ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনা

বছরের শেষ সপ্তাহে সূচক ও লেনদেন বেড়েছে

প্রকাশিত: ০৩:৪৫, ৩০ ডিসেম্বর ২০১৮

বছরের শেষ সপ্তাহে সূচক ও লেনদেন বেড়েছে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চলতি বছরের শেষ সপ্তাহে উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। সপ্তাহজুড়ে উভয় শেয়ারবাজারের সব সূচক বেড়েছে। একইসঙ্গে বেড়েছে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। টাকার পরিমাণে লেনদেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আগের সপ্তাহ থেকে ১২৮ কোটি টাকা এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ১০১ কোটি টাকা বেড়েছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানা গেছে, বিদায়ী সপ্তাহে চার কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ১ হাজার ৬৩৭ কোটি লাখ ৬৪ লাখ ১৯ হাজার ৪১৮ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহ থেকে ১২৮ কোটি ১৯ লাখ ৬৭ হাজার ৩৩ টাকা বা ৮.৪৯ শতাংশ বেশি। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৫০৯ কোটি লাখ ৪৪ লাখ ৫২ হাজার ৩৮৫ টাকার। ডিএসইতে বিদায়ী সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছে ৪০৯ কোটি ৪১ লাখ ৪ হাজার ৮৫৪ টাকা। আগের সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছিল ৩৭৭ কোটি ৩৬ লাখ ১৩ হাজার ৯৬ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে গড় লেনদেন ৩২ কোটি ৪ লাখ ৯১ হাজার ৭৫৮ টাকা বেশি হয়েছে। বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১২০.৩২ পয়েন্ট বা ২.২৯ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৩৮৫ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২৩.৪৫ পয়েন্ট বা ১.৯৪ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২৩২ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৩৮.৬৭ পয়েন্ট বা ২.১০ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮৮০ পয়েন্টে। ডিএসইতে বিদায়ী সপ্তাহে মোট ৩৪৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট হাত বদল হয়েছে। এর মধ্যে ২১০টির দর বেড়েছে, দর কমেছে ১১২টি শেয়ার ও ইউনিটের দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির। বিদায়ী সপ্তাহে সবচেয়ে বেশি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে খুলনা পাওয়ারের। কোম্পানিটির ৬২ কোটি ৪৩ লাখ ৬২ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫০ কোটি ৯ লাখ ৭৩ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে ইউনাইটেড পাওয়ারের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪০ কোটি ২৫ লাখ ৫৪ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে ব্র্যাক ব্যাংকের। এছাড়া বেক্সিমকোর ৩৪ কোটি ১৬ লাখ ৫১ হাজার টাকা, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের ৩৪ কোটি ৭০ হাজার টাকার, স্কয়ার ফার্মার ৩৩ কোটি ৪৪ লাখ ২৫ হাজার টাকার, জেএমআই সিরিঞ্জের ৩১ কোটি ২৮ লাখ ২৯ হাজার টাকার, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৩০ কোটি ৫৭ লাখ ৩৪ হাজার টাকার, ইফাদ অটোসের ৩০ কোটি ৫৪ লাখ ৬৮ হাজার টাকার এবং বিডিকমের ২৪ কোটি ৭৮ লাখ ৬৭ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে ১৯৬ কোটি ৫৬ লাখ ৬১ হাজার ৭৪ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৯৫ কোটি ২৭ লাখ ৯৯ হাজার ২১ টাকার। এ হিসাবে সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন ১০১ কোটি ২৮ লাখ ৬২ হাজার ৫৩ টাকা বা ১০৬ শতাশ বেড়েছে। বিদায়ী সপ্তাহে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩১১ পয়েন্ট বা ১.৯২ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৪৪৯ পয়েন্টে। এছাড়া সিএসসিএক্স ১৮৪ পয়েন্ট বা ১.৮৮ শতাংশ, সিএসই-৫০ সূচক ২৭ পয়েন্ট বা ২.২৩ শতাংশ, সিএসই-৩০ সূচক ১৭৬ পয়েন্ট বা ১.২২ শতাংশ এবং সিএসআই ১৫ পয়েন্ট বা ১.৪৮ শতাংশ বেড়ে সপ্তাহ শেষে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ৯ হাজার ৯৪৭ পয়েন্টে, ১ হাজার ১৯৮ পয়েন্টে, ১৪ হাজার ৫০০ এবং ১ হাজার ৭৬ পয়েন্টে। বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে মোট ২৯০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের হাত বদল হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৭২টির, দর কমেছে ৯৩টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির।
monarchmart
monarchmart