রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রোনাল্ডোকে হটিয়ে ফের কক্ষপথে মেসি

প্রকাশিত : ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মাঠের লড়াইয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে কিছুতেই টপকাতে পারছিলেন না লিওনেল মেসি। ২০১৪ সালে রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগীজ সুপারস্টারের কাছে খুইয়েছেন একের পর এক মুকুট। ফিফা ব্যালন ডি’অরের রাজত্ব হারান আগের বছরেই। এবারও সেটা পুনরুদ্ধার করতে পারেননি বার্সিলোনার আর্জেন্টাইন তারকা। মনে মনে তাই ক্ষোভ থাকতেই পারে সাবেক চারবারের ফিফা সেরা ফুটবলারের! এ কারণেই হয়ত নতুন বছরের শুরু থেকেই আছেন সেই পুরনো বিধ্বংসী ফর্মে। মজার ব্যাপার হচ্ছে, মেসি ফিরে পেয়েছেন হারানো সেই ফর্ম আর তার প্রতিদ্বন্দ্বী রোনাল্ডোর ক্ষেত্রে হচ্ছে ঠিক তার উল্টোটা। বাজে ফর্ম, নিষেধাজ্ঞা, বান্ধবীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি, নাইট ক্লাবে পার্টিতে মজে থাকাসহ নানা বিতর্কিত কর্মকা-ে এখন জর্জরিত সি আর সেভেন।

বিগত কয়েক মৌসুম ধরেই ব্যক্তিগত দ্বৈরথ চলছে মেসি ও রোনাল্ডোর মধ্যে। বার্সিলোনার হয়ে আর্জেন্টাইন জাদুকর ও রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে পর্তুগীজ প্রাণভোমরা প্রদর্শন করে চলেছেন নয়নাভিরাম ধারাবাহিক পারফর্মেন্স। তবে এক মৌসুম আগেও বছর শেষে পারফর্মেন্সের হিসেব কষলে বার বারই সেরার আসনে অধিষ্ঠিত হয়েছেন মেসি। কিন্তু গেল মৌসুম ও চলমান মৌসুমের শুরুর দিকে বক্তিগত দ্বৈরথে এগিয়ে ছিলেন রোনাল্ডো। চলমান ২০১৪-১৫ মৌসুমেও এই দুই মহাতারকার মধ্যে চলছে ব্যক্তিগত দ্বৈরথ। একে অপরকে ছাড়িয়ে যাওয়ার অন্যরকম লড়াই। এক ম্যাচে মেসি গৌরবময় রেকর্ড গড়ছেন তো পরের ম্যাচেই সবাইকে ছাড়িয়ে যাওয়ার কৃতিত্ব দেখাচ্ছেন রোনাল্ডো। এককথায় রেকর্ড ভাঙ্গা-গড়ার খেলায় মত্ত আছেন সময়ের দুই মহাতারকা। এইত গত জানুয়ারিতে লা লিগায় হ্যাটট্রিক নিয়ে দুই মহাতারকার দ্বৈরথ জমে উঠে। সেল্টা ডি ভিগোর বিরুদ্ধে তিন গোল করে স্পানিশ লা লিগায় সর্বোচ্চ ২৩ হ্যাটট্রিকের গৌরবগাথা রচনা করেন রিয়াল তারকা। একদিন পরই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর হ্যাটট্রিকের জবাব হ্যাটট্রিকে দেন বার্সিলোনা প্রাণভোমরা। এখন পর্যন্ত লা লিগার হ্যাটট্রিকের দ্বৈরথে এগিয়ে বর্তমান ফিফা সেরা ফুটবলারই। রোনাল্ডোর ২৩ হ্যাটট্রিকের বিপরীতে মেসির হ্যাটট্রিক ২১টি। সাফল্যের ওই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছেন মেসি। কিন্তু ফর্ম হারিয়ে ধুঁকছেন রোনাল্ডো। আর্জেন্টাইন অধিনায়ক ২০১৫ সালে এখন পর্যন্ত লা লিগায় ১৪ গোল করেছেন। সমান গোলে রেখেছেন অবদান। এই সময় রোনাল্ডো করেছেন মাত্র চারটি গোল।

গত ২৪ জানুয়ারি লা লিগার ম্যাচে কর্ডোবার এক ফুটবলারকে লাথি ও ঘুষি মেরে দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হন রোনাল্ডো। কিছুদিন আগে এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কাছে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার পর জন্মদিনের উৎসব করেন তিনি। এ নিয়ে চলছে এখন বিতর্ক। রিয়াল প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্টিনো পেরেজও ক্ষেপেছেন দলের সেরা তারকার বাজে পারফর্মেন্সের কারণে। অন্যদিকে মেসি ফিরে পেয়েছেন তার হারানো সেই জাদু। সাময়িক দুঃসময় কাটিয়ে মাঠ মাতাচ্ছেন ক্ষুদে এই জাদুকর। বার্সার জয়ে নিয়মিতই রাখছেন অবদান। ধারাবাহিকভাবে গোল করছেন, করাচ্ছেন অন্যদের দিয়ে। বিশেষ করে নেইমারের সঙ্গে তার জুটিটা দারুণ জমে উঠেছে। রূপকথার নায়ক মেসির শ্রেষ্ঠত্বের শুরু সেই ২০০৯ সাল থেকে। ওই বছর ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, জাভি হার্নান্দেজ আর আন্দ্রেস ইনিয়েস্তাকে টপকে প্রথমবারের মতো বিশ্বসেরা ফুটবলারের খেতাব জিতেছিলেন তিনি। এরপর শুধু নিজেকেই ছাড়িয়ে যাওয়ার ইতিহাস। একের পর এক বিস্ময়কর কীর্তি গড়ে ফিফা বর্ষসেরার পুরস্কারটাকে যেন নিজেরই বানিয়ে ফেলেন বার্সিলোনার এই আর্জেন্টাইন জাদুকর। ২০০৯ থেকে ২০১২ সাল। টানা চার বছর ফিফা সেরা হন মেসি। অন্যদিকে ২০০৮ সালে প্রথমবারের মতো ফিফা বর্ষসেরার পুরস্কার বাজিমাত করেছিলেন রোনাল্ডো। এরপরই ছায়া হয়ে যান মেসির ধারাবাহিক ঔজ্জ্বলতায়। ২০০৯, ২০১১ ও ২০১২ সালে তিনবারই সেরা তিনের তালিকায় থেকে দ্বিতীয় হন তিনি। ২০১৩ সালে যেন সেই শিরোপা পুনরুদ্ধারের লক্ষ্য নিয়েই খেলতে শুরু করেন বিশ্বফুটবলের সেরা এই স্ট্রাইকার। রোনাল্ডো ২০১৩ সালে ৬০ ম্যাচ খেলে ৬৯ গোল করেন। এর মধ্যে রিয়ালের হয়ে ৫১ ম্যাচে গোল ৫৯টি। বাকি ৯ ম্যাচে ১০ গোল নিজ দেশ পর্তুগালের জার্সিতে।

প্রকাশিত : ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১২/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: