আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ব্যবহার অনুপযোগী ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিস

প্রকাশিত : ৩০ জানুয়ারী ২০১৫
  • ৮ আবাসিক কোয়ার্টার ঝুঁকিপূর্ণ

স্টাফ রিপোর্টার, ঈশ্বরদী ॥ ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিস ও কর্মচারীদের স্টাফ কোয়ার্টার ৪৮ বছরেও সংস্কার হয়নি। দীর্ঘদিন মেরামত ও সংস্কার না করায় মারাত্মক ঝুঁকির মুখে রয়েছে। যে কোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। কোয়ার্টারের ছাদ, দরজা ও জানালা ভেঙ্গে যাওয়ায় টিন দিয়ে ঘিরে কোয়ার্টারে ঝুঁকির মধ্যে বসবাস করছেন কর্মচারীরা। ভুক্তভোগীদের দেয়া অভিযোগ সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। সূত্রমতে, ঈশ্বরদী বিমানবন্দর অফিসের নিকটে অবস্থিত বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার পাইলট বেলুন অবজারভেটরি (পিবিও) অফিস। ১৯৬৫ সালে ৫ একর জমির ওপর প্রতিষ্ঠিত হয় অফিসটি। এখানে একজন অফিসারসহ ২৬টি পদ রয়েছে। এর মধ্যে ১৭ জন কর্মরত রয়েছেন। মূল অফিসের জন্য দ্বিতল একটি ভবন রয়েছে। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য রয়েছে ৮টি আবাসিক কোয়ার্টার। অফিস ভবনটি ২০১০ সালে কিছুটা সংস্কার করা হলেও তা এখন খুবই ঝঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। তবে কোয়ার্টার নির্মিত হবার পর ৪৮ বছর অতিবাহিত হলেও সংস্কার কাজ করা হয়নি। কোয়ার্টারগুলো বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। পাবনা গণপূর্ত বিভাগ ১০ বছর আগে এসব আবাসিক কোয়ার্টার বসবাসের অনুপযোগী ঘোষণা করলেও ইমার্জেন্সি সার্ভিসের প্রয়োজনে অফিসে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বাধ্য হয়েই বসবাস করছেন। বর্তমানে কোয়ার্টারের সকল দরজা-জানালা ভেঙ্গে পড়েছে। এখানে স্যানিটেশন, পানি, বিদ্যুত কোন কিছুরই ব্যবস্থা নেই। ছাদের প্লাস্টার ভেঙ্গে রড বেরিয়ে গেছে। ফলে সামান্য বৃষ্টি হলেই ছাদ দিয়ে পানি পড়ে। তাই বাধ্য হয়ে কর্মচারীরা নিজ খরচে টিন দিয়ে বিকল্প জানালা ও দরজা তৈরি করে নিয়েছে। এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ফরমান আলী জানান, ইমার্জেন্সি সার্ভিসের প্রয়োজনে জরাজীর্ণ স্টাফ কোয়ার্টারেই ঝুঁকিপূর্ণভাবে কর্মচারীরা বসবাস করছেন। তিনি বলেন, গত বছরের সেপ্টেম্বরে এখানকার সকল ভবনের জরাজীর্ণ অবস্থা তুলে ধরে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য আবহাওয়া অধিদফতরে একটি প্রতিবেদন পাঠানো হয়।

লাইব্রেরি আন্দোলন এগিয়ে নিতে মুন্সীগঞ্জে জ্ঞান প্রতিযোগিতা

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহরের জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জ্ঞান প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ৩০ শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। প্রতিযোগিতায় ৩টি গ্রুপে জেলার সাড়ে ৮ হাজার শিক্ষার্থী অংশ নেয়। লাইব্রেরি আন্দোলন এগিয়ে নিতে শিশুদের পরিচালতি প্রথম গ্রন্থাগার মুন্সীগঞ্জের লাইব্রেরি ফর দ্য চিল্ড্রেন এই ব্যতিক্রম আয়োজন করে। জমকালো এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক মোঃ সাইফুল হাসান বাদল। লাইব্রেরির উপদেষ্টা মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বলের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন সরকারী হরগঙ্গা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ সিরাজুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক সুখেন চন্দ্র ব্যানার্জী, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান, লাইব্রেরির সভাপতি মোঃ ফারুক হোসেন, সাংগঠনিক সস্পাদক মারুফ হাসান তাবরীজ, শিশু বায়েজিত, জিতু, সবুজ জাকিয়া ও সাগর। পরে সৃজনশীল কাজে অবদান বরাখার জন্য জেলা প্রশাসককে গুণীজন সম্মাননা প্রদান করা হয়। জ্ঞান চর্চাকে গুরুত্বারোপ করে জেলা প্রশাসক শিশুদের বিনোদন সুবিধাসহ লাইব্রেরির নিজস্ব কার্যালয় স্থাপন এবং জেলার ৬টি উপজেলায় একটি করে শিশুদের এ লাইব্রেরি স্থাপন ও ২৫ হাজার করে টাকার বই কিনে দেয়ার ঘোষণা দেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দর্শক হৃদয় জয় করে।

প্রকাশিত : ৩০ জানুয়ারী ২০১৫

৩০/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: