রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চালককে হত্যা করে বাইক বিক্রি করতে গিয়ে দুই যুবক গ্রেফতার

প্রকাশিত : ৪ জানুয়ারী ২০১৫
  • বিক্ষোভ, বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর, ৩ জানুয়ারি ॥ নিখোঁজের তিন দিন পর শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মাদারীপুর সদর উপজেলার পশ্চিমরাস্তি গ্রামের বোরহান মাতুব্বর (২০) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে মাদারীপুর সদর থানা পুলিশ। এ ঘটনায় হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে দুর্বৃত্তদের বাড়িঘরে আগুন ধরিয়ে দেয় এলাকাবাসী।

জানা গেছে, ৩১ ডিসেম্বর রাতে পশ্চিমরাস্তি গ্রামের রবিউল মাতুব্বরের ছেলে বোরহান মাতুব্বরের ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল ভাড়া নেয় সজিব ও মিঠুন নামে দুই যুবক। এর পর থেকে বোরহান নিখোঁজ হয়। এরই মধ্যে সাতক্ষীরার তালা এলাকায় সজিব ও মিঠুন মোটরসাইকেল বিক্রি করতে যায়। এ সময় মাদারীপুরের একটি ইটভাঁটিতে কাজ করে সাতক্ষীরার বাসিন্দা কালাম নামে এক লোক তাদের চিনতে পারে। এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে আটক করে সজিব ও মিঠুনকে। তারা খবর দেয় পুলিশে। মোটরসাইকেল চুরির অভিযোগে সজিব ও মিঠুনকে তালা থানা পুলিশ গ্রেফতার করে। পরে তাদের মাদারীপুর সদর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। এরপরে তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয় মাদারীপুর থানা পুলিশের কাছে। ঘাতকদের দেয়া তথ্য মোতাবেক মাদারীপুর সদর উপজেলা কালিকাপুর গ্রামের আড়িয়াল খাঁ নদী থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে সজিব ও মিঠুন জানায়, আমরা বুধবার রাতে মোটরসাইকেল ভাড়া করে বোরহানকে কালিকাপুর স্কুলের কাছে নিয়ে যাই। সেখানে বসে ওকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করি। পরে মৃত্যু নিশ্চিত করতে ছুরি দিয়ে শরীরের বিভিন্নস্থানে এলোপাথাড়ি কোপাই। পরে ওর পেট কেটে নদীতে ফেলে দেই। সজিব মাদারীপুর সদর উপজেলার পাঁচখোলা গ্রামের আউয়াল বেপারির ছেলে ও মিঠুন একই এলাকার আব্দুল আলি খানের ছেলে। এদিকে উত্তেজিত এলাকাবাসী ঘাতদের বাড়িঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়।

প্রকাশিত : ৪ জানুয়ারী ২০১৫

০৪/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: