কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

তিন সিটি নির্বাচনে অনিয়ম-সংঘর্ষের তদন্ত চেয়েছে ইইউ, কানাডা অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশিত : ১ মে ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা ও চট্টগ্রামের তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের অনিয়ম ও সংঘর্ষের ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), কানাডা ও অস্ট্রেলিয়া। নির্বাচনে অনিয়মের সঙ্গে জড়িত সকলকে বিচারের আওতায় আনারও আহ্বান জানিয়েছে তারা। বৃহস্পতিবার পৃথক বিবৃতিতে তারা এই আহ্বান জানায়।

২৮ এপ্রিলের ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নানা অনিয়মের অভিযোগের বিষয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়ন বলেছে, নির্বাচনের অনিয়ম এবং সংঘর্ষের ঘটনায় অবশ্যই সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত করতে হবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের ব্রাসেলস অফিস থেকে দেয়া এই বিবৃতিতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের একটি স্বচ্ছ, শান্তিপূর্ণ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের আহ্বানের পরও ঢাকা ও চট্টগ্রামে ব্যাপক ভোট জালিয়াতি, ভীতি প্রদর্শন ও সহিংসতার জোরালো অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফলে বিএনপি নির্বাচন বয়কটের সিদ্ধান্ত নেয়। এ ছাড়া নির্বাচনে ভোটারদের সম্পূর্ণরূপে গণতান্ত্রিক মতামত প্রয়োগের সুযোগও দেয়া হয়নি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ইইউ প্রত্যাশা করছে বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক উন্নয়নে সব রাজনৈতিক পক্ষই যে কোন ধরনের সহিংসতা, অস্থিরতা ছড়ায় এমন আচরণ থেকে বিরত থেকে গঠনমূলক আচরণ করবে। সকলের দায়িত্বশীল আচরণই বাংলাদেশে দীর্ঘমেয়াদে গণতন্ত্রকে সুসংহত করবে।

এদিকে ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে অনিয়ম, অবৈধ কর্মকা- ও সহিংসতার অভিযোগের দ্রুত নিরপেক্ষ তদন্ত চেয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও কানাডা। পাশাপাশি নির্বাচনে অনিয়মের সঙ্গে জড়িত সকলকে বিচারের মুখোমুখি করে ন্যায়বিচার নিশ্চিতেরও আহ্বান জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার ঢাকার অস্ট্রেলিয়া ও কানাডা দূতাবাস যৌথভাবে গণমাধ্যমে বিবৃতি পাঠিয়ে এই আহ্বান জানায়।

বিবৃতিতে বলা হয়, সদ্য সমাপ্ত ঢাকা ও চট্টগ্রামের তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে অনিয়ম, অবৈধ কর্মকা- ও সহিংস ঘটনায় অস্ট্রেলিয়া ও কানাডা উদ্বেগ প্রকাশ করছে। দেশ দুটির মতে, চলমান পরিস্থিতিতে সরকার ও বিরোধী পক্ষের রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়ন ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া নিবিড় রাখার অন্যতম সেতু ছিল এ নির্বাচন।

দেশ দুটির হাইকমিশনারের পক্ষে গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে নির্বাচন কমিশন ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলা হয়, নিরপেক্ষ ও দ্রুততার সঙ্গে নির্বাচনের অনিয়ম, অবৈধ কর্মকা- ও সহিংসতার তদন্ত করা হোক। নির্বাচনে যারা আইন লঙ্ঘন করেছে, তাদের বিচারের মুখোমুখি করা হোক। যাতে ন্যায় বিচার নিশ্চিত হয়।

বিবৃতিতে দেশের সকল রাজনৈতিক দলকে শান্তিপূর্ণ, আইনসঙ্গত ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া বজায় রাখতে নিজেদের মধ্যে বসারও আহ্বান জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশের মানুষ ন্যায়বিচার, গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ চায়। তাদের এ চাওয়ার প্রতি অস্ট্রেলিয়া ও কানাডার সমর্থন রয়েছে। অস্ট্রেলিয়া ও কানাডা দীর্ঘমেয়াদী সম্পর্কে বিশ্বাসী। সামনের দিনগুলোতেও দেশ দুটি বাংলাদেশের মানুষের পক্ষে থাকবে।

উল্লেখ্য, ২৮ এপ্রিল তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থীরা জয়লাভ করেন। তবে নির্বাচন শুরুর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ভোট কারচুপি ও অনিয়মের অভিযোগ তুলে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ায় বিএনপি। এ ছাড়া বিভিন্ন কেন্দ্রে সংঘর্ষের ঘটনায় গণমাধ্যমকর্মীসহ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এর আগে সদ্য সমাপ্ত সিটি নির্বাচনে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ সুষ্ঠুভাবে তদন্তের জন্য জাতিসংঘ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যও আহ্বান জানায়।

প্রকাশিত : ১ মে ২০১৫

০১/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: