রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

প্রস্তুতি ম্যাচে খেলবেন মাশরাফি

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫
প্রস্তুতি ম্যাচে খেলবেন মাশরাফি
  • সোমবার আসছেন কোহলিরা, অনুশীলন সূচীতে পরিবর্তন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাসের ধাক্কায় রিক্সা থেকে পড়ে গিয়ে দুই হাত ও হাঁটুতে ব্যথা পেয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ১৮ জুন শুরু হবে। এর আগেই পুরোপুরি সেরে উঠবেন দেশসেরা এ পেসার। কিন্তু মাশরাফি তারও আগে ম্যাচ খেলার ভাবনা করছেন। রবিবার থেকেই প্রস্তুতি ম্যাচ খেলা শুরু হবে হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের (এইচপি)। দলটির ১২ জুন যে বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে একদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ রয়েছে, সেই ম্যাচে মাশরাফি খেলবেন। এর মধ্য দিয়েই মাশরাফি কতটা সেরে উঠেছেন তাও বুঝতে পারবেন।

মাশরাফি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন এমন সময়ে, যখন বাংলাদেশ-ভারত সিরিজের একমাত্র টেস্টের তৃতীয় দিন চলবে। ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে একদিকে ১০ জুন টেস্ট খেলা শুরু করবে দুই দল, আরেকদিকে টেস্টের দুই দিন গিয়ে তৃতীয় দিনে পড়তেই বগুড়ায় মাশরাফি বল করতে নামবেন। সবার দৃষ্টি সেদিকেও থাকবে।

শুক্রবার সেই ম্যাচটিতে মাশরাফির নামার আগে অবশ্য সোমবার বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারতের টেস্ট দলের দিকেই নজর থাকবে। সোমবার আসবে দলটি। সকালে এসেই দুপুরে আবার অনুশীলনেও নেমে পড়বে। ফতুল্লায় অনুশীলন করবে। আগে অনুশীলন সূচীতে ভারতের এ দিনটিতে ছিল বিশ্রাম। কিন্তু এখন অনুশীলন সূচীতে পরিবর্তন করা হয়েছে। নতুন সূচী অনুযায়ী ভারত দল ঢাকায় পা রেখে দুপুরেই অনুশীলন করতে নামবে। বাংলাদেশ দলের অনুশীলন সূচীতেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। আগে মিরপুরেই টেস্টের অনুশীলন হওয়ার কথা ছিল। এখন ফতুল্লায় রবিবার থেকেই অনুশীলন করা শুরু করে দেবে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। কন্যা হুমায়রার টিকা দেয়ার তারিখ ছিল বৃহস্পতিবার। এজন্য মাশরাফির গাড়িটি মেয়েকে নিয়ে গিয়েছিল টিকা কেন্দ্রে। আরেকটি গাড়ি ছিল। কিন্তু ব্রেকে সমস্যা ছিল। যেহেতু বাসা থেকে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের দূরত্ব ১০-১৫ মিনিটের, তাই রিক্সায় করেই স্টেডিয়ামে আসতে চান মাশরাফি। তাতেই বিপত্তি ঘটে। পেছন থেকে একটি বাস এসে ধাক্কা দেয় মাশরাফির রিক্সায়। মাশরাফিও অনেকক্ষণ বাসের মতি-গতি পর্যবেক্ষণ করার কারণে যেই ধাক্কা লাগবে এর আগেই রিক্সা থেকে ঝাঁপ দেন। তাতে মাশরাফির দুই হাতের তালু ছিলে যায়। ডান হাঁটুতেও ব্যথা লাগে। তবে সেই ব্যথা গুরুতর নয়। ওয়ানডে সিরিজের আগে সেরে উঠবে। ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে নামার আগে একটা প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলা দরকার বলে আগেই জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি। ব্যথা থাকলেও যে কোনভাবে একটা ম্যাচ খেলতে চান ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’। সেই সুযোগ মাশরাফি পাচ্ছেনও। আগামী ১০ ও ১২ জুন বগুড়ায় দুটি প্রস্তুতিমূলক ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে এইচপি ইউনিট, যার একটিতে খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জাতীয় দলের অধিনায়ক। ১২ জুনের প্রস্তুতি ম্যাচেই খেলতে পারেন মাশরাফি।

শনিবার মিরপুরে মাশরাফিই বলেন, ‘যেভাবেই হোক আমাদের একটা ম্যাচ খেলতেই হবে। একমাস কোন ম্যাচ খেলি না। এইচপির সঙ্গে খেলব।’ আজ জিম শুরু করবেন মাশরাফি। ডান হাতের তালুর ক্ষত দেখিয়ে তিনি বলেন, ‘এটা যত সমস্যা (ডান হাতের তালু) করতে পারে। ব্যথা করছে। বাকিগুলো সমস্যা নয়। এটা ভালভাবে শুকাতে হবে। ফিল্ডিং করতে, ব্যাটিং করতে গিয়ে এখানে চাপ লাগবে। বোলিংয়ে বল গ্রিপ করতেও এখানে টান লাগবে। এ জায়গাটা নিয়েই চিন্তা করছি। তারপরও খেলব ম্যাচ। খুব দরকার ম্যাচ খেলার।’

এদিকে ভারতের অনুশীলন সূচীতে পরিবর্তন করা হয়েছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের কারণে বিরাট কোহলির দলটার ঢাকায় আসা একদিন পিছিয়েছে। ৭ জুন (রবিবার) আসার কথা থাকলেও পরে ৮ জুন ঢাকায় আসার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিসিআই। সোমবার সকাল ৯টা ১০ মিনিটে ঢাকায় পা রাখার কথা রয়েছে ভারতীয় টেস্ট দলের। প্রাথমিক সূচী অনুযায়ী ৮ জুন বিশ্রাম নিয়ে ৯ জুন অনুশীলন করার কথা ছিল ভারতীয় দলের। মানে একবেলা অনুশীলন করেই টেস্ট খেলতে নামার সূচী ছিল কোহলিদের। কিন্তু সেই পরিকল্পনা থেকে সরে এসেছে ভারত। কোচ রবি শাস্ত্রীর নির্দেশে ঢাকায় নেমেই সোমবার অনুশীলন করবে ভারতীয় দল। অনুশীলন সূচীতে তাই পরিবর্তনও এনেছে সফরকারীরা। দলটি সোমবার অনুশীলনের সুযোগ চেয়েছে বিসিবির কাছে। সোমবার দুপুর আড়াইটায় টেস্টের ভেন্যু ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে অনুশীলন করবে বাংলাদেশ দল। একই সময়ে ফতুল্লায় অনুশীলন করতে চায় ভারতও।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স ম্যানেজার সাব্বির খান জানিয়েছেন, ‘৮ জুন ভারতের অনুশীলন ছিল না। পরে তারা অনুশীলন করতে চায় বলে জানিয়েছে। ফতুল্লায় বাংলাদেশ দলের অনুশীলন ছিল বলে আমরা তাদের মিরপুরে সুযোগ দিতে পারব। কিন্তু তারাও ফতুল্লায় দুপুরের পর অনুশীলন করতে চায়। তবে যেহেতু বাংলাদেশ দলের অনুশীলন সেখানে আগেই ঠিক হয়ে আছে, তাই ভারত ৮ জুন অনুশীলন করতে চাইলে মিরপুরেই করতে হবে। এ বিষয়ে আমরা তাদের অবহিত করে চিঠি দিয়েছি।’

ভারতের টেস্ট দলের ক্রিকেটাররা যেদিন আসবেন, তার একদিন আগেই বাংলাদেশের ভবিষ্যত ক্রিকেটার বের করার কাজ ভালভাবেই শুরু হয়ে যাবে। এইচপির প্রস্তুতি ম্যাচ রবিবার থেকে শুরু হবে। গত ১ জুন শুরু হয়েছে বিসিবির হাই পারফর্মেন্স ইউনিটের (এইচপি) কার্যক্রম। টানা কয়েক দিন ফিটনেস টেস্ট, বিভিন্ন স্কিল টেস্ট, ব্যাটিং-বোলিং অনুশীলন, ফিল্ডিং অনুশীলনে সময় কেটেছে এইচপিতে ডাক পাওয়া ২২ ক্রিকেটারের। এবার এসব ক্রিকেটারদের ম্যাচের কন্ডিশনে পরখ করতে চায় এইচপি কোচিং ইউনিট। কোচিং ডিরেক্টর পল টেরি, হেড কোচ মাল লয়’রা দেখতে চান তরুণ ক্রিকেটারদের। রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে এইচপি ইউনিটের প্রস্তুতি ম্যাচ। শুরু হবে টি২০ ম্যাচ দিয়ে। রবিবার ও সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে দুটি টি২০ ম্যাচ খেলবেন এইচপির ক্রিকেটাররা। দিবারাত্রির ম্যাচগুলো শুরু হবে সন্ধ্যা ৬টায়। এইচপির ক্রিকেটার ও জাতীয় দলের ওয়ানডে স্কোয়াডে থাকা ক্রিকেটাররা দুটি দলে ভাগ হয়ে খেলবেন এই ম্যাচ দুটি। প্রাথমিকভাবে সব প্রস্তুতি ম্যাচই বগুড়ায় হওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। পরে সেখানে কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়। ১০ ও ১২ জুন বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে হবে দুটি ওয়ানডে ম্যাচ। এরপর ১৭-১৮ জুন ও ২০-২১ জুন ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে দুটি দুই দিনের ম্যাচ খেলবে এইচপি ইউনিট। এর মধ্য দিয়েই এইচপিতে ডাক পাওয়া ক্রিকেটারদের সম্পর্কে চূড়ান্ত ধারণা পাওয়ার আশা করছেন এইচপি ইউনিটের কোচিং স্টাফরা।

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫

০৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: