কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ডিমলায় বেওয়ারিশ কুকুরের কামড়ে ১০ শিশু আহত

প্রকাশিত : ২১ ডিসেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ ডিমলা উপজেলাজুড়ে বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রপ অস্বাভাবিকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে পথচারী বিশেষ করে শিশু-কিশোর-কিশোরী, স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীসহ গবাদী পশু রাস্তায় চলাচল মারাত্মক হুমকির মুখে পড়েছে। গত দু’দিনে কুকুরের কামরের শিকার হয়েছে ১০ শিশু। গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার কুকুরে কামরে আহত হয়েছে ডিমলা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে ডিমলা সদর ইউনিয়নের জান্নাতুন সুজানা তিসা (৫), মনি আক্তার (৬), আফরোজা বেগম (৭), নাউতরা ইউনিয়নের মিনি (৪), খালিশা চাপানি ইউনিয়নের সাবেহা (৪), ঝুনাগাছ চাপানি ইউনিয়নের সোহেল (৭), ডিমলা সদর ইউনিয়নের সাবিনা বেগম (৮), সুলতানা পারভিন (৬), গয়াবাড়ী ইউনিয়নের সামছুল হক (১০) ও মালেকা বেগম (৮)। সরকারীভাবে উপজেলা হাসপাতালে কুকুর কামড়ের ভ্যাকসিন না থাকায় বাজার থেকে উচ্চ মূল্যে ভ্যাকসিন ক্রয় করতে হচ্ছে। ডিমলা হাসপাতালের আরএমও ডাক্তার অনুপ কুমার রায় জানায়, কুকুরের কামড়ে ১০ শিশুকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ডিমলা হাসপাতালের কুকুর কামড়ানো ভ্যাকসিন না থাকায় বাধ্য হয়ে বাজার থেকে কিনে ভ্যাকসিন দিতে হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম জানায়, উপজেলায় সর্বত্র বেওয়ারিশ কুকুর আশঙ্কাজনক বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি বলেন, সরকারীভাবে ২০১১ সালে উপজেলা সদরে কুকুর নিধন করা হলেও এরপর কোন বরাদ্দ না আসায় কুকুর নিধন করা সম্ভব হচ্ছে না।

হেরোইন গাঁজা ও ইয়াবাসহ আট মাদক বিক্রেতা আটক

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ দিনাজপুরে এক কেজি হেরোইনসহ এক নারী মাদক বিক্রেতাকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া ভালুকায় ইয়াবা ও গাঁজাসহ ছয়জন, কিশোরগঞ্জে ৩৫ কেজি গাঁজাসহ এক মাদক বিক্রেতা ও বাউফলে ৬০টি স্পটে বসে রমরমা গাঁজা ও ইয়াবার আসর। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের পাঠানো-

দিনাজপুর ॥ কোতোয়ালি থানা পুলিশ শনিবার ভোরে অভিযান চালিয়ে প্রায় ১ কোটি টাকার মূল্যের ১ কেজি হেরোইনসহ ১ মাদক সম্রাজ্ঞীকে গ্রেফতার করেছে।

ভালুকা ॥ ভালুকা মডেল থানা পুলিশ শুক্রবার রাতে উপজেলার হবিরবাড়ি এলাকা থেকে ইয়াবা ও গাঁজাসহ ৬ জনকে আটক করেছে। আটককৃতরালো রহিমা খাতুন (৫৫) ও দুই মেয়ে জেসমিন (২৭) ও রুনা আক্তারকে (২৫), সজীব (১৪), আনোয়ার (১৫) ও মজিবর।

কিশোরগঞ্জ ॥ জেলার কটিয়াদী উপজেলায় ৩৫ কেজি গাঁজাসহ মনির হোসেন নামে এক মাদক বিক্রেতাকে ও একটি প্রাইভেটকার উদ্ধার করেছে হাইওয়ে থানা পুলিশ। আটককৃত মনির কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার ধনাইতলী গ্রামের সুরুজ মিয়ার ছেলে বলে জানা গেছে।

বাউফল ॥ বাউফল এখন হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় গাঁজা ও ইয়াবা। স্থানীয়ভাবে তৈরি হচ্ছে ঝাঁকি। বিভিন্ন ধরনের কাশের সিরাপের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে এ ঝাঁকি তৈরি করা হয়। ঝাঁকির দামও কম। যে কোন ওষুধের দোকান থেকে ৪০-৫০ টাকায় একটি কাশির সিরাপ ও ৫-১০ টাকার মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ৮-১০টি ঘুমের ওষুধ ক্রয় করে তা ওই কাশির সিরাপের মধ্যে মিশিয়ে ভালভাবে ঝাঁকিয়ে তৈরি করা হয়। ইয়াবা এখানে বাবা নামে পরিচিত। পাশাপাশি গাঁজার চাহিদাও রয়েছে ব্যাপক। বেশিরভাগ স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা হচ্ছেন এর ক্রেতা।

প্রকাশিত : ২১ ডিসেম্বর ২০১৪

২১/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: