রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জাবি ছাত্র জুবায়ের হত্যা মামলার রায় ৪ ফেব্রুয়ারি

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থী স্বজনদের

জাবি সংবাদদাতা ॥ বহুল আলোচিত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জুবায়ের হত্যা মামলার রায় আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি। উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে ঢাকার চার নং দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এবিএম নিজামুল হক এ রায়ের দিন নির্ধারণ করেন। এদিকে জাবির ইংরেজী বিভাগের ৩৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থী জুবায়ের আহমেদ হত্যার রায়ের অপেক্ষায় থাকা তার পরিবার, সহপাঠী, শিক্ষার্থী-শিক্ষকসহ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন। ইংরেজী বিভাগের শিক্ষার্থী জুবায়ের আহমেদ ২০১২ সালের ৮ জানুয়ারি প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হয়ে পরদিন ৯ জানুয়ারি ঢাকার একটি হাসপাতালে মারা যান। এ হত্যার বিচারের দাবিতে সে সময় ‘সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা, পরে শিক্ষকরাও এ আন্দোলনে অংশ নেন। হত্যা মামলার বিচারের দাবিতে নানা আন্দোলনের পরও ৩ বছর লেগে গেল এ রায় দিতে। ওই আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক তামজিদা তুবা বলেন, আমাদের দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হতে যাচ্ছে। আসামিদের রাষ্ট্রীয় আইনে সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি। রায়ের বিষয়ে জাবি উপাচার্য ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, এই হত্যাকা-ের ন্যায়বিচার হোক এবং দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হোক। বামপন্থী শিক্ষক রায়হান রাইন বলেন, দোষীদের যথাযথ শাস্তি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে বিশ্ব^বিদ্যালয় হত্যাকা- ঘটানোর স্থান নয়। জুবায়ের হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করে জাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহমেদ রাসেল বলেন, দোষীরা যে দলেরই হোক সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি। সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করে ‘সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে বিবৃতি দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। সংগঠনের পক্ষ থেকে সুজাউদ্দৌলা প্রেরিত বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ইতোপূর্বে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘটিত কোন হত্যাকা-েরই বিচার হয়নি। যা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সন্ত্রাস ও হত্যাকা-কে উৎসাহিত করেছে। ফলে একের পর এক খুনের ঘটনা ঘটছে।

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০২/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: