ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

মহাসড়কে পৌর টোলের নামে চাঁদাবাজি 

সংবাদদাতা,বাকেরগঞ্জ, বরিশাল 

প্রকাশিত: ২১:৪৩, ৪ অক্টোবর ২০২২

মহাসড়কে পৌর টোলের নামে চাঁদাবাজি 

টোলের নামে চাঁদাবাজি 

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় পৌর টোল আদায়ের নামে পৌরসভার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে। উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে বাস স্ট্যান্ড ব্রিজের ঢালে, চৌমাথা মহাসড়কে উপর যানবাহন থামিয়ে টোল আদায় নামে চলছে চাঁদাবাজি। টোল আদায়কে কেন্দ্র করে একদিকে রাস্তায় লেগে থাকে যানজট। 

অন্যদিকে টাকা দিতে না চাইলে চালকদের সঙ্গে আদায়কারীদের ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকে। উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পৌর কর্তৃপক্ষ চাঁদা আদায় কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। 

জানা গেছে, মহাসড়কে যানবাহন থামিয়ে টোল আদায় বন্ধ করতে হাইকোর্টে দায়েরকৃত রিটপিটিশন নং- ৪৬/৪০/২০২২ এর মোতাবেক গত ২১ এপ্রিল আদেশের আলোকে টার্মিনাল ব্যতিরেকে কোনো সড়ক বা মহাসড়ক থেকে টোল উত্তোলন না করার জন্য সকল সিটি কর্পোরেশন  ও পৌরসভার মেয়র দের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বিজ্ঞপ্তি জারি করে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ হতে নির্দেশনা প্রদান করা হয়। 

গত ২৫ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের অনুলিপি অনুযায়ী টার্মিনাল ছাড়া টেন্ডার হয় না। আর টেন্ডার ছাড়া টোল আদায় করা যায় না। পৌরসভার বিধানের ৯৮ ধারার ৭ নং অনুচ্ছেদ অনুসারে শুধু মাত্র পৌর মেয়র নির্মত টার্মিনাল ছাড়া পার্কিং ফিথর নামে টোল আদায় সম্পূর্ণ অবৈধ। 

অথচ বছরের পর বছর ধরে পৌর উন্নয়নের নামে বাকেরগঞ্জ পৌর বাস টার্মিনাল টোল আদায়ের রসিদ দিয়ে মহাসড়কের একাধিক স্থানে চাঁদাবাজি চলছে। অথচ বাকেরগঞ্জ কোনো বাস টার্মিনাল নেই। 

এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে সিটি এলাকা, জেলা, উপজেলা ও পৌর এলাকার সকল প্রশাসনকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। টার্মিনালের বাইরে রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে টোল আদায় অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। 

কিন্তু আদালতের নিষেধাজ্ঞা মানছে না বাকেরগঞ্জ পৌর কর্তৃপক্ষ। বরিশাল পটুয়াখালী সহাসড়কের বাস স্ট্যান ব্রীজের ঢালে সড়কে উপর ও বাকেরগঞ্জ বরগুনা সড়কে চলাচলকারী অটো টেম্পু, অটোরিকশা,অটোবাইক. সিএনজি, ট্রলি, নছিমন, করিমন সহ যানবাহন গতিরোধ করে রশিদ দিয়ে ২০ টাকা টোলের নামে প্রতি মাসে প্রায় ৩/৪ লাখ টাকা চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। 

এছাড়াও উল্লেখ্য যে, উপজেলার একটি পৌরসভা ও ১৪ টি ইউনিয়ন সহ প্রায় ৭/৮ হাজার অটোরিকশা আছে বলে জানা যায়। বিভিন্ন জায়গা থেকে অটোরিকশা,অটোভ্যান আসলেই তাদের কাছ থেকে পৌর টোল নেয়া হচ্ছে। 

পৌর এলাকার অটোরিকশা চালক মো: আমির মোল্লা  বলেন, এক বছরের জন্য অটোরিকশার লাইসেন্স বাবদ  ১৫০০ টাকা ও অটোরিকশার লাইন্সেন পেতে ৩ হাজার টাকা করে নিচ্ছেন পৌর কর্তৃপক্ষ। 

অথচ পৌর এলাকায় কোন টার্মিনাল নাই। আর এখানে কোন যানবাহন পার্কিং করে না। তারপরও বাকেরগঞ্জ  বাস স্ট্যান্ড ব্রীজের ঢালে, চৌমাথা, বিআইপি কলনির সামনে সড়ক থেকে টোল আদায় করা হচ্ছে। 

প্রকাশ্যে যানবাহন দাঁড় করিয়ে রশিদের মাধ্যমে টোল নেওয়ার নামে চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। টাকা না দিলে প্রতি নিয়ত ড্রাইভার ও সাধারন যাত্রীদের সাথে দূর্ব্যবহার করছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সজল চন্দ্র শীল বলেন, মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশে বাস টার্মিনাল ব্যতিরেকে সড়ক ও মহাসড়ক থেকে অবৈধ টোল উত্তোলন বন্ধ করার নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। 

তার পরেও সেই নির্দেশনা অমান্য করে বাকেরগঞ্জ পৌর কর্তৃপক্ষ অবৈধভাবে টোল উত্তোলন করে কিনা সেটা আমার জানা নেই। যদি কেউ এ নির্দেশনা অমান্য করে টাকা উত্তোলন করে তাহলে তাদেরকে চাঁদাবাজ হিসেবে আইনের কাছে সোপর্দ করা হবে। 

বাকেরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলাউদ্দিন মিলন বলেন, মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে কোনভাবেই টোল উত্তোলন করা যাবে না। তারপরেও কেউ যদি সড়ক বা মহাসড়কে থেকে চাঁদা উত্তোলন করে তাদের বিরুদ্ধে শীঘ্রই আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

এমএস

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart