আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চীনে থাকা জাপানী কোম্পানিগুলোর দৃষ্টি বাংলাদেশে

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • জেট্টোর সমীক্ষায় বিনিয়োগের উজ্জ্বল গন্তব্য

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ বর্তমান সময়ে বিনিয়োগের সবচেয়ে উজ্জ্বল গন্তব্য হচ্ছে বাংলাদেশ। তাই চীনে অবস্থানরত জাপানী কোম্পানিগুলোর দৃষ্টি এখন বাংলাদেশের দিকে। বাংলাদেশে শ্রমিকমজুরি বিশ্বে সবচেয়ে সস্তা। তাছাড়া বাংলাদেশে ব্যবসার খরচ কমানোর বিস্তর সুযোগ রয়েছে। মুনাফার সম্ভাবনাও বেশি। তাই কর্পোরেটদের দৃষ্টি এখন বাংলাদেশের দিকে।

জাপান এক্সটার্নাল ট্রেড অর্গানাইজেশনের (জেট্রো) এক সমীক্ষায় এ তথ্য উঠে এসেছে। এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশে ব্যবসারত জাপানী ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর এই সমীক্ষা চালানো হয়। সমীক্ষাকালে গত বছরের অক্টোবর ও নবেম্বর মাসে বিশ্বের ২০টি দেশের ১০ হাজার ৭৮ প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ নির্বাহীর মতামত গ্রহণ করা হয়। সোমবার এই সমীক্ষা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়েছে।

সমীক্ষায় বলা হয়, বাংলাদেশের শ্রমিকদের মজুরি হচ্ছে বিদেশী বিনিয়োগকারীদের জন্য সবচাইতে আকর্ষণীয় বিষয়। বর্তমানে বাংলাদেশে শ্রমিকমজুরি বিশ্বে সবচেয়ে কম। উৎপাদন খাতে মাসিক এই মজুরির পরিমাণ হচ্ছে মাত্র এক শ’ ডলার। অথচ কম্বোডিয়ায় এই মজুরি ১১৩ ডলার, ভিয়েতনামে ১৭৬ ডলার, ভারতে ২৩৯ ডলার, ইন্দোনেশিয়ায় ২৫৩ ডলার, থাইল্যান্ডে ৩৬৯ ডলার এবং চীনে ৪০৩ ডলার।

শিল্প পরিচালনার ক্ষেত্রে শীর্ষ নির্বাহীদের কাছে বর্তমানে সবচেয়ে উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে মজুরি বৃদ্ধি। এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে এই শ্রমিকমজুরি ৭২ শতাংশেরও বেশি বেড়েছে। ফলে কোম্পানির ব্যবস্থাপকরা এই বর্ধিত মজুরির সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে রীতিমতো ঘাম ঝরাচ্ছেন।

জাপানী বিনিয়োগকারীরা মনে করছেন, বাংলাদেশে খরচ কমানোর বিস্তর সুযোগ রয়েছে। ৮৪ শতাংশ জাপানী বিনিয়োগকারীই মনে করেন, বাংলাদেশে খরচ কমানোর অনেক সুযোগ রয়েছে। কারণ জাপানের চেয়ে বাংলাদেশে কোন পণ্যের উৎপাদন খরচ এখনও অর্ধেকেরও কম। অথচ চীনে কোন পণ্যের উৎপাদন খরচ জাপানের প্রায় ৭৭ শতাংশ এবং ভিয়েতনামে ৭১ শতাংশ।

এ কারণে কর্পোরেট প্রধানরা বাংলাদেশে ২০১৫ সালকে নিয়ে নতুন স্বপ্ন দেখছেন। তাদের স্বপ্ন হচ্ছে, ২০১৫ সালে ব্যবসায়িক মুনাফা আরও বৃদ্ধি পাবে। কারণ ডিফিউশন সূচকে (ডিআই) বাংলাদেশের প্রতি ব্যবসায়ীদের সর্বোচ্চ আস্থার প্রতিফলন দেখা গেছে। তাই চীনে অবস্থানরত জাপানী কোম্পানিগুলোর দৃষ্টি এখন বাংলাদেশের দিকে।

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৪/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: