মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাজেট ঘাটতি হ্রাসে ব্যর্র্থ মোদি!

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫

নরেন্দ্র মোদি। পুরো ভারতে ঝড় তুলেছিলেন। মোদি ঝড়। সেই ঝড়ে কাবু করেছিলেন ক্ষমতাসীন কংগ্রেসকে। ভারতবাসীকে স্বপ্ন দেখিয়ে দিল্লীর মসনদে আসীন হয়েছিলেন। দায়িত্ব গ্রহণের পর তিনি বিগত সাত বছরের মধ্যে বাজেট ঘাটতি সর্বনিম্নে নিয়ে আসার অঙ্গীকার করেছিলেন। রাজস্ব ঘাটতি জিডিপির ৪ দশমিক ১ শতাংশে নামিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কংগ্রেস আমলের শেষ দিকে রাজস্ব ঘাটতি বেড়ে যাওয়ায় ভারতের ঋণমান নেমে যাওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছিল। বিদেশীরা বিনিয়োগ থেকে মুখ ঘুরিয়ে নেয়া শুরু করেছিল। বিনিয়োগকারীদের আগ্রহী করার জন্য অর্থনীতিকেন্দ্রিক রাজনীতির কথা সে সময় থেকে বলা শুরু করেন নরেন্দ্র মোদি। এই কথা, এই প্রতিশ্রুতি ভোটারের মন কেড়েছে। বিনিয়োগকারীদের মন কেড়েছে। ক্ষমতায় বসেই তিনি ব্যয় নিয়ন্ত্রণ, বেসরকারীকরণ এবং অন্যান্য উৎস থেকে রাজস্ব বৃদ্ধি করে বাজেট ঘাটতি হ্রাস করার পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু পরিকল্পনার পরি উড়ে যেতে বসেছে। ব্যয় নিয়ন্ত্রণ করা যেমন সম্ভব হয়নি, তেমনি অন্যান্য উৎস থেকেও কাক্সিক্ষত মাত্রায় রাজস্ব আদায় সম্ভব হয়নি। এতে অর্থবছরের প্রথম নয় মাসে বাজেট ঘাটতি হ্রাসের কোন লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।

পরিকল্পনা বাস্তবায়নে মোদি জ্বালানিতে ভর্তুকি কমিয়ে দিয়েছেন। জ্বালানি তেলের ওপর কর বাড়িয়েছেন। স্থানীয় গাড়ি নির্মাতাদের কর সুবিধার বিরুদ্ধে অবস্থা দিয়েছেন মোদির মন্ত্রিসভার অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। প্রতিরক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ খাতে বিদেশী বিনিয়োগ বাড়াতে সক্ষম হয়েছেন মোদি। বেসরকারীকরণের মাধ্যমে ৪৩৫ বিলিয়ন রুপি ইতোমধ্যে আয় করেছে সরকার। কিন্তু কাক্সিক্ষত মাত্রায় বাজেট ঘাটতি হ্রাসের জন্য বেসরকারীকরণের মাধ্যমে যে পরিমাণ অর্থ আয় করার দরকার ছিল তা আয় করেতে পারছে না সরকার। এর কারণ কয়লাখনির লাইসেন্স বিক্রি, বীমা খাতে বিদেশী বিনিয়োগসীমা বাড়ানোর মতো সরকারী উদ্যোগগুলো আটকে আছে বিরোধীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায়। হাতে আর মাত্র তিন মাস। এই সময়ের মধ্যে কোনভাবেই বাজেট ঘাটতি হ্রাসে মোদির প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের কোন সম্ভাবনা দেখছেন না অর্থনীতি বিশ্লেষকরা। এমনকি সরকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ার বিক্রি করে রাজস্ব বাড়িয়ে লক্ষ্য পূরণের সম্ভাবনাও দেখছেন না তাঁরা। তাঁদের শঙ্কা, মোদি তাঁর প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে পারছেন না। আর এতে বিনিয়োগকারীদের মাঝে নেমে আসতে পারে হতাশা।

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫

১১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: