কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

খালেদাকে হুকুমের আসামি করা মাস্টার প্লানের অংশ ॥ রিজভী

প্রকাশিত : ২৭ জানুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ডেমরায় যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়ে ৩৫ জনকে দগ্ধ করা, এ ঘটনায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদাসহ দলের নেতাকর্মীদের হুকুমের আসামি করাকে সরকারের মাস্টার প্লানের অংশ বলে দাবি করেছে বিএনপি। সোমবার দলের দফতর সম্পাদক রুহুল কবির রিজভী এক বিবৃতিতে বলেন, কয়েক দিন ধরেই জনশ্রুতি ছিল সরকার নিজেই একটা বড় ধরনের নাশকতা করবে, যাতে পুরো দায়টা বিরোধী দলের ওপর চাপানো যায়। সরকার তার দুঃশাসন টিকিয়ে রাখতে ভয়াল ঘাতকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। সারাদেশজুড়ে ঘটানো হচ্ছে অমানবিক নাশকতার বীভৎস ঘটনা।

অজ্ঞাত স্থান থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি উল্লেখ করেন, পেট্রোলবোমা মেরে মানুষকে দগ্ধ করার বিরামহীন দৃশ্য দেখানো হচ্ছে টেলিভিশনে। বার্ন ইউনিটের অমানবিক দৃশ্যকে কেন্দ্র করে হাইপার প্রচারাভিযান চালানো হচ্ছে বিরোধী দলের আন্দোলনের বিরুদ্ধে। ২৩ তারিখ রাতে ডেমরায় বাসে আগুন দিয়ে ৩৫ আরোহীকে অগ্নিদগ্ধ করা হলো। আর তার পরের দিন শোকে কাতর সন্তানহারা মা খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে মামলা দেয়া হলো। সমগ্র ঘটনাটাই একটা মাস্টার প্লানের অংশ বলে সর্বসাধারণ বিশ্বাস করে।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একেকদিন একেকজন কর্মকর্তার বক্তব্য শুনলে মনে হয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অস্ত্র যেন আওয়ামী লীগের তহবিল থেকে কেনা। এ অস্ত্র ব্যবহারে কোন জবাবদিহিতার দরকার নেই বলে তারা মনে করে। র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেছেন, বিচারবহির্ভূত হত্যা বলে নাকি কিছু নাই। রিজভী আহমেদ প্রশ্ন রেখে বলেন, খিলগাঁও ছাত্রদল নেতা নুরুজ্জামান জনিকে কোন বিচারের আওতায় প্রাণদ- দেয়া হয়েছে? কোন আদালতের রায়ে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর স্বামীকে ধরে নিয়ে গিয়ে হত্যা করা হয়? সপ্তাহখানেক আগে দলের চারজন কর্মীকে ধরে নিয়ে টার্গেট করে হত্যা করা হয় কোন বিচারে?

তিনি বলেন, দুঃশাসন টিকিয়ে রাখতে রাষ্ট্র এখন ভয়াল ঘাতকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও নাগরিক অধিকারহীন একদলীয় রাষ্ট্র ব্যবস্থায় সরকারী কর্মচারীদের দলের আনুগত্য করা বাধ্যতামূলক করা হয়। সেখানে নিরপেক্ষতা ও জবাবদিহিতার প্রশ্ন করা যায় না। বাংলাদেশে চোখের ইশারাও যদি কাউকে সরকারবিরোধী মনে হয়, তাহলে তাকে নিপীড়নের শিকার হতে হবে; সেই নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি এখন বাংলাদেশে বিরাজমান।

প্রয়াত সৌদি বাদশাহর প্রতি শোক বিএনপির ॥ সৌদি আরবের প্রয়াত বাদশাহ আবদুল্লাহ বিন আবদুল আজিজের মৃত্যুতে শোকবার্তা পাঠিয়েছে বিএনপি। সোমবার বিএনপি চেয়ারপার্সনের পক্ষে একটি প্রতিনিধি দল বাংলাদেশের সৌদি দূতাবাসে যান। তারা সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত আবদুল্লাহ বিন নাসের আল বাসিরির মাধ্যমে এ শোক বার্তা জানন। প্রতিনিধি দল ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ ও চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সাবিহ উদ্দিন আহমেদ। এ সময় প্রতিনিধি দলটি দলীয় চেয়ারপার্সনের পক্ষে দূতাবাসে রাখা শোকবইতে স্বাক্ষর করে।

প্রকাশিত : ২৭ জানুয়ারী ২০১৫

২৭/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: