইডিস এবং পিথেটেরাস বুঝে যায় পৃথিবীতে বসে শান্তির অন্বেষণ দুরূহ। ট্রকাইলুসের দেখানো পথে পাখীর জীবনযাপনে পিথেটেরাসের নেতৃত্বে ধর্মব্যাবসায়ীর সৃষ্ট বিভেদ, ভবিতব্যের ফেরিওয়ালার আশঙ্কা, ইন্সপেক্টরের যাতনা, আইন প্রয়োগকারীদের প্রহসন প্রভৃতির মোকাবেলায় শেষ পর্যন্ত যেভাবে সফল হয় শান্তিময় নগর স্থাপনে, আসমান-জমিনের ব্যবধানকে ঐক্যের বন্ধনে এককাতারে নিয়ে আসে বিহঙ্গ রচনার মধ্যে দিয়ে ঠিক তেমনি ভাবে মহড়া পর্যবেক্ষণ সাপেক্ষে ভাবতে পারাই চলে, মঞ্চে ঢাকা আর্ট থিয়েটার সফল উড়াল দিতে সক্ষম হবে বিহঙ্গের মঞ্চায়নের মধ্যে দিয়ে। দলের সভাপতি আবুল কালাম আজাদের কণ্ঠে তাই জোরালো বিশ্বাস, ঢাকা আর্ট থিয়েটার এ প্ল্যাটফরম ফর থিয়েটার প্রফেশনালস এবং দর্শককে ভাল কিছু উপহার দিতে যা যা কিছু করা দরকার তা করা হবে নাটকীয়তার সঙ্গে নান্দনিক ভাবে। নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছে সিমি, মিনা, সুমাইয়া, লাবনী, পলাশ, মেহেদী, রাজন, শিমুল, প্রিন্স, চন্দ্রন, কাঞ্চন, রাশেদ, সজিব, আহসান, মুক্তারসহ অনেকে।

ু মহড়াকক্ষ থেকে

অপূর্ব কুমার কু-ুু

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৬/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: