মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ডিকেন্সের লেখার টেবিল

প্রকাশিত : ৩০ মার্চ ২০১৫
ডিকেন্সের লেখার টেবিল

পুরো নাম চার্লস জন হুফ্যাম ডিকেন্স। প্রখ্যাত ইংরেজ কথাসাহিত্যিক ও সমাজ বিশ্লেষক। তার সৃষ্টি করা সাহিত্য কর্মগুলো যুগ যুগ ধরে সাহিত্যপ্রেমীদের মনের খোরাক যুগিয়ে আসছে। তিনি যে ডেস্কে বসে ‘দ্য গ্রেট এক্সপেকটেশন্সসহ’ বহু কালজয়ী সাহিত্যকর্ম সৃষ্টি করেছেন সেই লেখার টেবিলটি ডিকেন্স ভক্তরা বহুদিন ধরে দেখার জন্য আবদার জানিয়ে আসছিলেন। কিন্তু ডেস্কটি এতদিন একজন ব্যক্তির মালিকানায় থাকায় তা সম্ভব হয়নি।

অবশেষে লন্ডনের ‘দ্য চার্লস ডিকেন্স মিউজিয়াম’ কর্তৃপক্ষ ৭ লাখ ৮০ হাজার পাউন্ডের বিনিময়ে এটি সংগ্রহ করে ডিকেন্স ভক্তদের দেখার সুযোগ করে দিয়েছে।

১৮৭০ সালে চার্লস ডিকেন্স মারা যাওয়ার পর এক ব্যক্তি এটি ডিকেন্স পরিবারের কাছ থেকে সংগ্রহ করেন। পরে ২০০৪ সালে গ্রেট অর্মড স্ট্রিটের চ্যারিটেবল ট্রাস্ট এটিকে নিলামে তুললে ডেস্কটির মালিকানা হাতবদল হয়। বর্তমানে দ্বিতীয় মালিকের কাছ থেকে এটি সংগ্রহ করে ‘দ্য চার্লস ডিকেন্স মিউজিয়াম’ কর্তৃপক্ষ।

ব্রিটেনের কেন্ট শহরের গ্যাডস হিল প্যালেসের নিজ বাড়িতে তার জীবনের শেষ দিকে এই টেবিলে বসেই লেখালেখির কাজ করতেন ইংরেজী সাহিত্যের এই অন্যতম দিকপাল। মৃত্যুর পর এখানেই তার অসমাপ্ত ‘দ্য মিস্ট্রি অব এডউইন ড্রোড’ উপন্যাসের খসরা পাওয়া যায়।

চার্লস ডিকেন্স মিউজিয়ামের কিউরেটর রবার্ট মোয়ে বলেন, আমরা ডিকেন্সের বিখ্যাত লেখার টেবিলটি প্রদর্শন করতে পেরে সত্যিই খুশি। আমাদের সাহিত্যকর্মের জগতে এই লেখার টেবিলটি অনন্য। সকল দর্শনার্থী এটি দেখে আনন্দ পাবে। বিবিসি অবলম্বনে নাজিম মাহমুদ।

প্রকাশিত : ৩০ মার্চ ২০১৫

৩০/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: