মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

আইভরিকোস্ট, ঘানা সেমিতে

প্রকাশিত : ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • আফ্রিকান নেশন্স কাপ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আফ্রিকান নেশন্স কাপ ফুটবলের সেমিফাইনালে উঠেছে আইভরিকোস্ট ও ঘানা। রবিবার রাতে কোয়ার্টার ফাইনালে আইভরিকোস্ট ৩-১ গোলে আলজিরিয়াকে ও ঘানা ৩-০ গোলে পরাজিত করে গিনিকে। এর আগে শনিবার শেষ চার নিশ্চিত করে ডিআর কঙ্গো ও ইকুয়েটোরিয়াল গিনিও। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে সেমিতে একে অপরের মুখোমুখি হবে ডিআর কঙ্গো-আইভরিকোস্ট ও ঘানা-ইকুয়েটোরিয়াল গিনি। ৪ ও ৫ ফেব্রুয়ারি দুটি সেমিফাইনাল ও ৮ ফেব্রুয়ারি ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। আলজিরিয়ার বিরুদ্ধে ম্যানচেস্টার সিটির ফরোয়ার্ড উইলফ্রেড বোনির হেডে ২৬ মিনিটে এগিয়ে যায় আইভরিকোস্ট। ৫১ মিনিটে ফরোয়ার্ড হিল্লেল সৌডানি গোল করে আলজিরিয়াকে সমতায় ফেরান। তবে ৬৮ মিনিটে আবারও হেডে গোল করে আইভরিকোস্টকে এগিয়ে নেন বোনি। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে (৯৪ মিনিট) জারভিনহো গোল করে ব্যবধান আরও বাড়ান। আরেক ম্যাচে গিনির বিরুদ্ধে ঘানার হয়ে জোড়া গোল করেন এভারটনের স্ট্রাইকার ক্রিশ্চিয়ান আটসু। অন্য গোলটি আরেক স্ট্রাইকার কোয়েসি আপিয়াহর। শেষ মিনিটে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন গিনির গোলরক্ষক নাবি মুসা ইয়াতারা।

এর আগে অঘটনের জন্ম দিয়ে আফ্রিকান নেশন্স কাপ ফুটবলের সেমিফাইনালে নাম লেখায় স্বাগতিক ইকুয়েটোরিয়াল গিনি। শনিবার রাতে শেষ আটের ম্যাচে ইকুয়েটোরিয়াল গিনি ২-১ গোলে পরাজিত করে শক্তিশালী তিউনিশিয়াকে। একই দিন শেষ আটের আরেক ম্যাচে কঙ্গোকে ৪-২ গোলে হারিয়ে শেষ চার নিশ্চিত করে ডিআর কঙ্গো। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ইকুয়েটোরিয়াল গিনির অবস্থান ১১৮তম। আর তিউনিশিয়া ২২তম। এ কারণে অনেকেই ধারণা করেছিলেন সহজেই জয় পাবে তিউনিশিয়া। প্রত্যাশিত সেই জয়ের পথেই হাঁটছিল দলটি। স্ট্রাইকার আহমেদ আকাইসির গোলে ৭০ মিনিটে এগিয়ে যায় তিউনিশিয়া। এই গোলেই সেমির পথে ছিল দলটি। কিন্তু বাগড়া বাঁধে ম্যাচের অন্তিম মুহূর্তে। নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষে যোগ করা সময়ের খেলা চলছিল। এই সময়ও শেষ হয়ে যায়। কিন্তু ৯৩ মিনিটে স্বাগতিকদের পক্ষে বিতর্কিত পেনাল্টি দেন রেফারি রাজিন্দ্রপ্রসাদ। স্পট কিক থেকে গোল করে গিনিকে সমতায় ফেরান জ্যাভিয়ের বালবোয়া। এরপর ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে। এ সময় ১০২ মিনিটে ২৫ গজ দূর থেকে বালবোয়া দুর্দান্ত ফ্রি কিক থেকে গোল করে গিনিকে ইতিহাস গড়া জয় এনে দেন। প্রাণঘাতী ইবোলা ভাইরাসের কারণে মরক্কো আফ্রিকান নেশন্স কাপ আয়োজন করতে অপারগতা জানালে আসরটির নতুন স্বাগতিকের মর্যাদা পায় বিষুবীয় গিনি।

জুনায়েদ খানের বিশ্বকাপ শেষ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আরও এক ধাক্কা পাকিস্তান ক্রিকেট। আসন্ন বিশ্বকাপের দল থেকে ছিটকে গেলেন পেসার জুনায়েদ খান। ফিটনেস পরীক্ষায় ব্যর্থ হওয়ায় শেষ মুহূর্তে বাদ পড়লেন দ্রুতগতির বাঁহাতি এই পেসার। ‘জুনায়েদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়েছে। এখনও ফিটনেসে যথেষ্ট ঘাটতি ওর, বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে খেলার অবস্থায় নেই সে।’ বলেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) এক মুখপাত্র। তার পরিবর্তে কাকে নেয়া হচ্ছে, খুব শীঘ্রই সেটি জানিয়ে দেয়া হবে। ১৫ জানুয়ারি লাহোরে অনুশীলনকালে হাঁটুর ইনজুরিতে পড়েন জুনায়েদ। ফলে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচের ওয়ানডে থেকে সরিয়ে নেয়া হয়। পরিবর্তে নির্বাচকরা বিলাওয়াল ভাট্টিকে আগেই পছন্দ করে রেখেছিলেন।

প্রকাশিত : ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৩/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: