আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জামালপুরে হত্যা মামলা তুলে নিতে প্রাণনাশের হুমকি

প্রকাশিত : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪

নিজস্ব সংবাদদাতা, জামালপুর, ২৮ ডিসেম্বর ॥ জামালপুর সদর উপজেলার ১০নং শ্রীপুর ইউনিয়নের ভালুকা মধ্যপাড়া গ্রামের মোটরসাইকেল চালক মঞ্জুরুল ইসলাম (৩০) হত্যা মামলার আসামিরা জামিনে এসে মামলা তুলে নিতে বাদী ও সাক্ষীদের প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। এ ঘটনায় মামলার বাদী জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

জানা গেছে, সদরের ভালুকা মধ্যপাড়া গ্রামের হাতেম আলীর ছেলে মঞ্জুরুল ইসলাম (৩০)। তার বাবা ২০১২ সনের ১৫ জানুয়ারি ১ লাখ ২৮ হাজার টাকা দিয়ে একটি মোটরসাইকেল কিনে দেয়। মঞ্জুরুল ওই মোটরসাইকেল ভাড়ায় যাত্রী পরিবহন করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিল। কিন্তু তার ওই মোটরসাইকেলটির ওপর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে স্থানীয় একটি চক্রের। ২০১৩ সালের ৫ জানুয়ারি রাত ১১টায় মোটরসাইকেলসহ মঞ্জুরুল নিখোঁজ হয়। পরদিন ৬ জানুয়ারি বাড়ি হতে এক কিলোমিটার দক্ষিণে কেশবপুর মাদরাসা মাঠে স্থানীয়রা তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

এ ঘটনায় তার বাবা হাতেম আলী বাদী হয়ে জামালপুর সদর থানায় একটি মামলা করেন। ওই এলাকার আমজাদ হোসেনের ছেলে কামাল হোসেন (২৭), মৃত জয়েন উদ্দীন খাঁর ছেলে ফজলুল হক ফজুল (৩০), মৃত সিরাজ ফকিরের ছেলে জলিল (৫৫) ও সোয়াদ আলীর ছেলে রফেত আলী (৫৫)কে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায়। মামলার অন্যতম আসামি রফেত আলী ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করে।

প্রকাশিত : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪

২৯/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: