আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ভূমিকম্প

প্রকাশিত : ২৯ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল আবারও ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে। রবিবার সকাল ৭টার দিকে ৫ দশমিক ৬ মাত্রার এ ভূ-কম্পন অনুভূত হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) জানায়, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পটির মাত্রা ৫ দশমিক ৬। উৎপত্তিস্থল আসামের বসুগাঁও থেকে ২৩ কি. মি. উত্তরে, ভূ-পৃষ্ঠ থেকে ১০ কি. মি. গভীরে। কম্পন কয়েক সেকেন্ড স্থায়ী ছিল। এ দিকে টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, ভুটান, বাংলাদেশ ও নেপালসহ ভারতের পূর্বাঞ্চলে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। উৎপত্তিস্থল ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল হওয়ায় বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের জেলাগুলোতে কম্পন বেশি অনুভূত হয়েছে। রাজধানীর বাইরে দিনাজপুর, লালমনিরহাট, রংপুর, জয়পুরহাট, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় থেকে ভূমিকম্পের খবর পাওয়া গেছে।

কুড়িগ্রামের বিভিন্ন স্থানে রবিবার সকাল সাতটার দিকে মৃদু ভূকম্পন অনুভূত হয়। তবে এতে ক্ষয় ক্ষতির কোন খবর পাওয়া যায়নি।

মৃদু ভূমিকম্প বয়ে গেছে নীলফামারীসহ তার পার্শ্ববর্তী এলাকাসমূহে। রবিবার সকাল সাতটা ৬ মিনিটের সময় ৪০ সেকেন্ড স্থায়ী ভূ-কম্পনের সময় কাঁপতে থাকে সব কিছু। এ সময় ঘরবাড়ি থেকে মানুষজন আতঙ্কে রাস্তায় বেরিয়ে আসে। তবে কোথাও বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতির কোন খবর পাওয়া যায়নি। তিস্তা পারের ডালিয়া গ্রামের নুরুল ইসলাম মুঠোফোনে জানান, ভূ-কম্পনের সময় নদীর পানিতে উথাল-পাথাল ঢেউ সৃষ্টি হয়। সে সময় পানির প্রবাহ ভাটির উল্টো দিকে হতে দেখা যায়। এমন আজব ঘটনা আগে তিনি দেখেননি। নীলফামারী সদরের চওড়া বড়গাছা ইউনিয়নের কাঞ্চনপাড়া গ্রামের রশিদুল ইসলাম জানান, এ সময় গ্রামের পুকুরের পানির ঢেউয়ের সঙ্গে পুকুরের মাছগুলো ডাঙ্গায় উঠে আসে।

রবিবার সকালে সিলেটে মৃদু ভূ-কম্পন অনুভূত হয়। ৫ থেকে ৬ সেকেন্ড স্থায়ী এ কম্পনে কোথাও কোন ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। আবহাওয়াবিদ সাইদ আহমদ জানান, রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৫.৪। সকাল সাতটা এক মিনিটে সিলেটে ভূকম্পন অনুভূত হয়। ভারত, বাংলাদেশ ছাড়াও ভুটানেও ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে।

প্রকাশিত : ২৯ জুন ২০১৫

২৯/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: