মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

চিড়াকুঠা সাঁওতাল পল্লী পুরুষশূন্য হামলাকারীরা গ্রেফতার হয়নি

প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারী ২০১৫
  • আদিবাসী ছাত্র পরিষদের মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর ॥ ‘হামি ব্যারামী মানুষ। হামাক দড়ির খাট থাকি ফেলাই দিয়া, হামলাকারীরা খাটটাও নিয়ে গেইল। ২ দিন ধরি এক কাপড়েই পিন্ধি আছি বাবু। ভাঙ্গা কণ্ঠে কথাগুলো বলছিলেন ৮০ বছর বয়সী বৃদ্ধা হুপনী মাড্ডি।

মঙ্গলবার দুপুরে ক্ষতিগ্রস্ত দিনাজপুরের চিড়াকুঠা সাঁওতাল পল্লী ঘুরে নানা দুর্দশার চিত্র চোখে পড়ে। থানায় আদিবাসীদের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ায় পুরো সাঁওতাল পল্লী পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে। যুবতী মেয়েরা চলে গেছে নিরাপদ আশ্রয়ে। কোন রকমে ধ্বসংস্তূপ পাহারা দিচ্ছেন বৃদ্ধ ও বিবাহিত নারীরা। গ্রামটিতে নিরাপত্তা দিতে পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। হত্যা মামলায় ১৯ সাঁওতালকে গ্রেফতার করা হলেও তা-ব, লুটতারাজ ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় অপরপক্ষের এখন পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি। হামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছে আদিবাসী ছাত্র পরিষদ। উত্তর চিড়াকুঠা গ্রামের আদিবাসী নারী প্যাড গ্রুফ সমিতির সভানেত্রী বিমলা টুডু জানান, তার গ্রামের কমপক্ষে ৬০টি বাড়িতে লুটতারাজ করেছে হামলাকারীরা। আদিবাসী পল্লীর বার্না টুডুর স্ত্রী সামীনা টুডু বলেন, শত শত মানুষ তাদের পল্লীতে হামলা চালায়। বাড়ি-ঘরে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট করে। গ্রামে ব্র্যাক ও কারিতাশ পরিচালিত দুটি স্কুলে ৬৫ জনের মতো সাঁওতাল শিশু লেখাপড়া করে। তাদের সবার বইপুস্তক পুড়ে গেছে। স্কুল ভেঙ্গে দেয়ায় পাঠদান বন্ধ হয়ে গেছে।

জাতীয় আদিবাসী পরিষদের সভাপতি রবিন্দ্র নাথ সরেন বলেন, গ্রামে আতঙ্ক বিরাজ করায় পুরুষ মানুষ ও যুবতী মেয়েরা বাড়ি ছেড়েছে। এসএসসি পরীক্ষার্থী চুন্নু টুডু, এইচএসসি পরীক্ষার্থী জিঠু টুডু, রাকিব টুডু ও জীবন রুবেন টুডুকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। অথচ হামলাকারীদের কেউই এখন পর্যন্ত গ্রেফতার হয়নি। রংপুর কারমাইকেল অনার্স ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী দীপালী টুডুর আগামী ৩০ জানুয়ারির পরিবার পরিকল্পনা অফিসে চাকরির পরীক্ষা দেয়ার কথা। কিন্তু তার প্রবেশপত্র আগুনে পুড়ে যাওয়ায় পরীক্ষা দেয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাহেনুল ইসলাম বলেন, আদিবাসী-নারী পুরুষদের যাতে কোন সমস্যা না হয় সে জন্য তাদের রান্না করা খাবার দেয়া হয়েছে। শীত নিবারণের জন্য কম্বল, রান্না করার জন্য তৈজস্বপত্র এবং ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করেছে। গৃহ নির্মাণের জন্য টিনসহ সব ধরনের সহায়তা দেয়া হবে। পার্বতীপুর মডেল থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) মাহমুদুল আলম বলেন, হত্যাকা-ের ঘটনায় ২৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে নিহতের চাচা মাহমুদুল হক। এদের মধ্যে ১৯ জনকে সাঁওতাল পল্লী থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সাঁওতালদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। এ পর্যন্ত লুট হওয়া ১০টি গরু ও একটি শেলাই মেশিন উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ক্ষতিগ্রস্ত সাঁওতালরা এখন পর্যন্ত থানায় কোন মামলা করেননি। উল্লেখ্য, পার্বতীপুর উপজেলার হবিতপুর চিড়াকুঠা গ্রামের ঝর্ণা টুঢু, হাবিল টুডু ও গোডা টুডুদের পার্শ্ববর্তী বড়দল সরকারপাড়া গ্রামের জহুরুল হকের ১৪ একর জমি নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে মামলা চলছিল। শনিবার সকালে জহুরুল হক তার পুত্র সোহাগকে সঙ্গে নিয়ে বোরো চাষের জমি তৈরির জন্য মাঠে যায়। এ সময় ১৫-২০ জনের একটি আদিবাসী দল তাদের বাধা দেয়। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে তীরবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান সোহাগ। আহত হন জহুরুল হক, আদিবাসী রাকিব টুডু, রোবেন টুডু, কাবলু টুডুসহ কমপক্ষে ১৫ জন।

প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারী ২০১৫

২৮/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: